বৃহস্পতিবার, মে 30, 2024
spot_img

এনটিভি’র ফটোকার্ড নকল করে বিএনপি নেতাদের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নিষেধাজ্ঞার গুজব

সম্প্রতি, ‘যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নিষেধাজ্ঞার আওতায় বিএনপি নেতা তারেক রহমান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, রুহুল কবির রিজভী, আমানউল্লাহ আমান, হাবিব উন নবী সহ আরও ২৮০ জনের বিরুদ্ধে ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে’ শীর্ষক দাবিতে এনটিভি’র ফটোকার্ডের ডিজাইন সম্বলিত একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে।

ভিসা নিষেধাজ্ঞা

ফেসবুকে প্রচারিত এমনকিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) নেতাদের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপের কোনো তথ্য প্রকাশ করেনি এবং এনটিভিও উক্ত তথ্য সম্বলিত কোনো ফটোকার্ড বা সংবাদ প্রকাশ করেনি বরং আলোচিত এই ফটোকার্ডটি ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় এডিট করে তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে এনটিভি’র ফটোকার্ডের ডিজাইন সম্বলিত ছবিটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। সেখানে এই সংবাদটি প্রচারের তারিখ উল্লেখ করা হয় ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩।

Screenshot: Facebook Claim Post

দাবিটির সত্যতা যাচাইয়ে ফটোকার্ডটিতে থাকা এনটিভি’র লোগো ও তারিখের সূত্র ধরে এনটিভি’র ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। সেখানে উক্ত শিরোনাম বা তথ্য সম্বলিত কোনো ফটোকার্ড খুঁজে পাওয়া যায়নি। এছাড়াও এনটিভি’র ওয়েবসাইট কিংবা অন্যকোনো গণমাধ্যমেও উক্ত দাবির বিষয়ে কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি। 

তবে ২৯ সেপ্টেম্বর আরটিভি’র ফেসবুক পেজে প্রচারিত দুইটি ফটোকার্ডের ডিজাইনের সাথে আলোচিত ফটোকার্ডের ডিজাইনে মিল খুঁজে পাওয়া যায়। ফটোকার্ডগুলো দেখুন এখানে এবং এখানে। এ থেকে ধারণা করা যায়, এই দুইটি ফটোকার্ডের মধ্যে যেকোনো একটিকে এডিট করে আলোচিত ফটোকার্ডটি তৈরি করা হয়েছে।

Photocard Analysis by Rumor Scanner 

এছাড়া, আজ ৩০ সেপ্টেম্বর গণমাধ্যমটি তাদের ফেসবুক পেজে ‘এনটিভি’র নামে ভুয়া প্রতারণা’ শীর্ষক দাবিতে সর্তক থাকার পরামর্শ সম্বলিত ফটোকার্ড দিয়ে পোস্ট দিয়ে জানায়, ‘যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নিষেধাজ্ঞায় বিএনপিবিষয়ক পোস্টারটি এনটিভি’র না।’ 

Screenshot: Ntv Facebook Post 

অর্থাৎ, বিএনপি’র নেতাদের ওপরমার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে দাবিতে এনটিভি কোনো ফটোকার্ড প্রকাশ করেনি। 

পাশাপাশি, কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে দৈনিক যুগান্তরে গত ২৪ সেপ্টেম্বর “যে কারণে ভিসা নিষেধাজ্ঞাপ্রাপ্তদের নাম প্রকাশ করে না যুক্তরাষ্ট্র” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গণতন্ত্র ও নির্বাচনি প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের ওপর আনুষ্ঠানিক ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ওয়াশিংটন। শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর)  এক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার এ সিদ্ধান্তের কথা জানান। তবে কোনো ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেনি যুক্তরাষ্ট্র।

কেন ভিসা নিষেধাজ্ঞা ব্যক্তিদের নাম প্রকাশ করা হয় না- এ বিষয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী সেক্রেটারি ডোনাল্ড লু বলেন, ভিসানীতির আওতায় ভিসা নিষেধাজ্ঞা যাদের দেওয়া হবে, তাদের নাম প্রকাশ করা হয় না। কারণ কাউকে ভিসা না দেওয়াসহ যে কোনো ভিসা রেকর্ড মার্কিন আইন অনুযায়ী গোপনীয় তথ্য।

তিনি আরও বলেন, সাক্ষ্যপ্রমাণ ভালোভাবে পর্যালোচনা করার পর আমরা আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, ক্ষমতাসীন দল ও বিরোধী রাজনৈতিক দলের সদস্যদের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

অর্থাৎ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভিসানীতিতে নিষেধাজ্ঞা প্রাপ্তদের নাম প্রকাশ করে না।

মূলত, গত ২২ সেপ্টেম্বর পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানায়, বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপের পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ওই ব্যক্তিদের মধ্যে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, ক্ষমতাসীন দল ও বিরোধী দলের সদস্যরা রয়েছেন। তবে গত ২৯ সেপ্টেম্বর বিএনপি নেতা তারেক রহমান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, রুহুল কবির রিজভী, আমানউল্লাহ আমান, হাবিব উন নবী সহ আরও ২৮০ জনের বিরুদ্ধে ভিসা নীতি আরোপ করা হয়েছে শীর্ষক দাবিতে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভি’র ডিজাইনে তৈরি একটি ফটোকার্ড  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হয়। তবে, অনুসন্ধানে জানা যায়, এনটিভি এমন কোনো সংবাদ বা ফটোকার্ড প্রকাশ করেনি। আলোচিত এই ফটোকার্ডটি ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় এডিট করে তৈরি করা হয়েছে। এছাড়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী সেক্রেটারি ডোনাল্ড লু’র বরাতে জানা যায়, ভিসা রেকর্ড মার্কিন আইন অনুযায়ী গোপনীয় তথ্য হওয়ায় ভিসা নিষেধাজ্ঞা পাওয়া ব্যক্তিদের নাম প্রকাশ করেনা যুক্তরাষ্ট্র।

উল্লেখ্য, গত আট মাসে বিভিন্ন গণমাধ্যমের নাম, লোগো, শিরোনাম এবং নকল ফটোকার্ড ব্যবহার করে অপপ্রচারের বিষয়ে বিস্তারিত ফ্যাক্ট ফাইল প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভিকে উদ্ধৃত করে বিএনপি নেতাদের ওপর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপের তথ্যটি মিথ্যা এবং প্রচারিত ফটোর্কাডটি এটিটেড বা বিকৃত। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img