রবিবার, জুলাই 21, 2024
spot_img

পরীমনিকে জড়িয়ে জুম বাংলার নামে ভুয়া ফটোকার্ড প্রচার

সম্প্রতি, পরীমনি কনডম বিক্রি করে বছরে ২ কোটি টাকা আয় করেন শীর্ষক দাবিতে জুম বাংলার আদলে তৈরি একটি ফটোকার্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

পরীমনিকে

ফেসবুকে প্রচারিত এমন পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ‘ক’ন’ন্ড বিক্রি করে বছরে ২ কুটি টাকা আয় করেন পরিমনী’ শীর্ষক শিরোনামে জুম বাংলা কোনো ফটোকার্ড বা সংবাদ প্রকাশ করেনি বরং গত ২৫ জুন জুম বাংলার ফেসবুক পেজে প্রচারিত একটি ফটোকার্ডের শিরোনাম ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে এটি তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ফটোকার্ডটি জুম বাংলার লোগো থাকার প্রেক্ষিতে কি-ওয়ার্ড সার্চ করে জুমবাংলার ওয়েবসাইট, ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে সাম্প্রতিক সময়ে উক্ত তথ্য সম্বলিত কোনো ফটোকার্ড বা সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

তবে গণমাধ্যমটির ফেসবুক পেজে গত ২৫ জুন ‘কাকে ‘রাসেলস ভাইপার’ বললেন পরীমণি’ শিরোনামে প্রকাশিত একটি ফেসবুক পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়। এই পোস্টে ব্যবহৃত ফটোকার্ডের সঙ্গে ফেসবুকে প্রচারিত ফটোকার্ডটির গ্রাফিক্যাল ডিজাইন ও ছবির  মিল খুঁজে পাওয়া যায়। পরবর্তীতে এই ফটোকার্ডটির সাথে আলোচিত ফটোকার্ডটির তূলনামূলক বিশ্লেষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, আলোচিত ফটোকার্ডের শিরোনাম ও শিরোনামে ব্যবহৃত ফন্টের সাথে জুম বাংলার ফেসবুক পেজে প্রচারিত ফটোকার্ডের ফন্টের ডিজাইনের মিল নেই। 

Comparison by Rumor Scanner 

যা থেকে প্রতীয়মান হয় যে, এই ফটোকার্ডটির শিরোনাম ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনা করে ‘ক’ন’ন্ড বিক্রি করে বছরে ২ কুটি টাকা আয় করেন পরিমনী’ শীর্ষক বাক্যাংশ যুক্ত করে আলোচিত ফটোকার্ডটি তৈরি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, একই দিনে জুম বাংলার ওয়েবসাইটে ‘কাকে ‘রাসেলস ভাইপার’ বললেন পরীমণি’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গত ২৫ জুন নিজের ব্যক্তিগত অ্যাাকাউন্টে করা এক পোস্টে চিত্রনায়িকা পরীমনি লিখেছেন, ‘বাই বাই রাসেলস ভাইপার।’ কমেন্ট বক্স বন্ধ করে রাখা এই পোস্টে নিজেই নিজেকে অভিনন্দন জানিয়েছেন পরীমণি! তবে ‘রাসেলস ভাইপার’ বলতে তিনি কে বুঝিয়েছেন বা কাকে বুঝিয়েছেন তা নির্দিষ্ট করে কিছুই বলেননি পোস্টে। নেটিজেনদের অনেকে সাকলায়েন কাণ্ডকেই ধারণা করছেন!

আলোচিত গুজব প্রচার করা পেজ সম্পর্কে যা জানা গেল

Joni Sing নামের পেজটি বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ২০২৩ সালের ১৭ নভেম্বর পেজটি চালুর পর এখন পর্যন্ত একাধিকবার নাম পরিবর্তন করা হয়েছে। শুরুতে ‘৭১’ চেতনা – Ekattor Catona’ নাম দেওয়া হলেও চলতি বছরের জানুয়ারিতে নাম বদলে রাখা হয় ‘Binodon – বিনোদন’। পরবর্তীতে গত ২২ মার্চ পেজটির নাম বদলিয়ে করা হয় ‘Tanha’। সর্বশেষ গত ১৫ জুন বর্তমান নাম রাখা হয়। পেজটি মালয়েশিয়া থেকে একজন ব্যক্তি পরিচালনা করছেন। সাম্প্রতিক সময়ে উক্ত পেজ থেকে ধারাবাহিক গুজব প্রচারের প্রেক্ষিতে পেজটি নিয়ে একটি ফ্যাক্টস্টোরি প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

মূলত, গত ২৫ জুন জুম বাংলা ‘কাকে ‘রাসেলস ভাইপার’ বললেন পরীমণি’ শীর্ষক শিরোনামের একটি ফটোকার্ড প্রকাশ করে। পরবর্তীতে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় এই ফটোকার্ডটির শিরোনাম সম্পাদনা করে ‘ক’ন’ন্ড বিক্রি করে বছরে ২ কুটি টাকা আয় করেন পরিমনী’ শীর্ষক শিরোনামে ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে।

সুতরাং, জুম বাংলার ফটোকার্ড ব্যবহার করে ‘ক’ন’ন্ড বিক্রি করে বছরে ২ কুটি টাকা আয় করেন পরিমনী’ শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত তথ্যটি মিথ্যা এবং আলোচিত ফটোকার্ডটি এডিটেড বা বিকৃত।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img