সোমবার, সেপ্টেম্বর 26, 2022
spot_img

গায়ে ঘা যুক্ত কুকুরকে Neomac ট্যাবলেট খাওয়ানো কি নিরাপদ?

সম্প্রতি “রাস্তাঘাটে গায়ে ঘা হওয়া কুকুরকে “Neomec” ট্যাবলেট খাইয়ে দিলে সুস্থ হয়ে যাবে” শীর্ষক একটি পোস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, রাস্তাঘাটে গায়ে ঘা হওয়া কুকুরকে Neomec ওষুধটি কিনে বনরুটি অথবা পানির সাথে মিশিয়ে খাওয়ালে কুকুরটি সুস্থ হয়ে যাওয়ার দাবিটি পুরোপুরি সঠিক নয় বরং নির্দিষ্ট ব্যবহারবিধির বাইরে এ ওষুধটি কুকুরকে খাওয়ালে মারাত্মক পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে।

কী-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী ফার্মাসিউটিক্যাল ফর্মুলেশন ডেভেলপমেন্ট, ম্যানুফ্যাকচারিং এবং মার্কেটিং কোম্পানি Intas Pharmaceuticals এর ওয়েবসাইট Products – Intas Pharmaceuticals Ltd. শীর্ষক শিরোনামে এই কোম্পানির প্রস্তুতকৃত পশু চিকিৎসার ওষুধের চার্ট খুঁজে পাওয়া খুঁজে পাওয়া যায়।

এই চার্টে Neomec ট্যাবলেটের উল্লেখ পাওয়া যায়। যার প্রতিটি ট্যাবলেটের মূল উপাদান হচ্ছে ১০ মিলিগ্রাম করে  Ivermectin (আইভারমেকটিন)।

পরবর্তীতে, অসহায় পশুদের জন্য আমারিকান মানবিক সংগঠন The American Society for the Prevention of Cruelty to Animals (ASPCA) এর ওয়েবসাইটে ২০২১ সালের ৯ সেপ্টেম্বর What Is Ivermectin? শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়,পশুদের মধ্যে পরজীবী নিয়ন্ত্রণের জন্য আইভারমেকটিন ব্যবহৃত হয়। এটি প্রধানত গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল এবং ফুসফুসের পরজীবী এবং গবাদি পশু, ভেড়া, ঘোড়া, কুকুর, বিড়াল এবং শুয়োরের মধ্যে পাওয়া নির্দিষ্ট বাহ্যিক পরজীবীগুলির চিকিত্সার জন্য ব্যবহৃত হইয়ে থাকে। এটি কুকুর এবং বিড়ালের হার্টওয়ার্ম প্রতিরোধ হিসাবেও ব্যবহার করা যেতে পারে। এক্ষেত্রে পশুচিকিত্সকের নির্দেশাবলী এবং সতর্কতা গুলি খুব সাবধানে অনুসরণ করা খুব জরুরি।

নির্দিষ্ট ব্যবহারবিধির বাইরে আইভারমেকটিন কুকুরকে খাওয়ালে অনেক ধরণের  পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে

আইভারমেকটিন ৬ সপ্তাহের কম বয়সী কুকুরের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা উচিত নয়। কুকুরের কিছু প্রজাতি (যেমন, কলি, ভেড়া কুকুর, এবং কলি- বা ভেড়ার-ক্রস জাত) অন্যদের তুলনায় আইভারমেক্টিনের প্রতি বেশি সংবেদনশীল হয়ে থাকে। উচ্চ মাত্রায়  এই ওষুধটি দেওয়া হলে কুকুরের গুরুতর স্নায়বিক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। কিছু কুকুরের মধ্যে একটি শকের মত প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। এছাড়াও, আরও কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া যেমন পেট খারাপ, বমি, ডায়রিয়া, হাঁটার সময় অস্থিরতা বা চমকানো আচরণ, ধীর হৃদস্পন্দন, হাইপোথার্মিয়া, মাতলামি, বিষণ্ণতা, ক্লান্তি, অ্যানোরেক্সিয়া, ডিমেনশিয়া, পানিশূন্যতা, অন্ধত্ব, ধীর নিঃশ্বাস ইত্যাদি লক্ষণ দেখা দিতে পারে।

অতএব, পশু চিকিৎসকের পরামর্শ ব্যাতীত ওষুধটির নির্দিষ্ট ব্যবহারবিধি বিবেচনা না করে Neomec ট্যাবলেটটি গায়ে ঘা-যুক্ত কুকুরকে বনরুটি অথবা পানির সাথে মিশিয়ে খাওয়ালে কুকুরটির সুস্থ হয়ে যাওয়ার পরিবর্তে  মারাত্মক পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে, এমনকি মারাও যেতে পারে।

মূলত, পোস্টগুলোতে দাবি করা হচ্ছে রাস্তাঘাটে গায়ে ঘা হওয়া কুকুরকে Neomec ওষুধটি কিনে বনরুটি অথবা পানির সাথে মিশিয়ে খাওয়ালে কুকুরটি সুস্থ হয়ে যাবে, কিন্তু সেখানে ওষুধটির নির্দিষ্ট ব্যবহারবিধি এবং পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়ার কোনো উল্লেখ নেই। ওষুধটির নির্দিষ্ট ব্যবহারবিধি এবং পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া বিবেচনা না করেই তথ্যটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, আইভারমেকটিন পরজীবী সংক্রমণের বিরুদ্ধে কার্যকর।  এই যুগান্তকারী ওষুধটি আবিষ্কার করেছিলেন আইরিশ বংশোদ্ভূত উইলিয়াম ক্যাম্পবেল এবং জাপানের সাতোশি ওমুরা। এই আবিষ্কারের জন্য ২০১৫ সালে মেডিসিনে নোবেল পুরস্কার পেয়েছিলেন তাঁরা।   

সুতরাং, রাস্তাঘাটে গায়ে ঘা হওয়া কুকুরকে Neomec ওষুধটি কিনে নির্দিষ্ট ব্যবহারবিধির বাইরে বনরুটি অথবা পানির সাথে মিশিয়ে খাওয়ালেই কুকুর সুস্থ হয়ে যাওয়ার দাবিটি বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img