ইউক্রেনের জন্য লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিওর ১ কোটি ডলার অনুদান দেয়ার তথ্যটি মিথ্যা

সম্প্রতি, “ইউক্রেনের জন্য ১ কোটি ডলার অনুদান দিলেন লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও” শীর্ষক দাবিতে একটি তথ্য একাধিক মূল ধারার গণমাধ্যমে প্রকাশের মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।


ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ইউক্রেনকে মার্কিন চলচ্চিত্র অভিনেতা এবং চলচ্চিত্র প্রযোজক লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিওর ১ কোটি ডলার অনুদান দেয়ার বিষয়টি সত্য নয় বরং উক্ত তথ্যটি নির্ভরযোগ্য তথ্য প্রমাণ ছাড়া গত ৫ মার্চ হতে ইন্টারনেটে প্রচার হয়ে আসছে।

গুজবের সূত্রপাত

অনুসন্ধানে দেখা যায়, ইউক্রেনের কতিপয় ফেসবুক ব্যবহারকারীরা গত ৫ মার্চ থেকে লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও ইউক্রেনকে ১ কোটি ডলার অনুদান দিয়েছেন শীর্ষক বিষয়টি ইন্টারনেটে প্রচার করে আসছে । Evgenly Shkilnoy নামের একটি ফেসবুক আইডিতে গত ৫ মার্চ বিকেল ৫.১৬ মিনিটে প্রথম এই তথ্যটি প্রকাশ করা হয়। সেই ফেসবুক পোস্টে পোস্টদাতা কোনো সূত্র উল্লেখ না করেই ডিক্যাপ্রিওর একটি ছবি যুক্ত করে ইউক্রেনের ভাষায় ‘Леонардо Ді Капріо: 10 млн. дол . Україні’ ক্যাপশন লিখে পোস্ট করেন। যার অর্থ গুগল ট্রান্সলেট করলে হয়, ‘লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও: $10 মিলিয়ন ইউক্রেন।’

উক্ত পোস্টটি প্রকাশের পরপরই তা শেয়ার ও কপি হতে হতে সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে।, দেখুন এখানে এবং এখানে। 

পরবর্তীতে, একসময় সেসব ফেসবুক পোস্টের ওপর ভিত্তি করে ‘GSA News’ নামের দক্ষিন আমেরিকার দ্বীপ রাষ্ট্র গায়না ভিত্তিক অনলাইন পোর্টাল গত ৫ মার্চে “Hollywood Actor, Leonardo DiCaprio, Donates US$10,000,000 to Ukraine” শীর্ষক শিরোনামে তথ্যটি প্রতিবেদন আকারে সর্বপ্রথম প্রকাশ করা হয়।

Screenshot from GSA News website

উক্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, 

ইউক্রেনের অভ্যন্তরীণ একটি সূত্র আজ ৫ মে ২০২২ প্রকাশ করেছে যে হলিউড সুপারস্টার, ডি ক্যাপ্রিও রাশিয়া এবং ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধের কারণে ইউক্রেন সরকারকে দশ মিলিয়ন মার্কিন ডলার হস্তান্তর করেছেন।  সেখানে ইউক্রেনের সাথে ডিক্যাপ্রিওর মাতামহ সূত্রে শিকড় আছে বলেও উল্লেখ করা হয়।

এরপরই এই বিষয়টি বিভিন্ন দেশের মূলধারার গণমাধ্যমেও প্রচারিত হয়। ইংল্যান্ড ভিত্তিক গণমাধ্যম The Daily Mail , ভারতীয় গণমাধ্যম The Hindustan Times, Zeenews সহ আরো অনেক গণমাধ্যম বিষয়টির সত্যতা যাচাই না করেই প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

Screenshot from Hindustan TImes website

পরবর্তীতে গত ১১ মার্চ থেকে বিষয়টি বাংলাদেশের গণমাধ্যমেও ফলাও করে প্রচার করা হয়। সময় নিউজ, আরটিভিযুগান্তর, যমুনা টেলিভিশনসহ, বনিক বার্তা, আমাদের সময়.কম সহ দেশীয় আরো অনেক গণমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে।

