বুধবার, ফেব্রুয়ারি 28, 2024
spot_img

সাঈদীর মৃত্যুতে পুলিশ সদস্যের চাকরি ছেড়ে দেওয়ার ভুয়া দাবি ভাইরাল

সম্প্রতি ‘আল্লামা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীকে যে পুলিশ দেখাশোনা করত সাঈদী সাহেব মারা যাওয়ার পরে সেই পুলিশ চাকরি ছেড়ে দিয়েছে’ শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

সাঈদীর মৃত্যু

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন পোস্ট (আর্কাইভ), পোস্ট (আর্কাইভ)।

টিকটকে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন  ভিডিও (আর্কাইভ),  ভিডিও (আর্কাইভ), ভিডিও (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, জামায়েত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুর পর তার দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যের চাকরি ছেড়ে দেওয়ার দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি ভিন্ন ঘটনার। প্রকৃতপক্ষে এটি কুষ্টিয়ার সাবেক পুলিশ সুপার মোঃ খাইরুল আলমের কুষ্টিয়া থেকে বদলির সময়ে ধারণকৃত।

দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুর পর তার দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যের চাকরি ছেড়ে দেওয়ার দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি নিয়ে অনুসন্ধানে উক্ত পোস্টটির কমেন্টবক্সে সজল বিশ্বাস নামে এক ব্যক্তির একটি কমেন্ট খুঁজে পাওয়া যায়। 

যেখানে তিনি দাবি করেন, এটি কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার খাইরুল আলমের বদলিজনিত কারণে বিদায় নেওয়ার সময় আবেগঘন মুহূর্তের একটি ভিডিও। 

Screenshot: facebook post

তার এই কমেন্টের সূত্রে পরবর্তী অনুসন্ধানে CT News24 নামের একটি ফেসবুক পেজে গত ১৫ জুলাই ‘কুষ্টিয়া পুলিশ সুপার খায়রুল আলমের বিদায় সম্বর্ধনা’ শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত ভিডিওটির ৭ মিনিট ৩৫ সেকেন্ড থেকে ৭ মিনিট ৫০ সেকেন্ড পর্যন্ত অংশটির সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুর পর তার দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যের চাকরি ছেড়ে দেওয়ার দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

Image Analysis: Rumor Scanner 

এছাড়া ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম ইউটিউবেও Noman Al Sakib নামের একটি চ্যানেলে গত ১৫ জুলাই ‘অশ্রুসিক্ত চোখে বিদায় নিলেন কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার; নিজে কাঁদলেন এবং কাঁদালেন সবাইকে!’ শীর্ষক শিরোনামে একই ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়। এই ভিডিওটির ৫ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড থেকে ৫ মিনিট ৫৫ সেকেন্ড পর্যন্ত অংশের সাথে দাবিকৃত ভিডিওটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

পরবর্তীতে দাবিটি নিয়ে অধিকতর অনুসন্ধানে কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের ফেসবুক পেজে ‘পুলিশের_চিরায়ত_নিয়মে_ফুলে_ফুলে_সুসজ্জিত_গাড়িতে_চড়ে_অশ্রুসিক্ত_নয়নে_বিদায়_নিলেন_কুষ্টিয়ার মানবিক পুলিশ সুপার’ শিরোনামে প্রকাশিত একটি পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়। 

পোস্টটি থেকে জানা যায়, কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার (এসপি) মোঃ খাইরুল আলম কুষ্টিয়া জেলা থেকে হাইওয়ে পুলিশে বদলি হয়েছেন। এ উপলক্ষে গত ১৫ জুলাই কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ লাইন্স থেকে বিদায়ী পুলিশ সুপারকে বাংলাদেশ পুলিশের চিরায়ত নিয়ম অনুযায়ী বিদায় জানানো হয়। এ বিদায় অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে আবেগঘন মুহূর্তের সৃষ্টি হয়। 

উপরিউক্ত আলোচনা থেকে প্রতীয়মান হয় যে, উক্ত ভিডিওটিকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুর পর তার দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যের চাকরি ছেড়ে দেওয়ার দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। 

অপরদিকে দাবিকৃত ভিডিওটির ইনসার্টে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর সঙ্গে যে পুলিশ সদস্যটিকে দেখা যাচ্ছে, সে পুলিশ সদস্যটির সঙ্গেও বিদায়ী  পুলিশ সুপার (এসপি) মোঃ খাইরুল আলমের চেহারার মিল খুঁজে পাওয়া যায়নি।

Image Analysis: Rumor Scanner 

এছাড়া মূলধারার কোনো গণমাধ্যম সূত্রেও সাঈদীর মৃত্যুর পর কোনো পুলিশ সদস্যের চাকরি ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে কোনো নির্ভরযোগ্য তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি।

মূলত, গত ১৪ আগস্ট রাতে ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী। এরই প্রেক্ষিতে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যের চাকরি ছেড়ে দেওয়ার আবেগঘন মুহূর্তের দৃশ্য দাবিতে একটি ভিডিও প্রচার করা হচ্ছে। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, দাবিটি সঠিক নয়। প্রকৃতপক্ষে, উক্ত ভিডিওটি গত ১৫ জুলাই কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ লাইন্স থেকে জেলার তৎকালীন পুলিশ সুপার মোঃ খাইরুল আলমের বদলিজনিত কারণে বিদায়ের সময়ের তৈরি হওয়া আবেগঘন মুহূর্তের। 

সুতরাং, ভিন্ন ঘটনায় ধারণকৃত ভিডিওকে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুর পর তার দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যের চাকরি ছেড়ে দেওয়ার আবেগঘন মুহূর্তের ভিডিও দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img