মদ্য পানের ভাইরাল ভিডিওটি ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা যুব মহিলা লীগ নেত্রী তনুর নয়

গত ০১ এপ্রিল ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলা শাখা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ইসরাত জাহান তনুকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। যুবলীগের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, সংগঠন ও শৃংখলা বিরোধী কর্মকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে বহিষ্কার করা হয়। 

বহিষ্কারাদেশ আসার পর ফেসবুকের একাধিক পোস্টে তনুর মদ্য পানের দৃশ্য দাবিতে একটি ভিডিও এবং ভিডিওর স্থিরচিত্র প্রচার করা হয়েছে। 

মহিলা লীগ

এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)। 

একই ভিডিও তনুর দাবিতে গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন কালবেলা, বাংলা ইনসাইডার, আপন দেশ, মুক্ত বাংলা, ঠিকানা নিউজ।

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা যুব মহিলা লীগ নেত্রী তনুর মদ্য পানের ভিডিও নয় এটি বরং অন্তত ২০২১ সাল থেকে ভারতের একাধিক অ্যাকাউন্ট ও পেজে ভিডিওতে প্রচার হয়ে আসছে যার সাথে তনুর কোনো সম্পর্ক নেই। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে মিরা মিথুন নামে ভারতের তামিল এক অভিনেত্রীর ফ্যান পেজে ২০২২ সালের ১২ জুলাই প্রকাশিত একই ভিডিও পাওয়া যায়। এটিতে একটি গানের অডিও যুক্ত থাকায় ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে কোনো তথ্য মেলেনি। 

আরো অনুসন্ধান করে ২০২১ সালের ১৮ অক্টোবর সুধাময় সরকার নামে একটি ভারতীয় ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একই ভিডিও প্রকাশ হতে দেখা যায়। এই ভিডিওতে বাংলা ভাষায় কিছু কথোপকথন শুনতে পাওয়া যায়। 

Screenshot collage: Rumor Scanner

এই দুই ভিডিও বিশ্লেষণ করে উক্ত নারীর পরিচয় নিশ্চিত না হওয়া গেলেও ভিডিওটি যে ভারতেই প্রথম প্রচার হয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে।

এ নিয়ে সমালোচনার মধ্যে ইসরাত জাহান তনু নিজেও এই ভিডিও তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শেয়ার করে এই ভিডিও তার নয় বলে জানিয়েছেন। 

Screenshot: Facebook 

মূলত, সম্প্রতি ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা যুব মহিলা লীগ নেত্রী ইসরাত জাহান তনুর মদ্য পানের দৃশ্য দাবিতে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা যায়, এই ভিডিওতে থাকা নারী তনু নয়। প্রকৃতপক্ষে, ভারতের এক নারীর মদ্য পানের অন্তত আড়াই বছরের পুরোনো ভিডিওকে উক্ত দাবিতে প্রচার করা হয়েছে। 

সুতরাং, ভারতের এক নারীর মদ্য পানের ভিডিওকে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা যুব মহিলা লীগ নেত্রী তনুর ভিডিও দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।  

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img