রাসেল’স ভাইপার দাবিতে লোহাগাড়ায় মারা সাপটি নির্বিষ বার্মিজ পাইথন বা অজগর সাপ

দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বেশ কয়েকদিন যাবত রাসেল’স ভাইপার বা চন্দ্রবোড়া সাপের আতঙ্ক বিরাজ করছে। যা নিয়ে সারাদেশেই ব্যাপক আলোচনাও চলছে। এর প্রেক্ষিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে রাসেল’স ভাইপারের ছবি দাবিতে একাধিক ছবি প্রচার করা হচ্ছে।

“ঘোনার মোট বড় হাতিয়া লোহাগাড়া”তে রাসেল’স ভাইপার পাওয়া গিয়েছে দাবিতে সাম্প্রতিক সময়ে একটি সাপের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট আকারে প্রচার করা হয়। উক্ত দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, রাসেল’স ভাইপার দাবিতে চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার বড়হাতিয়া ইউনিয়নের ঘুনারমোড় এলাকায় মারা সাপটি তীব্র বিষধর রাসেল’স ভাইপার সাপ নয়, বরং এটি নির্বিষ বার্মিজ পাইথন বা অজগর।

অনুসন্ধানের প্রাথমিক পর্যায়ে অনলাইনে বিদ্যমান রাসেল’স ভাইপারের ছবি কিংবা গঠনগত বৈশিষ্ট্যের সাথে আলোচিত দাবিতে প্রচারিত সাপটির পার্থক্য লক্ষ্য করা যায়। রাসেল’স ভাইপারের বৈজ্ঞানিক নাম Daboia russelii এবং রাসেল’স ভাইপারের মাথার আকৃতি ত্রিকোণাকার এবং রাসেল’স ভাইপারের গায়ে স্পষ্ট গোলাকার অনেকটা চেইনের মতো দাগ থাকে৷ তাছাড়া, বাংলাদেশে প্রাপ্ত রাসেল’স ভাইপারে সাধারণত উজ্জ্বল আকৃতির বাদামি বর্ণের মধ্যে স্পষ্ট গোলাকার দাগ থাকে। উপরোল্লিখিত বৈশিষ্ট্যগুলো আলোচিত দাবিতে প্রচারিত সাপটির সাথে মিলে না।

Comparison : Rumor Scanner

অপরদিকে প্রচারিত ছবিটির সাথে বার্মিজ পাইথন বা অজগর সাপের সাদৃশ্য পাওয়া যায়। Florida Fish and Wildlife Conservation Commission এর তথ্যানুসারে বার্মিজ পাইথন বা অজগর বড় আকৃতির সাপ, যারা ২০ ফুটের বেশি লম্বা হতে পারে। সাধারণ বার্মিজ পাইথনগুলি তামাটে রঙের হয় এবং তাদের পিঠ ও পাশে গাঢ় চিহ্ন থাকে। 

Comparison : Rumor Scanner

এছাড়া সাপ নিয়ে কাজ করা বাংলাদেশি প্ল্যাটফর্ম Society for Snake & Snakebite Awareness (3SA) এর জনসচেতনতামূলক পোস্টার থেকে জানা যায়, বার্মিজ পাইথন বা অজগর সাপের দেহে ছোট-বড় অসংখ্য ছোপ থাকে যেগুলোর নির্দিষ্ট কোনো আকৃতি নেই, অনেকটা আয়তাকার যা যাথা থেকে লেজ পর্যন্ত নকশার ন্যায় বিস্তৃত থাকে। অজগর সাপের এই স্পট/ছোপগুলো একটি-অপরটির সাথে সংযুক্ত এবং এতে বাদামী বর্ণের মোটা দাগের বর্ডার থাকে। অজগর সাপের আঁশগুলো বেশ মসৃন-পিচ্ছিল এবং ছোট-ছোট। 

একই প্ল্যাটফর্ম থেকে প্রকাশিত একই পোস্টে অজগর ও রাসেল’স ভাইপারের পার্থক্য সম্পর্কে জানা যায়,

