সোমবার, এপ্রিল 22, 2024
spot_img

বসনিয়ার ছবিকে বঙ্গবন্ধু টানেলের ছবি দাবি গণমাধ্যমে

চলতি বছরের বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে চট্টগ্রামের বঙ্গবন্ধু টানেলের ছবি দাবিতে একটি ছবি প্রচার করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু টানেল

উক্ত ছবি ব্যবহার করে চলতি বছর (২০২৩) গণমাধ্যমের প্রতিবেদন ও সম্পাদকীয় দেখুন প্রথম আলো, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস), ডেইলি স্টার, বিডিনিউজ২৪ (ফেসবুক), চ্যানেল২৪, ইউএনবি, জনকণ্ঠ, নয়া দিগন্ত, একাত্তর টিভি, সময় টিভি, কালের কণ্ঠ, সমকাল, এটিএন নিউজ (ইউটিউব), ডেইলি সান, ডিবিসি নিউজ, ইত্তেফাক, এনটিভি, যুগান্তর, দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড, যমুনা টিভি (ইউটিউব), ইনডিপেনডেন্ট টিভি, নিউজ২৪ (ইউটিউব), নাগরিক টিভি (ইউটিউব), ডেইলি অবজারভার, ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস, আরটিভি, বাংলাভিশন, চ্যানেল আই, অর্থসূচক, বাংলানিউজ২৪, এটিএন বাংলা (ইউটিউব), যায়যায়দিন, ভোরের কাগজ, মানবজমিন, দেশ টিভি (ইউটিউব), দীপ্ত টিভি (ইউটিউব), ঢাকা টাইমস, একুশে টিভি, দেশ রূপান্তর, মানবকণ্ঠ, শেয়ার বিজ, কালবেলা, বাংলাদেশ জার্নাল, সময়ের আলো, বাংলা টিভি, সাম্প্রতিক দেশকাল, প্রতিদিনের সংবাদ, বিজয় টিভি (ইউটিউব), ঢাকা প্রকাশ, বিবিএস বাংলা, ডেইলি এশিয়ান এজ, এবিনিউজ২৪, বিজনেস পোস্ট, প্রতিদিনের বাংলাদেশ, বায়ান্ন টিভি, ঢাকা মেইল, বাংলাদেশ বুলেটিন, বাংলাদেশ টুডে, আমাদের সময়.কম, বাহান্ন নিউজ, আমাদের বার্তা, আলোকিত বাংলাদেশ, বাংলা ইনসাইডার, বিডি২৪রিপোর্ট, বিডি২৪লাইভ, বাংলাদেশ প্রতিদিন, নিউজজি২৪, আমার সংবাদ, সংবাদ প্রকাশ, ফ্রিডম বাংলা নিউজ, রিদ্মিক নিউজ, দৈনিক করতোয়া, ডেইলি বাংলাদেশ, বাংলাদেশ পোস্ট, সুখবর, বার্তা২৪, জুম বাংলা, বিবার্তা২৪, সময়ের কণ্ঠস্বর, আজকালের খবর, দৈনিক সংগ্রাম, স্টার সংবাদ, সোনালী নিউজ, রেডিও টুডে নিউজ, একুশে সংবাদ, নিউজনাউ২৪, বাংলাদেশ মোমেন্টস, জয় যুগান্তর, স্বাধীন আলো, জবাবদিহি, দ্য রিপোর্ট২৪, জনবাণী, বিজনেস জার্নাল, বাংলাদেশ পোস্ট, এসএ টিভি, সারা বাংলা, আমাদের নতুন সময়৷ 

উক্ত ছবি ব্যবহার করে ২০২২ সালে গণমাধ্যমের প্রতিবেদন দেখুন বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস), যমুনা টিভি (ইউটিউব), ইত্তেফাক, ইউএনবি, ডেইলি সান, এটিএন নিউজ (ইউটিউব), সারাবাংলা, মাইটিভি (ইউটিউব), প্রতিদিনের সংবাদ, নয়া শতাব্দী, বাংলাদেশ পোস্ট

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, আলোচিত ছবিটি বঙ্গবন্ধু টানেলের নয় বরং বসনিয়ার ২০১৪ সালে চালু হওয়া একটি টানেলের ছবিকে উক্ত দাবিতে প্রচার করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে বেলজিয়াম ভিত্তিক লাইটিং প্রযুক্তি সংযোজন প্রতিষ্ঠান Schreder এর ওয়েবসাইটে আলোচিত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Schreder

