বৃহস্পতিবার, জুলাই 18, 2024
spot_img

ভারতের অনুষ্ঠানকে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে ট্রান্সজেন্ডার গায়িকার গান পরিবেশনের ভিডিও দাবিতে প্রচার

সম্প্রতি, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে আসিফ মাহতাব নামে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় দর্শন বিভাগের খণ্ডকালীন প্রভাষককে ট্রান্সজেন্ডার এবং সমকামিতা বিরোধী বক্তব্য দিতে দেখা যায়। সেসময় তাকে সপ্তম শ্রেণির ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান বইয়ের একটি অধ্যায়ে ট্রান্সজেন্ডার বিষয়ক আলোচনা থাকার অভিযোগ তুলে বইটির দুইটি পৃষ্ঠা ছিঁড়ে ফেলতেও দেখা যায়। এরপরই জানা যায়, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় ওই শিক্ষকের সাথে চুক্তি বাতিল করেছে। পরবর্তীতে ইন্টারনেটে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, যাতে একজন নারীকে গান গাইতে দেখা যাচ্ছে। এই ভিডিও পোস্ট করে ক্যাপশনের মাধ্যমে দাবি করা হচ্ছে, এটি ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দৃশ্য।  

 ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে

“at BracU new campus opening concert” শিরোনাম ব্যবহার করে প্রচারিত ভিডিওটি ফেসবুকে রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে যা দেখে অনেককেই ভিডিওটি ব্র্যাকের অনুষ্ঠানের বলেই মনে করেছেন।

এই ভিডিও সম্বলিত ফেসবুকে প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)। 

একই ভিডিও সম্বলিত টিকটকে প্রচারিত একটি পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

একই ক্যাপশনে ইউটিউবে প্রচারিত উক্ত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দৃশ্য দাবিতে যে ভিডিওটি প্রচার করা হচ্ছে তা ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় এমনকি বাংলাদেশেরই নয় বরং ভারতে একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের অনুষ্ঠানে সেদেশের একজন ট্রান্সজেন্ডার গায়িকার গান পরিবেশনের ভিডিওকে উক্ত দাবিতে প্রচার করা হয়েছে।  

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে ইন্সটাগ্রামে সুশান্ত দিভগিকার (Sushant Divgikar) নামে এক নারীর অ্যাকাউন্টে গত বছরের (২০২৩) ৩০ ডিসেম্বর প্রকাশিত মূল ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

ভিডিওর ক্যাপশন থেকে জানা যাচ্ছে, ফিউচার জেনারেলি ও জেনারেলি গ্রুপের আয়োজনে একটি অনুষ্ঠানে তিনি এই গান পরিবেশন করেন। 

Screenshot: Instagram

তিনি একই ভিডিও তার ইউটিউব চ্যানেলেও একইদিনেই প্রকাশ করেছেন। 

সুশান্ত দিভগিকার ভারতের একজন ট্রান্সজেন্ডার শিল্পী। তিনি রাণী কোহিনূর  (Rani Ko-HE-nur) নামেও পরিচিত। 

অর্থাৎ, ভারতের একটি অনুষ্ঠানকে বাংলাদেশের দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে।

এছাড়া, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাস উদ্বোধনে বাংলাদেশি কিংবা ভারতীয় কোনো গায়িকার গান পরিবেশনের তথ্য মেলেনি। 

মূলত, সম্প্রতি ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দৃশ্য দাবিতে একজন ট্রান্সজেন্ডার শিল্পীর গান পরিবেশনের ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে। তবে রিউমর স্ক্যানার টিম অনুসন্ধানে দেখেছে, উক্ত অনুষ্ঠানের দৃশ্যটি বাংলাদেশের নয়। প্রকৃতপক্ষে, গান পরিবেশনের এই ভিডিওটি সুশান্ত দিভগিকার নামে ভারতীয় একজন ট্রান্সজেন্ডার শিল্পীর, যা তিনি গত বছর ভারতের একটি প্রতিষ্ঠানের অনুষ্ঠানে পরিবেশন করেন। তাছাড়া, সাম্প্রতিক সময়ে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসে কোনো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হয়নি।

সুতরাং, ভারতে একজন ট্রান্সজেন্ডার শিল্পী কর্তৃক গান পরিবেশনের ভিডিওকে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানের দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img