শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মুসলিম শিক্ষার্থীদের জন্য নামাজ বাধ্যতামূলক করার তথ্যটি মিথ্যা

সম্প্রতি, “আগামী মাস থেকে দেশের প্রত্যেকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মুসলিম শিক্ষার্থীদের জন্য নামাজ বাধ্যতামূলক করা হবে – শিক্ষামন্ত্রী” শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানেএখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির বক্তব্য দাবি করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মুসলিম শিক্ষার্থীদের জন্য নামাজ বাধ্যতামূলক করা হবে দাবিতে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া তথ্যটি সত্য নয় বরং এই ধরণের কোনো বিষয় নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কিংবা শিক্ষা মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট কোনো দায়িত্বশীল ব্যক্তি কোনো বক্তব্য প্রদান করেননি।

কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এর ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ২০১৯ সালের ৫ ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত একটি পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়। যেখানে তিনি বিষয়টিকে গুজব বলে নিশ্চিত করেছেন।

নামাজ
Screenshot from Mohibul Hassan Chowdhoury Facebook Post

মূলত, ২০১৯ সাল থেকে বিভিন্ন সময়ে “শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মুসলিম শিক্ষার্থীদের জন্য নামাজ বাধ্যতামূলক করা হবে” দাবি করে কোনোরূপ তথ্য সূত্র ছাড়াই তথ্যটি সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার হয়ে আসছে। সাম্প্রতিক সময়ে একই তথ্যটি বিভিন্ন ফেসবুক পেজ ও গ্রুপের মাধ্যমে নতুন করে প্রচার করা হচ্ছে।

২০১৯ সালে ছড়িয়ে পড়া তথ্যটির প্রেক্ষিতে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীর ফেসবুক আইডি হতে প্রকাশিত এক পোস্টের মাধ্যমে জানানো হয়, “মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি বা আমি ধর্মীয় কোনো বাধ্যবাধকতা বা ধুমপান এই সমস্ত বিষয় নিয়ে কোনো আদেশ জারি করি নাই। প্রয়োজনবোধে আমরা এখতিয়ারাধীন যেকোনো বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রনালয় দ্বারা লিখিত আদেশ জারী করবো। উড়ো খবর দিয়ে ফেইক আইডি থেকে ছড়ানো তথ্য, ভালো হোক বা মন্দ হোক, সবসময়ই গুজব। গুজব থেকে সাবধান থাকুন”। শিক্ষা উপমন্ত্রীর এই ফেসবুক পোস্টের বরাতে সেই সময়ে একাধিক সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছিলো, দেখুন এখানে

মুসলিম
Screenshot from The Daily Campus website

 

আরো পড়ুনঃ উপবৃত্তির নামে মোবাইলে প্রেরিত ক্ষুদে বার্তাটি ভুয়া

উল্লেখ্য, চলতি বছরের জানুয়ারি মাসের ২১ তারিখ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের ঘোষণা দেওয়ার পর ফেব্রুয়ারির ২২ তারিখ পর্যন্ত দুই দফায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়িয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এই সময়ে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্ট অনেক বিষয়ে মন্তব্য গণমাধ্যমে খুঁজে পাওয়া গেলেও ধর্মীয় বিধিবিধান পালন সংক্রান্ত কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া নি।

সুতরাং, কোনো প্রকার দায়িত্বশীল সূত্র ব্যতীত, শিক্ষামন্ত্রীর মন্তব্য দাবি করে ‘আগামী মাস থেকে দেশের প্রত্যেকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মুসলিম শিক্ষার্থীদের জন্য নামাজ বাধ্যতামূলক করা হবে’ শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং মিথ্যা।

[su_box title=”True or False” box_color=”#f30404″ radius=”0″]

  • Claim Review: আগামী মাস থেকে দেশের প্রত্যেকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মুসলিম শিক্ষার্থীদের জন্য নামাজ বাধ্যতামূলক করা হবে
  • Claimed By: Facebook Posts
  • Fact Check: False

[/su_box]

তথ্যসূত্র

  1. Mohibul Hassan Chowdhoury Facebook Post: https://www.facebook.com/nowfel.chowdhury/posts/10101253603984731
  2. The Daily Campus: https://thedailycampus.com/education-ministry/18241/%E0%A6%A7%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A7%80%E0%A7%9F-%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%A7%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%A7%E0%A6%95%E0%A6%A4%E0%A6%BE-%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%87-%E0%A6%95%E0%A7%8B%E0%A6%A8%E0%A7%8B-%E0%A6%86%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B6-%E0%A6%9C%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%BF-%E0%A6%B9%E0%A7%9F%E0%A6%A8%E0%A6%BF-%E0%A6%B6%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B7%E0%A6%BE-%E0%A6%89%E0%A6%AA%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%80-
  3. BBC News Bangla: https://www.bbc.com/bengali/news-60230051

 

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img