বৃহস্পতিবার, জুলাই 18, 2024
spot_img

ভবনে অগ্নিকাণ্ডের দৃশ্যটি বাংলাদেশের নয়

গত ০৮ জানুয়ারি ‘Sk.. Saimon. 3’ নামের একটি টিকটক অ্যাকাউন্টে “দেশে এগুলো কি হচ্ছে একটার পর একটা, ভিডিওটি শেষ পর্যন্ত দেখে যাও” শীর্ষক দাবি সম্বলিত ওয়াটার মার্কে একটি ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ভিডিও পোস্ট (আর্কাইভ) করা হয়।

ভবনে অগ্নিকাণ্ডের

পরবর্তীতে উক্ত ভিডিওটি ডাউনলোড করে টিকটক, ইউটিউব ও ফেসবুকে প্রচার করা হয়।

টিকটকে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফেসবুকে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

পোস্টগুলোতে দাবি করা হচ্ছে, ভিডিওটি বাংলাদেশে কোনো অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার।

এই প্রতিবেদন প্রকাশ অবধি ‘Sk.. Saimon. 3’ নামের একটি টিকটক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রচারিত ভিডিওটি প্রায় ৩৬ লক্ষবার দেখা হয়েছে, ভিডিওতে প্রায় ১ লক্ষ ৫ হাজার পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে। ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে প্রায় ২ হাজার ৪ শত বার।

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ভবনে অগ্নিকাণ্ডের দৃশ্যটি বাংলাদেশের নয় বরং এটি ২০২৩ সালে জম্মু ও কাশ্মীরের শ্রীনগরে একটি ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার। 

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে ‘Kashmir Now’ শীর্ষক একটি লোগো লক্ষ্য করা যায়। 

Screenshot: Tiktok Claim Post

পরবর্তীতে লোগোর সূত্র ধরে অনুসন্ধানে The Kashmir Now নামক একটি ইউটিউব চ্যানেলে গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর “A massive fire erupts in Habba Kadal.” (আর্কাইভ) শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত ভিডিওটির সাথে আলোচিত ভিডিওটির হুবহু মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

উক্ত ভিডিও থেকে জানা যায়, আগুন লাগার দৃশ্যটি জম্মু ও কাশ্মীর এর গ্রীষ্মকালীন রাজধানী শ্রীনগরের হাবা কাদালের কাছে একটি ভবনে ব্যাপক বিস্ফোরণে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার। 

পরবর্তীতে এ বিষয়ে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে কাশ্মীর ভিত্তিক গণমাধ্যম Greater Kashmir এর ওয়েবসাইটে গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর “Fire damages godown, residential building at Nai Sarak” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গত ১৭ সেপ্টেম্বর শ্রীনগরের নতুন সড়কের চারতলা একটি ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। 

অর্থাৎ, আলোচিত ভিডিওটি বাংলাদেশের নয়। 

মূলত, ২০২৩ সালে জম্মু ও কাশ্মীর এর গ্রীষ্মকালীন রাজধানী শ্রীনগরে বিস্ফোরণের ফলে একটি ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ঐ অগ্নিকাণ্ডের একটি ভিডিওকেই বাংলাদেশের অগ্নিকাণ্ডের ভিডিও দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে।

সুতরাং, জম্মু ও কাশ্মীরের শ্রীনগরের একটি ভবনে আগুন লাগার দৃশ্যকে বাংলাদেশের দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র 

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img