১.অজগরের দেহে ছোট বড় অসংখ্য ছোপ থাকে যেগুলো নির্দিষ্ট কোন আকৃতিতে নেই অনেকটা আয়তাকার যা মাথা থেকে লেজ পর্যন্ত নকশার ন্যায় বিস্তৃত থাকে। অপরদিকে, চন্দ্রবোড়া বা রাসেল’স ভাইপার সাপের দেহে অসংখ্য গোলাকার/ চন্দ্রের মতো ছোপ থাকে যেগুলো মাথা থেকে লেজ পর্যন্ত বিস্তৃত। 

২.অজগর সাপের এই স্পট-ছোপ গুলো একটি অপরটির সাথে সংযুক্ত এবং এতে বাদামি বর্নের মোটা দাগের বর্ডার থাকে। কিন্তু চন্দ্রবোড়া বা রাসেল’স ভাইপার সাপের গোলাকৃতির ছোপ গুলো মোটা দাগে কালো বর্ডারযুক্ত বেশ দূরত্ব নিয়ে পৃথক অবস্থায় আছে যা একটি অপরটির সাথে সংযুক্ত নয়।

৩.অজগর সাপের আঁশ গুলো বেশ মসৃন-পিচ্ছিল এবং ছোট-ছোট। অপরদিকে, চন্দ্রবোড়া বা রাসেল’স ভাইপার সাপের আঁশগুলো বেশ অমসৃন-খসখসে তুলনামূলক স্পষ্ট ও বড় হয়ে থাকে।

উপরোল্লিখিত বৈশিষ্ট্যগুলোর সাথে প্রচারিত ছবিটির মিল পাওয়া যায়৷ যা দেখে নিশ্চিত হওয়া যায়, আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ছবিটি রাসেল’স ভাইপারের নয়, বরং বার্মিজ পাইথন বা অজগর সাপের। 

এ বিষয়ে অধিকতর নিশ্চিত হতে রিউমর স্ক্যানার যোগাযোগ করে সাপ ও সাপের উদ্ধার নিয়ে কাজ করা প্ল্যাটফর্ম Snake Rescue Team Bangladesh এর জেনারেল সেক্রেটারি প্রিতম সুর রায়ের সাথে৷ তিনি আলোচিত দাবিতে প্রচারিত সাপটি রাসেল’স ভাইপার নয়, বরং বার্মিজ পাইথন বা অজগর সাপ বলে নিশ্চিত করেন।

তাছাড়া, এ বিষয়ে প্রচারিত একই একটি ছবিসহ মূলধারার গণমাধ্যম যুগান্তরে গত ২২ জুন তারিখে একটি সংবাদ প্রকাশ হতে দেখা যায়। সংবাদটি পড়ে জানা যায়, চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার বড়হাতিয়া ও চুনতি ইউনিয়নে রাসেলস ভাইপার ভেবে বার্মিজ গোলবাহার প্রজাতির দুটি অজগরের বাচ্চাকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছেন স্থানীয়রা। চুনতি বন্য প্রাণী অভয়ারণ্যের বনরেঞ্জ কর্মকর্তা মাহমুদ হোসেন জানান, পিটিয়ে মারা সাপ দুটি বার্মিজ গোলবাহার প্রজাতির অজগর। চুনতি বন্য প্রাণী অভয়ারণ্যে এ প্রজাতির অজগর সাপ আছে। খাবারের খোঁজে অজগরগুলো লোকালয়ে ছড়িয়ে পড়ে। লোকালয়ে সাপ দেখলে আতঙ্কিত না হয়ে বন বিভাগকে খবর দেওয়ার অনুরোধ জানান এই কর্মকর্তা।

মূলত, সাম্প্রতিক সময়ে রাসেল’স ভাইপার দাবিতে চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার বড়হাতিয়া ইউনিয়নের ঘুনারমোড় এলাকায় একটি সাপ হত্যা করা হয়। কিন্তু, প্রকৃতপক্ষে সাপটি নির্বিষ বার্মিজ পাইথন বা অজগর ছিল।

সুতরাং, চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার বড়হাতিয়া ইউনিয়নের ঘুনারমোড় এলাকায় হত্যাকৃত সাপটি রাসেল’স ভাইপার মর্মে প্রচারিত দাবি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img