প্রধান নির্বাচন কমিশনার বিএনপি’র নিবন্ধন নিষিদ্ধ করেননি

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা নিয়ে রাজনীতির ময়দান এখন সরগরম। এরই মধ্যে গতকাল ১৪ নভেম্বর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘নির্বাচনের আগে একি সিদ্ধান্ত নিলো, বিএনপি নিবন্ধন নিষিদ্ধ করল সিইসি’ শীর্ষক থাম্বনেইলে একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

Sonali media নামের একটি ফেসবুক পেজ থেকে প্রচারিত ভিডিওটি এই প্রতিবেদন প্রকাশ অবধি প্রায় ১ লক্ষ ৮৬ হাজার বার দেখা হয়েছে, শেয়ার করা হয়েছে প্রায় ১ হাজার ৩ শত বার। এছাড়া, পোস্টটিতে প্রায় ১৩ হাজার পৃথক ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিক্রিয়া দেখানো হয়েছে।

ফেসবুকে ভাইরাল ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) নিবন্ধন নিষিদ্ধ ঘোষণা করেননি বরং বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে নিবন্ধিত দলের তালিকায় এখনো বিএনপি’র নাম আছে। এছাড়া প্রধান নির্বাচন কমিশনারের একান্ত সচিব আলোচিত দাবিটিকে মিথ্যা বলে রিউমর স্ক্যানারকে নিশ্চিত করেছেন।

অনুসন্ধানের শুরুতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বিএনপি’র নিবন্ধন নিষিদ্ধ করেছে কিনা সে বিষয়ে জানতে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। তবে উক্ত দাবিতে নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

তবে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলসমূহের তালিকায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) নাম খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: ecs.gov.bd

এ ব্যাপারে অধিকতর সত্যতা যাচাইয়ের উদ্দেশ্যে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের একান্ত সচিব মোঃ রিয়াজ উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রধান নির্বাচন কমিশনার কর্তৃক বিএনপি’র নিবন্ধন নিষিদ্ধ করার তথ্যটি মিথ্যা তথ্য বলে রিউমর স্ক্যানারকে নিশ্চিত করেছেন।

মূলত, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) নিবন্ধন নিষিদ্ধ করেছেন দাবিতে একটি তথ্য ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, বিএনপি প্রধান নির্বাচন কমিশনার কর্তৃক নিষিদ্ধ ঘোষিত হওয়ার তথ্যটি বানোয়াট। প্রকৃতপক্ষে অধিক ভিউ পাওয়ার আশায় উক্ত দাবিতে ভিডিওটি ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, আজ ১৫ নভেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবেন বলে নির্বাচন কমিশন থেকে গণমাধ্যমকে জানানো হয়েছে।

সুতরাং, প্রধান নির্বাচন কমিশনার কর্তৃক বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) নিবন্ধন নিষিদ্ধ করার দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত বিষয়টি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

  • Bangladesh Election Commission – Website
  • Statement from Md: Riaz Uddin
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img