শনিবার, জুলাই 20, 2024
spot_img

এটি সম্প্রতি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম সর্বার পড়ার রুটিন নয়

গত ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর জানা যায়, এই পরীক্ষায় তানজিম মুনতাকা সর্বা নামক একজন শিক্ষার্থী প্রথম হয়েছেন। সেদিনই তানজিম মুনতাকা সর্বা’র দৈনিক রুটিন দাবিতে একটি রুটিনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হয়েছে।

ভর্তি পরীক্ষায়

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, আলোচিত পড়ার রুটিনের ছবিটি তানজিম মুনতাকা সর্বার নয় বরং এই রুটিনটি ইমরান হাসান শোভন নামক যশোর মেডিকেল কলেজের একজন সাবেক শিক্ষার্থী এবং বর্তমানে ডাক্তার তৈরি এবং এটি ২০২১ সাল থেকেই ইন্টারনেটে বিদ্যমান।

দাবিটির সূত্রপাত অনুসন্ধানে গত ১১ ফেব্রুয়ারি ‘আদমজীর গডফাদার’ নামক ফেসবুক পেজে এ সংক্রান্ত সাম্প্রতিক সময়ের সম্ভাব্য প্রথম পোস্টটি নজরে আসে রিউমর স্ক্যানারের।

Collage: Rumor Scanner

আদমজীর গডফাদার নামক ফেসবুক পেজটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, এটি একটি বিনোদন মূলক পেজ যাতে ট্রল,  মিম শেয়ার করা হয়।

আমরা পরবর্তীতে আলোচিত রুটিনটি পর্যবেক্ষণ করে দেখতে পাই, এতে ‘DMC TOPPER – MD. IMRAN HASAN SHOVON’ শীর্ষক নাম উল্লেখ করা।

Screenshot: Facebook

এটির সূত্র ধরে অনুসন্ধানে ‘DMC TOPPER’ নামক একটি গ্রুপে ‘Imran Hasan Shovon’ নামক ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে ২০২১ সালের ১২ জুন প্রকাশিত একটি পোস্ট (আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: Facebook

ফেসবুক পোস্টটি থেকে জানা যায়, উক্ত পোস্টকারী যশোর মেডিকেল কলেজ এবং হাসপাতালের ডাক্তার এবং সাবেক শিক্ষার্থী। ফেসবুক পোস্টটিতে তিনি জানান, এই রুটিনটি তিনি এইচএসসি – ২০২১ ব্যাচের জন্য তৈরি করেছিলেন এবং এইচএসসি – ২০২২ জন্য শীঘ্রই রুটিন তৈরি করবেন।

গ্রুপটি থেকে জানা যাচ্ছে, জনাব শোভন এই গ্রুপের অন্যতম এডমিন। তিনি নিয়মিতই গ্রুপে মেডিকেল ভর্তি সংক্রান্ত বিভিন্ন পোস্ট করে থাকেন। 

মূলত, ইমরান হাসান শোভন নামক একজন যশোর মেডিকেল কলেজ এবং হাসপাতালের সাবেক শিক্ষার্থী এবং বর্তমানে ডাক্তার এইচএসসি – ২০২১ ব্যাচের জন্য একটি পড়ার রুটিন তৈরি করে DMC TOPPER নামক গ্রুপে পোস্ট করেন। সম্প্রতি উক্ত পড়ার রুটিনটিই ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া তানজিম মুনতাকা সর্বার দৈনিক রুটিন দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে।

সুতরাং, ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া তানজিম মুনতাকা সর্বার দৈনিক রুটিন দাবিতে ২০২১ সালে ভিন্ন ব্যক্তির তৈরি রুটিন ইন্টানেটে প্রচার করা হয়েছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

  • Imran Hasan Shovon – Facebook Post
  • Rumor Scanner’s own analysis
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img