শনিবার, জুলাই 13, 2024
spot_img

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদেরকে গ্রেফতারের গুজব

সম্প্রতি, “আজ মধ্য রাত থেকে মাঠে নামছে সেনাবাহিনী মাঠে নেমেই জিএম কাদেরকে গ্রেফতার Bd latest news today” শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে।

 জি এম কাদের

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা যায়, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের সেনাবাহিনীর হাতে গ্রেফতার হননি বরং কোনো নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র ছাড়াই অধিক ভিউ পাওয়ার আশায় চটকদার শিরোনাম এবং থাম্বনেইল ব্যবহার করে আলোচিত ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতেই আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, আলোচিত ভিডিওটি সংবাদপাঠের ভিডিওর খণ্ডাংশ এবং ভিন্ন কয়েকটি ঘটনার ভিডিও ফুটেজ ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে।

ভিডিও যাচাই-১

প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে Jamuna TV এর ইউটিউব চ্যানেলে ২০২৩ সালের ২৬ ডিসেম্বর “‘নির্বাচনে সেনাবাহিনী নামানোর সাথে রাজনীতির কোন সম্পর্ক নেই’ | Home Minister | Election | Jamuna TV” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত ভিডিওর সাথে আলোচিত ভিডিওটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Comparison By Rumor Scanner

উক্ত ভিডিও প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ২৯ ডিসেম্বর থেকে নির্বাচনী দায়িত্ব পালনে মাঠে নেমেছে বিজিবি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের বরাত দিয়ে উক্ত প্রতিবেদনে জানানো হয়, নির্বাচনে সেনাবাহিনী নামানোর সাথে রাজনীতির কোনো সম্পর্ক নেই।

ভিডিও যাচাই-২

প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে Jamuna TV এর ইউটিউব চ্যানেলে ২০২৩ সালের ২৩ ডিসেম্বর “এতদিন কেন গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেননি, জানালেন জি এম কাদের | GM KAder Campaign | Jamuna TV” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত ভিডিওর সাথে আলোচিত ভিডিওটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Comparison By Rumor Scanner

উক্ত ভিডিও থেকে জানা যায়, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের জানিয়েছেন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠ ও গ্রহণযোগ্য হওয়ার শর্তে নির্বাচনে এসেছে জাতীয় পার্টি। নির্বাচন সুষ্ঠ না হলে ভোট বর্জন করবে তার দল।

ভিডিও যাচাই-৩

প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে Ekattor TV এর ইউটিউব চ্যানেলে ২০২৩ সালের ২৮ ডিসেম্বর “জিএম কাদের আর লাঙ্গলের হাত থেকে ভোটাররা মুক্তি চায়’ | Third Gender Candidate | News | Ekattor TV” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত ভিডিওর সাথে আলোচিত ভিডিওটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Comparison By Rumor Scanner

উক্ত ভিডিও থেকে জানা যায়, রংপুর-৩ আসনে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী জি এম কাদেরের প্রতিপক্ষ হিসেবে এবার নির্বাচনে লড়ছেন তৃতীয় লিঙ্গের এক প্রার্থী।

ভিডিও যাচাই-৪

প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে Dr. Fayzul Huq Voice এর ইউটিউব চ্যানেলে ২০২৩ সালের ২৫ ডিসেম্বর “তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থী রানীর কাছে হারের আশংকায় জিএম কাদের! পারবে কি রানীকে হারাতে জিএম কাদের!” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত ভিডিওর সাথে আলোচিত ভিডিওটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Comparison By Rumor Scanner

উক্ত ভিডিও পর্যবেক্ষণ করে, ভিডিওর আলোচক দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রংপুর-৩ আসনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের ও তৃতীয় লিঙ্গের একজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রতিদ্বন্দ্বিতা নিয়ে আলোচনা করতে দেখা যায়।

অর্থাৎ, ভিডিওগুলো অপ্রাসঙ্গিকভাবে আলোচিত ভিডিওর সাথে জুড়ে দিয়ে প্রচার করা হয়েছে।

এছাড়াও, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম কিংবা নির্ভরযোগ্য কোনো সূত্র থেকে সেনাবাহিনীর হাতে জি এম কাদেরের গ্রেফতারের দাবির সত্যতা জানা যায়নি।

মূলত, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে সশস্ত্র বাহিনী। নির্বাচনের মাঠে সেনাবাহিনীসহ অন্যান্য সশস্ত্র বাহিনীর উপস্থিতিকে কেন্দ্র করে “আজ মধ্য রাত থেকে মাঠে নামছে সেনাবাহিনী মাঠে নেমেই জিএম কাদেরকে গ্রেফতার” শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, আলোচিত দাবিটি সঠিক নয়। অধিক ভিউ পাবার আশায় ভিন্ন ভিন্ন ভিডিওর খণ্ডাংশ যুক্ত করে তাতে চটকদার শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে কোনোপ্রকার নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র ছাড়াই আলোচিত দাবির ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সশস্ত্র বাহিনী, পুলিশ, বিজিবি, র‍্যাবসহ সব বাহিনী ২৯ ডিসেম্বর মাঠে নামবে। তারা মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত ১৩ দিন দায়িত্ব পালন করবে।

সুতরাং, সেনাবাহিনীর হাতে জি এম কাদের গ্রেফতার হয়েছেন দাবিতে একটি তথ্য ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img