Screenshot from Jamuna TV YouTube
Screenshot from SOMOY TV website

যুগান্তরের অনলাইন সংস্করণে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়,

রাশিয়া-ইউক্রেনের চলমান যুদ্ধে হলিউড অভিনেতা লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও ইউক্রেনকে সমর্থন দিয়ে ১ কোটি ডলার অনুদান দিয়েছেন। ইউক্রেনে লিওনার্দোর আর্থিক সহায়তার বিষয়টির ঘোষণা আসে ইন্টারন্যাশনাল ভিসেগ্রাড ফান্ড থেকে। ভিসেগ্রাড গ্রুপের লক্ষ্য পূর্ব ইউরোপে উন্নয়নে আন্তর্জাতিক আর্থিক সহায়তা নিয়ে কাজ করা।

আরটিভির অনলাইন সংস্করণে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়,

‘লিওনার্দোর সেই ছোট বেলার কষ্টে আর নানির ভালোবাসায় বড় হওয়া দিনগুলোর দেশটাই হচ্ছে ইউক্রেন। যেখানে চলমান রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে বেশ কিছু শহরে হামলা চালিয়ে দখলে নিয়েছে দেশটি। সেখানকার মানুষ আছে বর্তমানে আর্থিক ও মানসিকভাবে কষ্টে। সেই কষ্টের কিছুটা লাঘব করতে ও নিজের ছোট বেলার দেশের মানুষের প্রতি ভালোবাসা জানিয়ে সমর্থন জানিয়েছেন ইউক্রেনকে। শুধু সমর্থনই না, অনুদান দিয়েছেন ১ কোটি মার্কিন ডলার।

সেখানে আরো উল্লেখ করা হয়,

ইউক্রেনে লিওনার্দোর আর্থিক সহায়তার বিষয়টির ঘোষণা আসে ইন্টারন্যাশনাল ভিসেগ্রাড ফান্ড থেকে। ভিসেগ্রাড গ্রুপের লক্ষ্য পূর্ব ইউরোপের উন্নয়নে আন্তর্জাতিক আর্থিক সহায়তা নিয়ে কাজ করা।’

তথ্য যাচাই

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে আলোচিত তথ্যটির কোনো সত্যতা পাওয়া যায় নি। গায়না ভিত্তিক অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘GSA News, যারা বিষয়টি সর্বপ্রথম প্রতিবেদন আকারে প্রকাশ করছিলো তারা পরবর্তীতে তথ্যটি মিথ্যা স্বীকার করে প্রতিবেদনটি সংশোধন করে নেয়। সংশোধিত প্রতিবেদনে তারা উল্লেখ করে,

গত ৫ ই মার্চ, ২০২২ এ, এই প্রকাশনাটি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিলো যাতে বলা হয় যে, লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও আন্তর্জাতিক অনুদানের জন্য নির্ধারণ করা একটি ইউক্রেনীয় ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার স্থানান্তর করেছেন। আমরা ইউক্রেনের মিডিয়াসহ ইউক্রেনের অভ্যন্তরে একাধিক উৎস থেকে সেই তথ্য পেয়েছি। তবে প্রকৃতপক্ষে অর্থ স্থানান্তর করা হয়েছিলো কিনা তা কেউ যাচাই করতে পারিনি। 

তারা আরো উল্লেখ করে, ‘GSA News’ এই প্রতিবেদনটি প্রত্যাহার করছে কারণ এটি যাচাই করা যায়নি। কোনো অসুবিধা তৈরি হলে আমরা তার জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম CNN থেকে GSA News এর প্রতিষ্ঠাতা প্যাট্রিক কার্পেন এর সাথে যোগাযোগ করলে কার্পেন সিএনএনকে বলেন, ‘এই মিথ্যা প্রতিবেদনের জন্য আমি গভীরভাবে ক্ষমাপ্রার্থী। এই প্রতিবেদনটি প্রকাশ করার পিছনে কোনো খারাপ উদ্দেশ্য ছিল না। তিনি ইউক্রেনের তার উৎস কে বিশ্বাস করেন এবং এজন্যই এটি প্রকাশ করেছিলেন।

