১৯ আগস্ট রাতে বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র গ্রেফতার হননি

সম্প্রতি ‘গভীর রাতে নয়াপল্টনে মির্জা আব্বাস-গয়েশ্বর সহ বিএনপির ১৫ নেতাকর্মীকে পুলিশ তুলে নিয়ে গেছে’ শীর্ষক দাবিতে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। 

ফেসবুকে প্রচারিত এমনকিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, গত ১৯ আগস্ট রাতে গ্রেফতার হওয়া বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস এবং গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ছিলেন না বরং তারা দুজনই নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার পরবর্তী দলের কার্যালয়ের সামনে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন। 

অনুসন্ধানের শুরুতে দেশের মূলধারার অনলাইন গণমাধ্যম জাগো নিউজের ওয়েবসাইটে গত ২০ আগস্ট ‘মধ্যরাতে নয়াপল্টনে আব্বাস-গয়েশ্বর, নেতাকর্মী গ্রেফতারের অভিযোগ’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Jagonews24.com

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে বের হওয়ার পথে শনিবার (১৯ আগস্ট) সন্ধ্যার পর থেকে ১৫ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতারের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির দুই সদস্য মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে এই খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১১টার দিকে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আসেন।

পরবর্তীতে মূলধারার গণমাধ্যম ইত্তেফাকের অনলাইন সংস্করণে গত ২০ আগস্ট ‘গভীর রাতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আব্বাস-গয়েশ্বর’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Ittefaq

উক্ত প্রতিবেদন থেকেও বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের বিষয়ে একই তথ্য জানা যায়।

অর্থাৎ, বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার পরবর্তী সময়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির দুই সদস্য মির্জা আব্বাস এবং গয়েশ্বর চন্দ্র রায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন এবং সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন। এতে বিষয়টি স্পষ্ট যে,  ১৯ আগস্ট মধ্যরাতে গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে বিএনপির এই দুই নেতা ছিলেন না।

মূলত, গত ১৯ আগস্ট সন্ধ্যা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে বের হওয়ার পথে ১৫ জন নেতাকর্মীকে পুলিশ কর্তৃক গ্রেফতারের অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় মধ্যরাতেই কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির দুই সদস্য মির্জা আব্বাস এবং গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। পরবর্তীতে এই বিষয়টিকে বিকৃত করে বিএনপির এই দুই নেতা সহ ১৫ নেতাকর্মীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার (১৯ আগস্ট) বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও উন্নত চিকিৎসার দাবিতে পদযাত্রা কর্মসূচি পালন করে বিএনপি। ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি এ পদযাত্রা কর্মসূচি নয়াপল্টনস্থ বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে মগবাজার মোড়ে গিয়ে শেষ হয়। 

উল্লেখ্য, পূর্বেও বিএনপিকে জড়িয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একাধিক ভুল তথ্য প্রচার করা হলে সেসময় বিষয়গুলো নিয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। এমন কয়েকটি প্রতিবেদন দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

সুতরাং, গত ১৯ আগস্ট মধ্যরাতে  বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img