স্ক্রেডার (Schreder) মূলত বিভিন্ন বড় প্রজেক্টে লাইট বা আলো লাগানোর কাজ করে থাকে। আলোচিত টানেলটিতেও তারা একই কাজ করেছে। 

স্ক্রেডার বলছে, ‘March 1st’ নামের এই টানেলটি বসনিয়ায় অবস্থিত এবং এটি ২০১৪ সালেই চালু করা হয়েছে। 
একই ছবি বসনিয়ার একটি সংবাদমাধ্যমে ২০১৭ সালে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে দেখুন এখানে।

Screenshot: Visoko 

বিষয়টি নিয়ে আরো অনুসন্ধান করতে গিয়ে ইউটিউবের একাধিক চ্যানেলে ২০১৫ সাল পরবর্তী সময়ে টানেলটির একাধিক ভিডিও (, , ) খুঁজে পাওয়া যায়। ভিডিওগুলোতে টানেলের যে দৃশ্য দেখা যাচ্ছে তার সাথে আলোচিত ছবিটির দৃশ্যমান মিল পাওয়া যাচ্ছে। 

এ বিষয়ে আরো অনুসন্ধান করে বসনিয়ার সংবাদমাধ্যম Sarajevo Times এর ওয়েবসাইটে ২০১৪ সালের ২৬ আগস্ট প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে সেসময় টানেলটি চালু হওয়ার খবর জানা যায়।

Screenshot: Sarajevo Times

অর্থাৎ, আলোচিত ছবিটি চট্টগ্রামে উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা বঙ্গবন্ধু টানেলের নয়। 

বিষয়টি নিয়ে জানতে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে বহুলেন সড়ক টানেল নির্মাণ প্রকল্পের (বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল) পরিচালক মোঃ হারুনুর রশীদ চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনিও রিউমর স্ক্যানারকে নিশ্চিত করেছেন, ছবিটি বঙ্গবন্ধু টানেলের নয়। 

বঙ্গবন্ধু টানেলের ভেতরের দৃশ্য দেখতে কেমন? 

বসনিয়ার ছবিকে বঙ্গবন্ধু টানেলের দাবি করা হলেও বঙ্গবন্ধু টানেলের ভেতরের দৃশ্য অনেকটা বসনিয়ার টানেলের মতোই। একাধিক গণমাধ্যমের সাম্প্রতিক ভিডিও প্রতিবেদনে এমন দৃশ্যই দেখা গেছে। গণমাধ্যমে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত ভিডিও প্রতিবেদন দেখুন যমুনা টিভি, চ্যানেল২৪, সময় টিভি।

Screenshot: YouTube

আগামী ২৮ অক্টোবর টানেলটি উদ্বোধনকে সামনে রেখে টানেলের কাজের শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে এখন।

Image comparison: Rumor Scanner

মূলত, ২০২২ সাল থেকেই বাংলাদেশের গণমাধ্যমে বঙ্গবন্ধু টানেলের দাবিতে একটি টানেলের ভেতরের দৃশ্যের ছবি প্রচার করা হয়েছে। কিন্তু রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, উক্ত ছবিটি বঙ্গবন্ধু টানেলের নয়৷ বসনিয়ার ২০১৪ সালে চালু হওয়া একটি টানেলের ছবিকে উক্ত দাবিতে প্রচার করা হয়েছে। 

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু টানেল দাবিতে ভিন্ন স্থানের আরও দুইটি ছবি প্রচার করা হলে বিষয়টি নিয়ে দুইটি ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল রিউমর স্ক্যানার। 

প্রতিবেদনগুলো দেখুন 

সুতরাং, বসনিয়ার একটি টানেলের ছবিকে বঙ্গবন্ধু টানেলের ছবি দাবিতে গণমাধ্যমে প্রচার করা হয়েছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

হালনাগাদ / Upadte

২১ জানুয়ারি, ২০২৪ : এই প্রতিবেদন প্রকাশ পরবর্তী সময়েও কতিপয় গণমাধ্যমে একই দাবি প্রচার করার প্রেক্ষিতে সেসব গণমাধ্যমকেও দাবি হিসেবে প্রতিবেদনে যুক্ত করা হলো।

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img