বুধবার, জুলাই 24, 2024
spot_img

লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসককে বদলি করা হয়নি

লক্ষ্মীপুরের বর্তমান জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহানকে বদলী করা হয়েছে শীর্ষক একটি দাবি সম্প্রতি ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে। 

ফেসবুকের কিছু পোস্টে এমনও দাবি করা হয়েছে যে, নতুন জেলা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন হোমায়রা বেগম। 

উক্ত দাবিগুলোর বিষয়ে প্রচারিত ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, লক্ষ্মীপুরের বর্তমান জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহানকে বদলী করা হয়নি বরং লক্ষ্মীপুর-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান পবন কর্তৃক বদলির হুমকি পাওয়ার পর উক্ত দাবিটি প্রচার করা হলেও বিষয়টির সত্যতা মেলেনি। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে শুরুতে গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত কোনো সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে গত ০২ জানুয়ারি একাধিক সংবাদমাধ্যমে (, , ) লক্ষ্মীপুর-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান পবনের বিষয়ে একটি সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়। এসব সংবাদে জানানো হয়, লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে বদলির হুমকি দেওয়ায় পবনের প্রার্থিতা বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন। 

পবনকে ইসির সিদ্ধান্ত জানিয়ে কমিশনের আইন শাখার উপসচিব আব্দুছ সালাম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বলা হয়, মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান পবন গত ৩০ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসক ও লক্ষ্মীপুরের রিটার্নিং অফিসার সুরাইয়া জাহানকে হোয়াটসঅ্যাপে ফোন করে ‘অকথ্য, আপত্তিকর ও অশোভন’ কথা বলেন। এই ঘটনায় লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহান নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে লিখিত অভিযোগ করেন। সেখানে বলা হয়, রিটার্নিং অফিসার ও পুলিশ সুপারকে ‘তিন দিনের মধ্যে বদলি করার হুমকি’ দেওয়ার পাশাপাশি ‘ভয়-ভীতি’ দেখিয়েছেন যুবলীগ নেতা পবন। এই অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় পবন এর প্রার্থিতা বাতিলের সদয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে নির্বাচন কমিশন। 

তবে এর একদিন পরই প্রার্থিতা ফিরিয়ে দিতে নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। পড়ুন এখানে, এখানে৷ 

অর্থাৎ, এই ঘটনা থেকেই আলোচ্য দাবিটির সূত্রপাত বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। 

পরবর্তীতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটের এ সংক্রান্ত শাখায় গিয়ে দেখা যায়, সেখানে জেলা প্রশাসকদের বদলি সংক্রান্ত সর্বশেষ সরকারি আদেশ প্রকাশিত হয়েছে গত ২৭ ডিসেম্বর (২০২৩)। উক্ত আদেশসহ এই শাখার কোনো আদেশেই লক্ষ্মীপুরের বর্তমান জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহানকে বদলির বিষয়ে কোনো তথ্য মেলেনি। 

তাছাড়া, জাতীয় তথ্য বাতায়নের ওয়েবসাইটে লক্ষ্মীপুরের জেলার সেকশনে জেলা প্রশাসক হিসেবে সুরাইয়া জাহানের নামই উল্লেখ রয়েছে। 

এছাড়া, লক্ষ্মীপুর-১ আসনের আলোচিত স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান পবনও নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে দেওয়া এক পোস্টে জেলা প্রশাসক বদলির খবরটিকে গুজব বলে আখ্যায়িত করেছেন। 

Screenshot: Facebook 

ছড়িয়ে পড়া পোস্টগুলোতে নতুন জেলা প্রশাসক হিসেবে হোমায়রা বেগম নামে এক ব্যক্তির নাম উল্লেখ করার প্রেক্ষিতে এ বিষয়ে অনুসন্ধান করে আমরা দেখেছি, একই নামে এক ব্যক্তি ২০১৭-১৮ সালে লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসক ছিলেন।

মূলত, গত ৩০ ডিসেম্বর (২০২৩) লক্ষ্মীপুর-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান পবনের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহানকে হোয়াটসঅ্যাপে ফোন করে ‘অকথ্য, আপত্তিকর ও অশোভন’ কথা বলার অভিযোগ আনা হয়। এই ঘটনায় লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহান নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে লিখিত অভিযোগে জানান, তাকে এবং পুলিশ সুপারকে ‘তিন দিনের মধ্যে বদলি করার হুমকি’ দেওয়ার পাশাপাশি ‘ভয়-ভীতি’ দেখিয়েছেন পবন। এই অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় পবনের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয় নির্বাচন কমিশন। তবে এর একদিন পরই প্রার্থিতা ফিরিয়ে পান তিনি। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে, লক্ষ্মীপুরের বর্তমান জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহানকে বদলি করা হয়েছে। কিন্তু অনুসন্ধানে জানা যায়, তাকে বদলি করা হয়নি। পবন নিজেও এক ফেসবুক পোস্টে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  

সুতরাং, লক্ষ্মীপুরের বর্তমান জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহানকে বদলি করা হয়েছে শীর্ষক একটি দাবি ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা৷ 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img