তিনি আরো বলেছেন যে ডিক্যাপ্রিওর ১০ মিলিয়ন ডলার অনুদানের জন্য তার প্রাথমিক উৎসটি ছিল ইউক্রেনের একটি ফেসবুক পোস্ট। 

মূলত, সিএনএন এর ফ্যাক্টচেকিং টিম থেকে GSA News এর সাথে যোগাযোগ করার পর বিষয়টিকে গুজব বলে নিশ্চিত করলে তারা (GSA News কর্তৃপক্ষ) তাদের ভুল স্বীকার করে প্রতিবেদনটি সংশোধন করে নেয়।

উক্ত ঘটনা নিয়ে CNN পরবর্তীতে একটি ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদনও প্রকাশ করে। সেখানে উল্লেখ করা হয়, 

ডিক্যাপ্রিও ইউক্রেনে ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দান করেন নি এবং ইউক্রেনের কোথাও তার পরিবারের কোনো সদস্য নেই, অভিনেতার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র বুধবার তাদেরকে এই তথ্য জানিয়েছে।

লিওনার্দো
Screenshot from CNN website

ডিক্যাপ্রিওর ঘনিষ্ট সূত্রটি সিএএনকে নিশ্চিত করে বলেছে যে, 

“ডিক্যাপ্রিও ইউক্রেনে কাজ করা কিছু সংস্থা এর মাধ্যমে ইউক্রেনের ব্যক্তিগত কিছু মানবিক অনুদান দিয়ে ইউক্রেনের পাশে দাঁড়িয়েছে। তবে প্রতিবেদনগুলোতে ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অনুদান দেওয়ার যে দাবি করা হয়েছে তা মিথ্যা এবং ডিক্যাপ্রিওর ইউক্রেনের সাথে পারিবারিক সম্পর্ক আছে বলে যা উল্লেখ করা হয়েছে সেটিও মিথ্যা। “

ভুয়া তথ্য সম্বলিত প্রতিবেদনগুলোতে টাকা হস্তান্তরের মাধ্যম হিসেবে The International Visegrad Fund উল্লেখ করা হয়েছে। সিএনএন পরবর্তীতে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থা ভিসেগ্রাড গ্রুপের সাথে যোগাযোগ করলে তারা সিএনএনকে নিশ্চিত করেছে যে, ইউক্রেনে ডিক্যাপ্রিও এমন কোনো ঘোষণা করেনি এবং ডিক্যাপ্রিও কর্তৃক ১০ মিলিয়ন অনুদান সম্পর্কিত কোনো তথ্য তাদের কাছে নেই।

Also Read: প্রাক্তন মিস ইউক্রেন অস্ত্র হাতে যুদ্ধে নেমেছেন দাবিতে গণমাধ্যমে প্রচারিত তথ্যটি মিথ্যা

ডিক্যাপ্রিওর ইউক্রেনে ১০ মিলিয়ন ডলার অনুদানের এই বিষয়টি নিয়ে সর্বপ্রথম ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশকারী বিখ্যাত ফ্যাক্টচেকিং প্রতিষ্ঠান স্নোপসেও প্রায় একই তথ্য পাওয়া যায়। পাশাপাশি বিষয়টিকে মিথ্যা চিহ্নিত করে রয়টার্স, পলিটিফ্যাক্ট সহ আরো অনেকেই ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

সুতরাং, লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও কর্তৃক ইউক্রেনে ১ কোটি ডলার আর্থিক অনুদান দেয়ার দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

[su_box title=”True or False” box_color=”#f30404″ radius=”0″]

  • Claim Review: ইউক্রেনের জন্য ১ কোটি ডলার অনুদান দিলেন লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও
  • Claimed By: Facebook Posts & Media Outlets
  • Fact Check: False

[/su_box]

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img