পুরান ঢাকায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি প্রায় দুই মাস পুরোনো

সম্প্রতি “সীতাকুন্ড ও পাবনার পর এবার পুরান ঢাকার শহিদ নগর ৪ নম্বর গলিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড!” শীর্ষক শিরোনামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও টিকটকে একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। 

পুরান

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানেএখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানেএখানে

@mdhafizkhan575

পুরান ঢাকা শহরের আগুন। 😭😭😭😭😭😭😭😭😭😭😭😭😭😭😭

♬ original sound – Md Hafizkhan

টিকটকে প্রচারিত একটি পোস্ট দেখুন এখানে। পোস্টটির আর্কাইভ দেখুন এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, সীতাকুণ্ড ও পাবনার পরে পুরান ঢাকায় শহীদ নগর ৪ নং গলিতে আগুন লাগার ঘটনাটি সাম্প্রতিক সময়ের নয় বরং প্রচারিত ভিডিওটি দুই মাস পূর্বের একটি ঘটনার।

কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, প্রথম সারির জাতীয় দৈনিক ‘কালের কণ্ঠ’ এর ফেসবুক পেজে চলতি বছরের ১৫ এপ্রিল , ‘রাজধানীর লালবাগে একটি প্লাস্টিক কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে৷ ফায়ার সার্ভিসের ৭ টি ইউনিট দেড় ঘন্টা প্রচেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে৷’ শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

পোস্টটির সঙ্গে সংযুক্ত লালবাগে প্লাস্টিক কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে (ভিডিওসহ) শীর্ষক শিরোনামের সংবাদটি থেকে জানা যায়, গত ১৫ এপ্রিল শুক্রবার দুপুরে পুরান ঢাকার লালবাগ থানার শহীদনগর বউবাজারের ৪ নম্বর গলিতে একটি টিনশেড প্লাস্টিক কারখানায়  অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। 

পরবর্তীতে, পুরান ঢাকার লালবাগের অগ্নিকান্ডের ঘটনায় মূলধারার গণমাধ্যমে প্রকাশিত একাধিক প্রতিবেদন এবং ভিডিও প্রতিবেদন পাওয়া যায়।

মূলত, গত ১৫ এপ্রিলে পুরান ঢাকার শহীদ নগর বউ বাজারের ৪ নং গলিতে একটি প্লাস্টিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ধারণকৃত একটি ভিডিওকে সাম্প্রতিক সময়ে “সীতাকুন্ড ও পাবনার পর এবার পুরান ঢাকার শহিদ নগর ৪ নম্বর গলিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড!” শীর্ষক দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার, ৪ জুন চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে কন্টেইনার ডিপোতে ও ৫জুন রবিবার রাতে পাবনার বেড়া উপজেলায় একটি পাঠকাঠির কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। পাবনার ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. ইলিয়াস হোসেন চৌধুরীর বরাতে ৪৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

সুতরাং, প্রায় দুই মাস পূর্বে পুরান ঢাকায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ধারণকৃত একটি ভিডিওকে সীতাকুণ্ড ও পাবনার পর পুরান ঢাকায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ভিডিও দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও টিকটকে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ বিভ্রান্তিকর৷

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img