ভূমিকম্প আক্রান্ত তুর্কি পরিবারের শেষ মুহূর্তের ভিডিও দাবিতে অভিনয়ের দৃশ্য প্রচার

সম্প্রতি, তুরস্কে হওয়া ভয়াবহ ভূমিকম্পকে কেন্দ্র করে “The  last minutes of the turkish family’s life were caught on video.” শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও প্রচারিত হয়েছে। যেখানে ভিডিওটি কে ভূমিকম্প আক্রান্ত এক তুর্কি পরিবারের জীবনের শেষ মুহুর্তের ভিডিও হিসেবে দাবি করা হয়েছে।

উক্ত ভিডিও নিয়ে ফেসবুকে প্রচারিত এমন দাবির কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ভূমিকম্পে আক্রান্ত তুর্কি পরিবারের শেষ মুহুর্তের দৃশ্য দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি তুরস্কের সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের সাথে সম্পর্কিত কোনো ভিডিও নয় বরং এটি সিজিআই পদ্ধতিতে নির্মিত অভিনয়ের একটি পুরোনো ভিডিও।

ভাইরাল ভিডিওটিতে থাকা AVIA.PRO লোগোর সূত্র ধরে অনুসন্ধানে দেখা যায়, @avia_pro নামের একটি টুইটার অ্যাকাউন্টে উক্ত ভিডিওটি ‘The last minutes of the Turkish family’s life were caught on video’ শীর্ষক দাবিতে প্রথম প্রচার করা হয়।

Screenshot: Avia.pro tweet

টুইটটির মন্তব্যের ঘরে করা টুইটে বিভিন্ন মানুষকে ভিডিওটিকে ভুয়া বলতে দেখা যায়। তাদের কয়েকজন ২০২০ সালে Çılgın_family নামের একটি টিকটক আইডিতে পূর্বে আপলোড করা একটি ভিডিওর লিংকও শেয়ার করেছেন।

২০২০ সালের ২৭ জানুয়ারি উক্ত টিকটক আইডিতে একই ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছিলো।

অনুসন্ধানে çılgın_family নামের ঐ টিকটক ব্যবহারকারীর ইউটিউব চ্যানেল çılgın family এ ২০২০ সালের ১৭ নভেম্বর ‘Deprem anı’ শিরোনামেও আপলোড করা একই ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot youtube

তবে উক্ত ইউটিউব চ্যানেলে গত ৬ ফেব্রুয়ারি তুরস্কে ঘটা ভূমিকম্পকে কেন্দ্র করে Türkiye de deprem(earthquake in Turkey) শিরোনামে পুরোনো এই ভিডিওটি পুনরায় প্রচার করা হয়। যার ফলে পরবর্তীতে উক্ত ভিডিওটি সাম্প্রতিক সময়ের তুরস্কের ভূমিকম্পের ভিডিও হিসেবে ছড়িয়ে পড়ে।

অর্থাৎ, এই ভিডিওটি সাম্প্রতিক সময়ের তুরস্কের ভূমিকম্প সম্পর্কিত কোনো ভিডিও নয়।

অপরদিকে এই ভিডিওটি ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করলে ভিডিওটি যে আসল কোনো ভূমিকম্প মুহুর্তের নয় তা নিশ্চিত হওয়া যায়। ভিডিওতে এমন একাধিক অসঙ্গতি রয়েছে যার দ্বারা বোঝা যায় এটি প্রযুক্তির সহায়তায় ও অভিনয়ের মাধ্যমে নির্মিত ভূমিকম্প মুহুর্ত। ভিডিওটি চালু করার দ্বিতীয় সেকেন্ডে তাদের হাসির অভিব্যক্তি পরিলক্ষিত হয়। সত্যি-ই ভূমিকম্প হলে এমন ভয়াবহ পরিস্থিতিতে এমন হাসির অভিব্যক্তি আসা সাধারণভাবে অসম্ভব।

ভিডিওটিতে আরো লক্ষ্য করা যায়, যখন ছাদ থেকে ধ্বংসাবশেষ পড়ছিল, তখনও ঝাড়বাতিটি অক্ষত ছিল এবং কেবল মৃদুভাবে দুলছিল এবং সোফা সেটের আসনগুলিতে কোনও ধ্বংসাবশেষ ছিল না।

এছাড়াও উক্ত টিকটক আইডির ভিডিওগুলো পর্যবেক্ষণ করে ঐ একই অবস্থানে একাধিক ভিডিও তৈরি করতে এবং আপলোড করা বিভিন্ন ভিডিওতে সিজিআই ইফেক্ট ব্যবহার করতে দেখা গেছে। 

পাশাপাশি ঐ ভিডিওতে ছেলেকে কোলে নিয়ে অভিনয় করা ঐ ব্যক্তিকে তার টিকটক আইডির অসংখ্য ভিডিওতে চিহ্নিত করা গেছে।

মূলত, এক টিকটক ব্যবহারকারী তার পরিবারসহ ভূমিকম্পের একটি ভিডিও অভিনয় এবং প্রযুক্তির সহায়তায় তৈরি করে ২০২০ সালে প্রথম প্রকাশ করেছিলো। সাম্প্রতিক সময়ে ঐ টিকটিক ব্যবহারকারী উক্ত ভিডিওটি তুরস্কের ভূমিকম্প এর উল্লেখ করলে পুনরায় প্রচার করলে ভিডিওটি সাম্প্রতিক সময়ে তুরস্কের ভূমিকম্পে এক তুর্কি পরিবারের শেষ মুহুর্তের ভিডিও হিসেবে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে।

সুতরাং, সিজিআই পদ্ধতিতে নির্মিত অভিনয়ের ভিডিওকে তুরস্কের সাম্প্রতিক ভূমিকম্প আক্রান্ত এক পরিবারের শেষ মুহুর্তের ভিডিও দাবিতে প্রচার হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

  1. çılgın_family Tiktok account 
  2. çılgın family Youtube channel 
  3. Twitter user’s comments
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img