বৃহস্পতিবার, মে 30, 2024
spot_img

চটকদার থাম্বনেইল ব্যবহার করে আমেরিকায় প্রধানমন্ত্রীর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্লক সংক্রান্ত ভুয়া সংবাদ প্রচার 

সম্প্রতি, “আমেরিকায় শেখ হাসিনার ব্যাংক একাউন্ট ব্ল’ক। সজিব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে মামলা” শীর্ষক শিরোনাম ও থাম্বনেইলে একটি ভিডিও ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম ইউটিউবে প্রচার করা হয়েছে। 

ব্যাংক

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন ভিডিও (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়,আমেরিকায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যাংক একাউন্ট ব্লক, সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে মামলা বিষয়ক কোনো ঘটনা ঘটেনি বরং ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় ভিন্ন ভিন্ন কয়েকটি ঘটনার ভিডিও ক্লিপ যুক্ত করে আলোচিত দাবিতে উক্ত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে। 

গত ১৯ সেপ্টেম্বর Al Minar নামের ইউটিউব চ্যানেলে “আমেরিকায় শেখ হাসিনার ব্যাংক একাউন্ট ব্ল’ক। সজিব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে মামলা” শীর্ষক শিরোনামে এবং থাম্বনেইলে একটি ভিডিও (আর্কাইভ)  প্রকাশ করা হয়।

অনুসন্ধানের শুরুতেই আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। ১৩ মিনিট সাত সেকেন্ডের এই ভিডিওটিতে দেখা যায়, ভিডিওটির থাম্বনেইলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, প্রধানমন্ত্রীর  আইসিটি পরামর্শক সজীব ওয়াজেদ জয় এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এর ছবি ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়া ভিডিওটিতে কয়েকটি ভিন্ন ভিন্ন ঘটনার ভিডিও ক্লিপ যুক্ত করা হয়েছে।

ভিডিও যাচাই 

আলোচিত ভিডিওটির শুরুতে কয়েকটি ভিডিওর খণ্ডাংশ দেখানো হয়। পরবর্তীতে ভিডিওটিতে চ্যানেলটির উপস্থাপক আলোচিত ভিডিওটির উদ্দেশ্যে দুটি ভিডিও দেখান যেখানে রয়েছে অনলাইন এক্টিভিস্ট পিনাকি ভট্টাচার্য এবং ভয়েজ বাংলার প্রতিষ্ঠাতা সাংবাদিক মোস্তফা ফিরোজ। 

প্রথম ভিডিও যাচাই 

অনুসন্ধানের শুরুতে কিওয়ার্ড সার্চ পদ্ধতিতে অনুসন্ধানে গত ১৮ সেপ্টেম্বর Pinaki Bhattacharya নামক ইউটিউব চ্যানেলে “বাঘের থাবা থেকে বাঁচতে হাসিনার দুই ধারি কৌশন।। Pinaki Bhattacharya।। The Untold ” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। এই ভিডিওটির সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে থাকা প্রথম ভিডিওটির হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, ভিডিওর থাম্বনেইল এবং শিরোনামে থাকা তথ্যের সাথে এই ভিডিওটির কোনো প্রকার মিল খুঁজে পাওয়া যায় নি। 

অনুরূপভাবে আলোচিত ভিডিওটির দ্বিতীয় অংশে সাংবাদিক মোস্তফা ফিরোজকেও কথা বলতে দেখা যায়। 

পরবর্তীতে মোস্তফা ফিরোজের মূল ভিডিওটির অনুসন্ধানে কিওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে গত ১৭ সেপ্টেম্বর Voice Bangla নামক একটি ইউটিউব চ্যানেলে “সরকার যেনো খাদে পড়েছে! তাই পেয়ে বসেছেন রানা দাশ গুপ্ত! Mostofa Feroz। Voice Bangla” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত মূল ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

৬ মিনিট ১২ সেকেন্ডের এই ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায় মোস্তফা ফিরোজ দৈনিক সমকালে গত ১৬ সেপ্টেম্বর “কী দেবেন আর কী নেবেন, নির্বাচনের আগেই পরিষ্কার করতে হবে” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পড়ে শুনাচ্ছেন। প্রতিবেদনে থাকা তথ্যের সাথে ভিডিওটির থাম্বনেইল এবং শিরোনামে থাকা বিষয়বস্তুর কোনো প্রাসঙ্গিকতা নেই।

এই ভিডিওটি কোনো প্রকার প্রাসঙ্গিকতা ছাড়াই আলোচিত ভিডিওটির সাথে যুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া উক্ত দাবি সম্পর্কে দেশীয় কিংবা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে কোনো তথ্য খুঁজে  পাওয়া যায়নি। 

অর্থাৎ প্রচারিত ভিডিওটিতে ভিন্ন ভিন্ন ঘটনার যে ভিডিও ক্লিপগুলো যুক্ত করা হয়েছে সেগুলোতে আমেরিকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্লক এবং সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে মামলা বিষয়ক কোনো তথ্য উল্লেখ নেই। 

মূলত, Al Minar নামক একটি ইউটিউব চ্যানেলে আমেরিকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্লক শীর্ষক থাম্বনেইল এবং শিরোনামে একটি ভিডিও ইউটিউবে প্রচার করা হয়। তবে অনুসন্ধানে জানা যায় অধিকতর ভিউ পাবার আশায় চটকদার থাম্বনেইল ও শিরোনাম ব্যবহার করে কোনোপ্রকার নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র ছাড়াই আলোচিত দাবিটি প্রচার করা হয়। পাশাপাশি দেশের নির্ভরযোগ্য কোনো গণমাধ্যম সূত্রেও এমন কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি।

সুতরাং, আমেরিকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্লক সংক্রান্ত তথ্যটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img