বুধবার, ফেব্রুয়ারি 21, 2024
spot_img

চটকদার থাম্বনেইলে মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাসের গাড়িতে হামলার ভুয়া তথ্য প্রচার

সম্প্রতি, ‘পিটার হাসের গাড়িতে হামলা ভাংচুর, দেশে ফিরে যেতে বললো কাদের’ শীর্ষক শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে।

হামলা

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন ‍যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাসের গাড়িতে কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরও তাকে দেশে ফিরে যেতে বলেননি। প্রকৃতপক্ষে, ২০২২ সালে বামজোটের অর্ধবেলা হরতালের সময় গাড়িতে হামলার পুরনো একটি ভিডিওর অংশের সাথে হরতালের নামে বিএনপির গাড়িতে আগুন দেওয়ার বিষয়ে ওবায়দুল কাদেরের অপর একটি বক্তব্যের ভিডিও যুক্ত করে  তাতে চটকদার শিরোনাম এবং থাম্বনেইল  ব্যবহার করে আলোচিত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। এতে কোথাও বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাসের ওপর হামলার দৃশ্য দেখানো হয়নি। এছাড়া, সেখানে রাষ্ট্রদূত পিটার হাসকে ওবায়দুল কাদের দেশে ফিরে যেতে বলার বিষয়েও কোনো বক্তব্য দেখানো হয়নি।

ভিডিও যাচাই ১

অনুসন্ধানে  রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে মূলধারার অনলাইন গণমাধ্যম ঢাকা পোস্ট-এর ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে ২০২২ সালের ২৫ আগস্ট ‘মাইক্রোবাস ভাঙচুর করলেন হরতাল সমর্থকরা’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: Facebook 

ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, ২০২২ সালের আগস্ট মাসে জ্বালানি তেল, পরিবহণ ভাড়া, বিদ্যুৎ-গ্যাসসহ নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির কারণে সারাদেশে অর্ধবেলা হরতালের ডাক দেয় বাম জোট। সেসময় রাজধানীর পল্টন মোড়ে হরতাল সমর্থকদের সাথে একজন প্রাইভেটকার আরোহীর বাকবিতন্ডা হলে তারা গাড়িতে হামলা চালায়। উক্ত হামলার ভিডিওটির ২৮ সেকেন্ড থেকে ৩৩ সেকেন্ড পর্যন্ত অংশের সাথে পিটার হাসের গাড়িতে হামলার ভিডিও দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটির একটি অংশের হুবহু মিল পাওয়া যায়।

Video Comparison by Rumor Scanner 

ভিডিও যাচাই ২

আলোচিত ভিডিওর শুরুর দিকে পিটার হাসকে দেশে ফিরে যেতে বলেছেন দাবিতে ওবায়দুল কাদেরের একটি বক্তব্য প্রচার করতে দেখা যায়। যেখানে তাকে বলতে শোনা যায়, ‘এরাই পলিটিক্যাল ভায়োলেন্সে আছে। কাজেই ওদের খবর আছে।’

বিষয়টি  যাচাইয়ে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল  সময় টিভির ইউটিউব চ্যানেলে গত ২৫ মে ‘যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত প্রশ্নে যা বললেন ওবায়দুল কাদের | Obaidul Quader | USA Visa’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: YouTube

ভিডিওটিতে ‘আগামী নির্বাচনে বাধা সৃৃষ্টি করলে যুক্তরাষ্ট্র ভিসা প্রদানের ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করবে এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ হিসেবে কি ভাবছেন’ সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদেরকে বলতে শোনা যায়, ‘আগামী জাতীয় নির্বাচন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন করব। এই নির্বাচনে যারা বাঁধা দিবে তাদেরকে আমরা অবশ্যই প্রতিহত করব। যারা আন্দোলনের নামে নির্বাচনকে সামনে রেখে বাসে আগুন দেয়, ভাঙচুর করে, এরাই পলিটিক্যাল ভায়োলেন্সে আছে। কাজেই ওদের খবর আছে।’ 

উক্ত ভিডিও’র ২ মিনিট ২২ সেকেন্ড থেকে ২ মিনিট ২৬ সেকেন্ড পর্যন্ত আলোচিত ভিডিওটির ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সাথে হুবহু মিল পাওয়া যায়। 

Video Comparison by Rumor Scanner 

এছাড়াও আলোচিত ভিডিওটিতে মূলধারার গণমাধ্যম কালবেলা’র তিনটি মাল্টিমিডিয়া প্রতিবেদন দেখানো হয়। 

প্রতিবেদন তিনটিতে ব্যবহৃত কালবেলা’র লোগোর সূত্র ধরে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে কালবেলা’র অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে ঢাকায় নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত মার্কিন রাষ্ট্রদূত, মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে ফিরে যেতে বললেন নাজমুল আলম এবং বাংলাদেশে ম্যাগনিটস্কি স্টাইল স্যাংশন দেওয়ার দাবি অস্ট্রেলিয়ান এমপির শীর্ষক শিরোনামে সম্প্রতি প্রকাশিত তিনটি মাল্টিমিডিয়া প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Comparison by Rumor Scanner

এই প্রতিবেদনগুলোতে কোথাও মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাসের গাড়িতে হামলার বিষয়ে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম তার ভেরিফাইড ফেসবুক অ্যাকাউন্টে দেওয়া এক পোস্টে মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাসকে তার দেশে চলে যেতে বলেছেন বলে জানা যায়। 

পাশাপাশি, মূলধারার গণমাধ্যম কিংবা সংশ্লিষ্ট অন্যকোনো সূত্রে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাসের গাড়িতে হামলা কিংবা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের কর্তৃক তাকে দেশে ফিরে যেতে বলার বিষয়ে কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি।

অর্থাৎ, উপরোক্ত বিষয়গুলো পর্যালোচনা করলে এটা স্পষ্ট যে, বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাসের গাড়িতে কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরও তাকে নিজ দেশে ফিরে যেতে বলেননি। 

মূলত, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বাংলাদেশের জন্য নতুন ভিসা নীতি প্রণয়ন করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। গত ২২ সেপ্টেম্বর দেশটির পররাষ্ট্র দপ্তর এক বিবৃতিতে জানায়, বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্থ করার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ভিসা নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করা হবে। এরপর থেকে বিষয়টি নিয়ে দেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনা চলছে। এরই প্রেক্ষিতে নিজের ও দূতাবাসের কর্মচারীদের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস। এরপর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘পিটার হাসের গাড়িতে হামলা ভাংচুর দেশে ফিরে যেতে বললো কাদের’ শীর্ষক শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে  একটি ভিডিও প্রচার করা হয়। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, অধিক ভিউ পাবার আশায় চটকদার থাম্বনেইল ও শিরোনাম ব্যবহার করে পুরোনো কিছু ভিডিও এবং সম্প্রতি প্রচারিত কয়েকটি মাল্টিমিডিয়া প্রতিবেদন যুক্ত করে আলোচিত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, পূর্বেও চটকদার শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে বিভিন্ন ব্যক্তির উপর হামলার দাবিতে তথ্য প্রচারের প্রেক্ষিতে একাধিক ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। এমন কয়েকটি প্রতিবেদন দেখুন এখানে এবং এখানে

সুতরাং, বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাসের গাড়িতে হামলা এবং তাকে দেশে ফিরে যেতে বলার দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img