দুবাইয়ে আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতা ২০২৪ এ তাকরিমের প্রথম হওয়ার দাবিটি মিথ্যা

সম্প্রতি, দুবাই আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতা-২০২৪ এ বিশ্বের ৭০টি দেশকে পিছনে ফেলে আবারও বিশ্বসেরা হয়েছেন বাংলাদেশে সালেহ আহমেদ তাকরিম শীর্ষক একটি তথ্য ফেসবুকে ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয়েছে।

তাকরিমের প্রথম

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, হাফেজ সালেহ আহমেদ তাকরিম দুবাই আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতা-২০২৪ এ বিশ্বসেরা বা প্রথম হননি। প্রকৃতপক্ষে, দুবাই আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতা-২০২৪ এর আসর এখনও শুরুই হয়নি। আগামী ১২ মার্চ–২৫ মার্চ ২০২৪ এ প্রতিযেগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া, ২০২৩ সালের  দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে অ্যাওয়ার্ড জেতায় ২০২৪ সালের এ প্রতিযোগিতায় সালেহ আহমেদ তাকরিমের অংশগ্রহণের সুযোগ নেই। 

অনুসন্ধানে দেখা যায়, সম্প্রতি দুবাইয়ের ২০২৪ কোরআন প্রতিযোগিতায় সালেহ আহমেদ তাকরিম প্রথম হয়েছেন বিষয়টি ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে। প্রথমদিকের কিছু পোস্টের সাথে যমুনা টেলিভিশনের একটি সংবাদের ভিডিও যুক্ত হয়ে প্রচার হওয়ার ফলে দ্রুততরভাবে এটি ছড়িয়ে পড়ে। তবে যমুনা টেলিভিশনের ওই ভিডিওটি মূলত গতবছরের প্রতিযোগিতায় তাকরিমের প্রথম হওয়ার সংবাদের।  

Screenshot compile by RS

অনুসন্ধানে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ওয়েবসাইটে আন্তর্জাতিক হিফ্জুল কুরআন প্রতিযোগিতা দুবাই ২০২৪ এ অংশগ্রহণের জন্য আবেদন আহবান করে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রকাশিত একটি বিজ্ঞপ্তি খুঁজে পাওয়া যায়। ওই বিজ্ঞপ্তিতে দেখা যায়, ২০২৪ সালের দুবাই আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতা আগামী ১২ থেকে ২৫ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। শর্তাবলীর মধ্যে দেখা যায়, ইতোপূর্বে দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক হিফয প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই বলে উল্লেখ করা হয়েছে। 

Notice Screenshot from Islamic Foundation 

পরবর্তীতে বিষয়টি নিয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালক মো: আনিছুর রহমান সরকারের সাথে কথা বলে রিউমর স্ক্যানার। বিষয়টি নিয়ে তিনি জানান– “এই প্রতিযোগিতায় তাকরিম জয়ী হয়ে এসেছে। তার আর যাওয়ার সুযোগ নেই। এবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ফয়সাল আহমেদ যাওয়ার জন্য নির্বাচিত হয়েছে।”

দুবাই আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতার অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, সাধারণত প্রতিবছর রমজান মাসের প্রথম দিন থেকে এই প্রতিযোগিতা শুরু হয় এবং এ প্রতিযোগিতার অংশগ্রহণের একটি শর্ত হলো পূর্বের কোনো কোরআন প্রতিযোগিতার আওয়ার্ড সেশনে অংশগ্রহণকারীরা আবেদন করতে পারবে না।

মূলত, গতবছর ২৬তম দুবাই আন্তর্জাতিক কুরআন তিলাওয়াত প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছিলেন হাফেজ সালেহ আহমেদ তাকরিম। সম্প্রতি গতবছরের এই প্রথম হওয়ার সংবাদ ২০২৪ সালের আসরেও প্রথম হয়েছেন হিসেবে ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয়েছে। তবে দুবাই আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতা -২০২৪ এর আসর এখনও শুরু হয়নি, এই প্রতিযোগিতা সাধারণত রমজান মাসে অনুষ্ঠিত হয় এবং গতবছর অংশগ্রহণ করে পুরস্কার জেতায় হাফেজ সালেহ আহমেদ তাকরিমের এ বছর এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের আর সুযোগ নেই। আগামী মার্চে অনুষ্ঠিতব্য এই প্রতিযোগিতায়৷ বাংলাদেশ থেকে একমাত্র প্রতিযোগী হিসেবে অংশ নেবেন ফয়সাল আহমেদ।

সুতরাং, হাফেজ সালেহ আহমেদ তাকরিমের ২০২৪ দুবাই আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতা প্রথম হওয়ার দাবিটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

  1. Islamic Foundation notice 
  2. Dubai Quran competition official website 
  3. Statement of Islamic Foundation’s Director  
  4. Rumor Scanner Investigation 

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img