শুক্রবার, জুলাই 26, 2024
spot_img

ওবায়দুল কাদের ও জি এম কাদেরের মৃত্যুর গুজব

সম্প্রতি, “জাতীয় পার্টির কার্যালয় ভাঙচুর নির্বাচন বন্ধ জিএম কাদের ও ওবায়দুল কাদের নিহত” শীর্ষক শিরোনাম এবং থাম্বনেইলে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে।

মৃত্যুর

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে(আর্কাইভ)

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা যায়, আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের নিহত হননি এবং ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় নির্বাচন স্থগিত-ও করা হয়নি বরং কোনো নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র ছাড়াই অধিক ভিউ পাওয়ার আশায় চটকদার শিরোনাম এবং থাম্বনেইল ব্যবহার করে আলোচিত ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতেই আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, আলোচিত ভিডিওটি একটি সংবাদপাঠের ভিডিও এবং ভিন্ন ভিন্ন কয়েকটি ঘটনার ভিডিও ফুটেজ ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে।

ভিডিও যাচাই-১

প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে Channel 24 এর ইউটিউব চ্যানেলে ২০২৩ সালের ২৩ ডিসেম্বর “মাদারীপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থককে কু*পি*য়ে হ*ত্যা | Channel 24” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

Comparison By Rumor Scanner

উক্ত ভিডিও প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে, মাদারীপুরের কালকিনিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর এক সমর্থককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। প্রতিবেদন থেকে আরো জানা যায়, মাদারীপুরের কালকিনিতে স্বতন্ত্র ও নৌকা প্রার্থীর সমর্থকদের বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বিবাদে জড়ায় দু’পক্ষ। এ ঘটনায় স্বতন্ত্র প্রার্থী তহমিনা বেগমের এসকেন্দার খাঁ নামের এক সমর্থক নিহত হন। 

ভিডিও যাচাই-২

প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে ২০২৩ সালের ২২ ডিসেম্বর Voice Bangla ইউটিউব চ্যানেলে “স্বতন্ত্র প্রার্থীরা কি নির্বাচনী মাঠে টিকতে পারবেন? Mostofa Feroz I Voice Bangla” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

Comparison By Rumor Scanner

উক্ত ভিডিওতে নৌকা প্রার্থীদের প্রভাবের কারণে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা নির্বাচনে কতটা সুবিধা করতে পারবেন সে বিষয়ে আলোচনা করা হয়। সেইসাথে ভিডিওতে আসন্ন জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে আলোচনা করতে দেখা যায়।

ভিডিও যাচাই-৩

প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মওলা রনি’র ফেসবুক পেজে ২০২৩ সালের ২৩ ডিসেম্বরের একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

Comparison By Rumor Scanner

উক্ত ভিডিওতে সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মওলা রনিকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে রাজনৈতিক আলোচনা করতে দেখা যায়।

অর্থাৎ, উপরোক্ত তিনটি ভিডিওকেই অপ্রাসঙ্গিকভাবে আলোচিত ভিডিওর সাথে জুড়ে দিয়ে প্রচার করা হয়েছে।

ভিডিও যাচাই-৪

প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে NTV News ইউটিউব চ্যানেলে ২০২৩ সালের ২২ ডিসেম্বর “জাতীয় পার্টির প্রধান নির্বাচনি কার্যালয়ে হা-ম-লা | NTV News” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Comparison By Rumor Scanner

উক্ত ভিডিও থেকে জানা যায়, জাতীয় পার্টির প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। 

পরবর্তীতে উক্ত ভিডিওর সূত্র ধরে, ২০২৩ সালের ২২ ডিসেম্বর দৈনিক মানবজমিন এর ওয়েবসাইটে “মৌলভীবাজারে জাপার নির্বাচনী কার্যালয়ে নৌকা সমর্থকদের হামলা ও ভাংচুর, আহত ৫” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, মৌলভীবাজার-৩ সংসদীয় আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী মো. আলতাফুর রহমানের প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর সমর্থকরা হামলা ও ভাঙচুর করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পাশপাশি প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, ২০২৩ সালের ২৪ ডিসেম্বর প্রথম আলো’র ওয়েবসাইটে “জাতীয় পার্টি মোটামুটি একটা উত্তরবঙ্গের দল: জি এম কাদের” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদেরের নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসেবে আজ রোববার(২৪ ডিসেম্বর) দুপুরে রংপুরে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

যা থেকে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের জীবিত এবং সুস্থ্য আছেন।

এছাড়াও, প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে প্রথম আলো’র ওয়ারবসাইটে ২০২৩ সালের ২৪ ডিসেম্বর “ইসি কারও প্রার্থিতা বাতিল করলে আওয়ামী লীগের কিছু বলার নেই: কাদের” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, রোববার(২৪ ডিসেম্বর) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন স্বাধীন প্রতিষ্ঠান। যৌক্তিক কোনো কারণে সে রকম (প্রার্থিতা বাতিল) কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হলে আমাদের কিছু বলার নেই।’

অর্থাৎ, আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জীবিত আছেন।

এছাড়াও জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম কিংবা নির্ভরযোগ্য কোনো সূত্র থেকে আসন্ন ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন স্থগিতের সত্যতা জানা যায়নি।

মূলত, আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এবং জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের নিহত হয়েছেন দাবিতে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, আলোচিত দাবিটি সঠিক নয়। অধিক ভিউ পাবার আশায় ভিন্ন ভিন্ন ভিডিওর খণ্ডাংশ যুক্ত করে করে তাতে চটকদার শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে কোনোপ্রকার নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র ছাড়াই আলোচিত দাবির ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, পূর্বেও চটকদার শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে বিভিন্ন ভুয়া তথ্য প্রচারের প্রেক্ষিতে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। এমন কয়েকটি প্রতিবেদন দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

সুতরাং, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান  জি এম কাদের নিহত হয়েছেন শীর্ষক দাবিতে একটি তথ্য ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে; যা মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img