তেলবাহী জাহাজ ডুবির ঘটনা দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি বাংলাদেশের নয়

সম্প্রতি “৬০০ কোটি টাকার তেলবাহী বাংলাদেশি জাহাজডুবি!! জাহাজে তেল লোড দেওয়ার সাথে সাথেই ফাটল ধরে।” শিরোনামে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, তেলবাহী জাহাজডুবির ঘটনাটি বাংলাদেশের দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি বাংলাদেশের নয় বরং এটি ইন্দোনেশিয়ায় ফেরি ডুবির পুরোনো ভিডিও।

ভিডিওটির কিছু স্থিরচিত্র রিভার্স সার্চের মাধ্যমে, যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম NBC News এর ওয়েবসাইটে ২০১৫ সালের ১৭ নভেম্বর ইন্দোনেশিয়ায় ফেরিডুবি বিষয়ে একটি প্রতিবেদনে প্রকাশিত একটি ছবির মিল খুঁজে পাওয়া যায়। উক্ত প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, আগের দিন (১৬ নভেম্বর) কেএম উইহান সেজাহতেরা (KM Wihan Sejahtera) নামের যাত্রীবাহী একটি ফেরি ইন্দোনেশিয়ার পূর্ব জাভার সুরাবায়া শহরের তেনজাং পেরাক বন্দরে (Tanjung Perak Port) ডুবে যায়।

Source: nbcnews

পরবর্তীতে ভিডিওতে দেখানো বন্দরের ক্রেনে থাকা শব্দগুচ্ছ ‘terminal teluk lamong‘ ধরে অনুসন্ধানের মাধ্যমে arkindo – arkananta indonesia নামক একটি ইউটিউব চ্যানেলে আলোচিত ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়।

২০১৫ সালের ১৭ নভেম্বর উক্ত চ্যানেলে ভিডিওটি প্রকাশ করা হয়। এই ভিডিওর সাথে বাংলাদেশের ঘটনা দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটির হুবহু মিল পাওয়া যায়।

এছাড়া, ইন্দোনেশিয়ার মূল ধারার সংবাদমাধ্যম detik এবং যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম Dailymail সহ আন্তর্জাতিক একাধিক সংবাদমাধ্যমে এই দুর্ঘটনার বিষয়ে সে সময় খবর প্রকাশ করে।

মূলত, ২০১৫ সালে ইন্দোনেশিয়ায় ‘কেএম উইহান সেজাহতেরা’ নামের যাত্রীবাহী একটি ফেরি ডুবে যাওয়ার পুরোনো একটি ভিডিও ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করে সাম্প্রতিক সময়ে ৬০০ কোটি টাকার তেলবাহী বাংলাদেশি জাহাজডুবির ভিডিও দাবিতে সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ১৬ নভেম্বর ডুবে যাওয়া ‘কেএম উইহান সেজাহতেরা’ নামের যাত্রীবাহী ফেরিটি ইন্দোনেশিয়ার পূর্ব জাভার সুরাবায়া শহরের তেনজাং পেরাক বন্দরে (Tanjung Perak Port) ডুবে যায়। ১৯৮৫ সালে নির্মিত ফেরিটিতে অন্তত ১৭৫ জন যাত্রী এবং ক্রু ছিল। এদের সকলেই নিরাপদে বেরিয়ে আসতে সক্ষম হয় ফেরি থেকে।

সুতরাং, বাংলাদেশে তেলবাহী জাহাজডুবির দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত ভিডিওটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

  1. NBC News : Passengers Escape Capsizing Indonesian Ferry
  2. arkindo – arkananta indonesia : DETIK DETIK TENGGELAMNYA KMP WIHAN SEJAHTERA
  3. Detik : The captain’s confession about the moments when KM Wihan Sejahtera sank   
  4. Dailymail :  Abandon ship!  
  5. Suara : The moments of the sinking of KM Wihan 
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img