মূল্যবৃদ্ধির কারণে মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল খাওয়ার পরামর্শ দেননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে, “মুরগির দাম বেশি? No Tension! এখন মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল” শীর্ষক শিরোনামে মুরগির মাংসের মূল্যবৃদ্ধির কারণে মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী এমন দাবিতে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। 

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ)।

টিকটকেও প্রচারিত এ সংক্রান্ত কিছু ভিডিও দেখুন এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে প্রধানমন্ত্রী মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন শীর্ষক দাবিটি সঠিক নয় বরং জিনোম সিকোয়েন্স আবিষ্কারের প্রেক্ষাপটে ২০২২ সালে কাঁঠালের বহুমুখী ব্যবহার নিশ্চিতে মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল ব্যবহারের পরামর্শ শীর্ষক প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যকে বিভ্রান্তিকরভাবে প্রচার করা হচ্ছে।  

রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে দেশীয় গণমাধ্যম RTV এর ইউটিউব চ্যানেলে একটি ভিডিও(আর্কাইভ) খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার। সেই ভিডিওতে দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০২২ সালের ১৯ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বারোমাসি কাঠালের জিনোম সিকোয়েন্স আবিষ্কারের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়কে অভিনন্দন জানান। সেইসাথে কাঁঠালের বহুমুখী ব্যবহারের উপর জোর দেন তিনি। 

গত বছরের (২০২২) ১৯ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দেওয়া প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যটির প্রাসঙ্গিক অংশটুকু হুবহু তুলে দেওয়া হলো-

“অনেকেই কিন্তু মাংস খেতে চায় না। মাংসের পরিবর্তে এখন কাঁঠাল। এবং এই কাঁচা কাঁঠাল, এই কাঁঠালের কাবাব হয়, বার্গার হয়। কাঁঠাল নানাভাবে কিন্তু বিদেশে এখন ব্যবহার করছে, খাচ্ছে। এবং তাঁর দাম কিন্তু অনেক বেশি। মানে আপনি কাঁচা কাঁঠালের একটা বার্গার যদি কিনতে যান তাহলে তার দাম কিন্তু মাংস দিয়ে যে বার্গার করে, রোল তৈরি করে সেগুলির থেকে কিন্তু দাম অনেক বেশি। এবং তার কিন্তু ব্যাপক চাহিদা। তো আমরা যদি এই বারোমাসি কাঁঠাল উৎপাদন করতে পারি এবং সেইসাথে সাথে কাঁঠালের বিভিন্ন পণ্য যেগুলি, বর্তমান যুগে তো আমাদের দেশেও ছেলেমেয়েরা এখন বার্গার, রোল এটা-সেটা খেতেই বেশি পছন্দ করে। তো সেখানে মাংসের পরিবর্তে কাঁঠালটা, কাঁঠালটাকে কিন্তু মাংসেরই পরিবর্তে একটা ই হিসেবে ধরা হয়। মানে মাংসের পরিবর্তে এই কাঁঠালটি এখন সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আমি বিশেষভাবে আপনাদের এই বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের এই ২৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আপনাদের বিশেভাবে আমি আন্তরিক অভিনন্দন জানাই যে আপনারা কাঁঠাল গবেষণা করে বারোমাসি কাঁঠালের জিনোম সিকোয়েন্স আবিষ্কার করতে পেরেছেন। এখন এর বহুমুখী ব্যবহার করতে হবে।”

বক্তব্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রী মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন। কিন্তু, সেটি মাংসের দামের ঊর্ধ্বগতির কারণে নয় বরং, সম্পূর্ন ভিন্ন প্রেক্ষাপটে তিনি মন্তব্যটি করেছেন। মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল ব্যবহারের মাধ্যমে কাঁঠালের বহুমুখী ব্যবহার নিশ্চিত করার উপরে জোড় দিতে গিয়ে এবং বহির্বিশ্বে কাঁঠালের বহুমুখী ব্যবহারের উদাহরণ হিসেবে তিনি উল্লিখিত মন্তব্য করেন।

পরবর্তীতে কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, মূলধারার একাধিক গণমাধ্যমে প্রচারিত সেদিনের (১৯ ডিসেম্বর, ২০২২) ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম। এসব ভিডিও প্রতিবেদন দেখুন যমুনা টিভি(আর্কাইভ), মাছরাঙা নিউজ(আর্কাইভ), সময় টিভি(আর্কাইভ)। এসব প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করেও প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের কোনো ভিন্ন প্রেক্ষাপট খুঁজে পাওয়া যায়নি।

এছাড়াও, দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকার ওয়েবসাইটে ১৯ ডিসেম্বর, ২০২২ এর একটি প্রতিবেদনেও দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রী বহির্বিশ্বে মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল ব্যবহারের উদাহরণ দিয়েছেন। 

প্রতিবেদনটি দেখুন দৈনিক জনকন্ঠ। 

Source: দৈনিক জনকন্ঠ

এছাড়াও, কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে দ্য ডেইলি ক্যাম্পাসের ১৯ ডিসেম্বরের একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনটি দেখুন দ্য ডেইলি ক্যাম্পাস। সেখানেও দেখা যায়, কাঁঠালের বহুমুখী ব্যবহারের উদাহরণ হিসেবে প্রধানমন্ত্রী মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল খাওয়ার কথা বলেছেন।

Source: দ্য ডেইলি ক্যাম্পাস

মূলত, ২০২২ সালের ১৯ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বারোমাসি কাঁঠালের জিনোম সিকোয়েন্স আবিষ্কারের প্রেক্ষাপটে কাঁঠালের বহুমুখী ব্যবহার নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল ব্যবহারের পরামর্শ দেন। বর্তমানে মাংসের বাজারমূল্যে ঊর্ধ্বগতি উল্লেখপূর্বক তার সাথে প্রধানমন্ত্রীর সেই বক্তব্য জুড়ে দিয়ে ‘মূল্যবৃদ্ধির কারণে মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী’ শীর্ষক যে দাবিটি করা হচ্ছে তা সঠিক নয়।

উল্লেখ্য, পশ্চিমা দেশগুলোতে মাংসের পরিবর্তে দ্রুতই বাড়ছে কাঁঠালের জনপ্রিয়তা। রোল, কাটলেট এমনকি পিৎজার টপিংয়ের জন্যও ব্যবহৃত হচ্ছে কাঁঠালের ঝুরি। একদিকে যেমন বাহারি খাবারের রান্না করা সম্ভব হচ্ছে অন্যদিকে, তেমনি নানারকমের পুষ্টিগুন সম্পন্ন হওয়ায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দ্রুতই বাড়ছে কাঁঠালের চাহিদা।

সুতরাং, জিনোম সিকোয়েন্স আবিষ্কারের প্রেক্ষাপটে কাঁঠালের বহুমুখী ব্যবহার নিশ্চিতে মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল ব্যবহারের পরামর্শকে  দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে প্রধানমন্ত্রী মাংসের পরিবর্তে কাঁঠাল খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন শীর্ষক দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img