রবিবার, জুলাই 21, 2024
spot_img

কুমিল্লায় ইমাম, মুয়াজ্জিনদের কোর্স করাচ্ছেন হিন্দুরা?

সম্প্রতি “ইমাম,মুয়াজ্জিনদের কোর্স করাচ্ছেন ভিন্নধর্মী হিন্দুদের দিয়ে” শীর্ষক দাবিতে একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, কুমিল্লার চান্দিনায় ইমাম, মুয়াজ্জিনদের ভিন্নধর্মী হিন্দুদের দিয়ে কোর্স করানোর দাবিতে প্রচারিত ছবিটি সঠিক নয় বরং ছবিটিতে থাকা হিন্দুধর্মের ব্যক্তিবর্গ সেখানে পদাধিকার বলে উপস্থিত ছিলেন।

ছবিটির সত্যতা যাচাইয়ে রিউমর স্ক্যানার টিম ইমাম মোয়াজ্জিনদের ওরিয়েন্টেশন কোর্স ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা শীর্ষক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকা চান্দিনা উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাপস শীলের সঙ্গে যোগাযোগ করে।

তিনি রিউমর স্ক্যানারকে জানান, “এটা টোটালি ফেইক। এটা ইসলামিক ফাউণ্ডেশনের প্রোগ্রাম। সেখানে পদাধিকার বলে এমপি স্যার, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, ইউএনওকে রাখা হয়েছিল এই ব্যানারে। এছাড়া জেলা প্রশাসক ছিলেন, মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিনরা ছিলেন। ফেসবুকে যেটা ছড়ানো হয়েছে, সেটা কেবল ব্যানারের ছবি। পুরো প্রোগ্রামের ছবি ওরা শেয়ার দেয়নি কেউ।”

পরবর্তীতে তিনি রিউমর স্ক্যানারকে ঐ প্রোগ্রামের কিছু ছবিও প্রদান করেন৷

সেসব ছবিতে দেখা যায়, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রশিক্ষক, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সুপারভাইজার, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের নিয়োগপ্রাপ্ত ইমাম ও মুয়াজ্জিনগণ, বিভিন্ন মসজিদের ইমামগণ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা পরিবার ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, অফিসার ইনচার্জ (ওসি), সহকারী ভূমি কমিশনার (এসিল্যান্ড), সকল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত আছেন।

ছবি- ১
ছবি- ২
ছবি- ৩
ছবি- ৪

পরবর্তীতে এ বিষয়ে জানতে ইসলামিক ফাউণ্ডেশন কুমিল্লার ডেপুটি ডিরেক্টর মামুন আব্দুল্লাহর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।

তিনি রিউমর স্ক্যানারকে জানান, “এটা কোনো প্রশিক্ষণ কর্মশালা ছিল না৷ এটা পূজা উপলক্ষে একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সমন্বয় সভা ছিল। এখানে জেলা প্রশাসক ছিলেন, ইমামরা বক্তব্য রেখেছেন। ওখানকার এমপি মহোদয় ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ছিলেন, উনারা উনাদের সরকারি দায়িত্বের জায়গা থেকে বক্তব্য দিয়েছেন। ব্যানারে তিনটা নাম আসছে, এটা প্রশাসনিক দায়িত্বের কারণে আসছে।”

মূলত, গত ২৭ সেপ্টেম্বর কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলার সকল মসজিদের ইমাম মুয়াজ্জিনের ওরিয়েন্টশন কোর্স ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ইমামদের ভূমিকা শীর্ষক একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত এমপি, সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) তাপস শীল, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা তপন বক্সী। তাঁরা পদাধিকার বলেই সরকারী কর্মকর্তা হিসেবে এই আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য প্রদান করেন৷ তবে তাদের উপস্থিতির এই বিষয়টিকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা ইমাম,মুয়াজ্জিনদের কোর্স করাচ্ছেন দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। যদিও একই অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন পৌর মেয়র মো. শওকত হোসেন ভূঁইয়া, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) উম্মে হাবিবা মজুমদার, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়া আক্তার, চান্দিনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাহাুদ্দীন খাঁন, অনুষ্ঠানে সঞ্চালনা করেন ইসলামী ফাউন্ডেশন চান্দিনা উপজেলা পরিদর্শক মাও. মাহবুবুর রহমান, মাইজখার ইউপি চেয়ারম্যান শাহ্ সেলিম প্রধান, ইমাম মাওলানা হাবিবুর রহমান, মাওলানা নজির আহমেহ, মাওলানা মহিদুল্লাহ প্রমুখ।

সুতরাং, হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা ইমাম,মুয়াজ্জিনদের কোর্স করাচ্ছেন দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img