বৃহস্পতিবার, জুলাই 18, 2024
spot_img

ডক্টর ইউনূসকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দায়িত্ব দিতে বিএনপি’র বৈঠক এবং ৭ জানুয়ারির নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে গুজব 

সম্প্রতি, ড.ইউনুসকে তত্ত্বাবধায়ক দিয়ে বিএনপি’র বৈঠক, ৭ জানুয়ারিতে নির্বাচন করবে বিএনপি– শীর্ষক শিরোনামে এবং থাম্বনেইলে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে। 

ভিডিওটিতে দাবি করা হচ্ছে, ডক্টর ইউনূসকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দায়িত্ব দিতে বিএনপি বৈঠক করেছে। আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে বিএনপি। 

ডক্টর ইউনূসকে

ফেসবুকে প্রচারিত ভিডিও পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিও পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ডক্টর ইউনূসকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দায়িত্ব দিতে বিএনপি কোনো বৈঠক করেনি এবং আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে বলে কোনো ঘোষণা দেয়নি বরং অধিক ভিউ পাবার আশায় চটকদার শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে নির্ভরযোগ্য কোনো তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই আলোচিত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, শুরুতে একটি সংবাদ প্রতিবেদন দেখানো হয়েছে। এছাড়া, গণঅধিকার পরিষদের একাংশের আয়োজিত কারারুদ্ধ বাংলাদেশ, ডামি নির্বাচনের ফাঁদ ও ভোটাধিকার– শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তাদের দেওয়া বক্তব্যের ভিডিও দেখানো হয়। 

ভিডিও যাচাই- ১

আলোচিত ভিডিওটির শুরুতে একটি সংবাদ প্রতিবেদন দেখানো হয়। প্রতিবেদনটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায় “IBTV USA” শীর্ষক একটি লোগো রয়েছে। সেই লোগো’র সূত্র ধরে অনুসন্ধানে IBTV USA নামক একটি ইউটিউব চ্যানেলে গত ৩০ ডিসেম্বর “সংলাপ হলে বসতে রাজি বিএনপি” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। (আর্কাইভ

উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটির সাথে আলোচিত ভিডিওতে থাকা সংবাদ প্রতিবেদনটির হুবহু মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, শুক্রবার (২৯ ডিসেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের দ্বিবার্ষিক কাউন্সিলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেন, ৭ তারিখ অনেক দূরে আছে…আপনারা ভাবুন, চিন্তা করুন, আলোচনায় বসুন, সংলাপ করুন। এই হিংসাত্মক সাংঘর্ষিক রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসুন। আপানাদের অনুরোধ এই কারণে যে, আপনারা সরকারে আছেন, কাজেই মূল সিদ্ধান্ত গ্রহণের যে দায়িত্ব সেটা কিন্তু সরকারের ওপর বর্তায়।

অর্থাৎ, উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটিতে ডক্টর ইউনূসকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দায়িত্ব দিতে বিএনপি’র বৈঠক এবং আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি’র অংশগ্রহণ করবে এ-সংক্রান্ত কোনো তথ্য উল্লেখ করা হয়নি। 

ভিডিও যাচাই- ২

আলোচিত ভিডিওটির এই অংশে গণঅধিকার পরিষদের ব্যানারে দুই বক্তাকে বক্তব্য দিতে দেখা যায় এবং ভিডিওতে BV71 শীর্ষক একটি লিখা দেখা যায়। এই BV71 এর সূত্র ধরে অনুসন্ধানে BV71 নামক একটি ইউটিউব চ্যানেলে গত ৩০ ডিসেম্বর “তোলপাড় শুরু! ড. ইউনূস তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান হতে যাচ্ছে” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। (আর্কাইভ

উক্ত ভিডিওটির সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে বক্তব্যদের দেওয়া বক্তব্যের হুবহু মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

উক্ত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, শুরুতে বক্তা ডক্টর ইউনূসের বিরুদ্ধে করা মামলা নিয়ে কথা বলেন। তিনি বক্তব্যে ডক্টর ইউনূসকে হয়রানি করা হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন। এছাড়া, ৩৪ সেকেন্ড থেকে এক বক্তা বক্তব্য দেন। তিনি আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে আওয়ামী লীগের দেওয়া ইস্তেহার নিয়ে সমালোচনা করেন। 

অর্থাৎ, এখানের দুই বক্তার কেউই ডক্টর ইউনূসকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দায়িত্ব দিতে বিএনপি’র বৈঠক এবং আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি’র অংশগ্রহণ করবে এ-সংক্রান্ত কোনো তথ্য উল্লেখ করা হয়নি। 

ভিডিও যাচাই- ৩

আলোচিত ভিডিওটির এই অংশে গণঅধিকার পরিষদের ব্যানারে বক্তাকে বক্তব্য দিতে দেখা যায়। পরবর্তীতে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে Ariful Islam নাম একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্টে গত ৩০ ডিসেম্বর “কারারুদ্ধ বাংলাদেশ, ডামি নির্বাচনের ফাঁদ ও ভোটাধিকার- শীর্ষক আলোচনা সভা”- ক্যাপশনে একটি লাইভ ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। (আর্কাইভ)

উক্ত লাইভ ভিডিওটির শুরুর ৫ মিনিটের পর থেকে বক্তার দেওয়া বক্তব্যের সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে থাকা বক্তার বক্তব্যের মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

১৮ মিনিট ১৬ সেকেন্ডের লাইভ ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, ৫ মিনিটের পর থেকে বক্তা বর্তমান সরকার নিয়ে সমালোচনা করছেন এবং আগামী ৭ জানুয়ারি নির্বাচনে ভোট বর্জনের আহবান জানান। 

অর্থাৎ, এখানেও ডক্টর ইউনূসকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দায়িত্ব দিতে বিএনপি’র বৈঠক এবং আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি’র অংশগ্রহণ করবে এ-সংক্রান্ত কোনো তথ্য উল্লেখ করা হয়নি।

এছাড়া, প্রাসঙ্গিক নানা কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে গণমাধ্যম বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিশ্বস্ত কোনো সূত্রে ডক্টর ইউনূসকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দায়িত্ব দিতে বিএনপি’র বৈঠক করার এবং আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে বিএনপি শীর্ষক কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি।

মূলত, আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। এরই মধ্যে বিভিন্ন দলের প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করে দিয়েছে। তবে, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বর্তমান সরকারের পদত্যাগ এবং নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন গ্রহণের দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে বিএনপি এবং সমমনা রাজনৈতিক দলগুলো বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি পালন করে আসছে। এসব ঘটনায় প্রতিদিনই বিভিন্ন ধরনের তথ্য ইন্টারনেটে প্রচারিত হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় “ড.ইউনুসকে তত্ত্বাবধায়ক দিয়ে বিএনপি’র বৈঠক, ৭ জানুয়ারিতে নির্বাচন করবে বিএনপি” শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, আলোচিত ভিডিওতে থাকা দাবিগুলো সঠিক নয়। অধিক ভিউ পাবার আশায়  ভিন্ন ঘটনার সংবাদ প্রতিবেদন এবং গণঅধিকার পরিষদের একাংশের আয়োজিত একটি আলোচনা সভায় ভিন্ন বিষয় নিয়ে নেতাদের দেওয়া বক্তব্যের ভিডিও যুক্ত করে তাতে চটকদার শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে কোনোপ্রকার নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র ছাড়াই আলোচিত দাবির ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে।

সুতরাং, ডক্টর ইউনূসকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দায়িত্ব দিতে বিএনপি’র বৈঠক এবং ৭ জানুয়ারি নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে প্রচারিত দাবিগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img