হাথুরুসিংহেকে আইনের আওতায় আনতে হবে শীর্ষক কোনো মন্তব্য মাশরাফি করেননি

সম্প্রতি, ‘হাথুরুসিংহকে আইনের আয়তায় আনতে হবে মুশফিককে উদযাপনে বাধা দেওয়ায় মাশরাফি’ শীর্ষক থাম্বনেইল ও একই তথ্য সম্বলিত শিরোনামে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে।

হাথুরুসিংহেকে

ফেসবুকে প্রচারিত এমন ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ)

ইউটিউব চ্যানেলে প্রচারিত এমন ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

এই প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়া অবধি ফেসবুকে প্রচারিত ভিডিওটিই দেখা হয়েছে প্রায় ৩২ হাজার বার। এছাড়াও ভিডিওটিতে প্রায় ২ হাজার ৭০০ পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিক্রিয়াও দেখানো হয়েছে। পাশাপাশি ভিডিওটি ৪৯ বার শেয়ার করা হয়েছে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, মুশফিকুর রহিমকে হেলমেট উপযাপনে বাধা দেওয়ায়  মাশরাফি বিন মর্তুজা হাথুরুসিংহেকে আইনের আওতায় আনাতে হবে বলে  কোনো মন্তব্য করেননি। প্রকৃতপক্ষে, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে তার দেওয়া পুরোনো এক বক্তব্যের ভিডিওর কিছু অংশ কাট করে আলোচিত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি পর্যালোচনা করে রিউমর স্ক্যানার টিম। এতে ভিডিওটির শুরুতে মাশরাফি বিন মর্তুজাকে ‘ক্রিকেট বোর্ডের সবার কোড অফ কন্ডাক্ট থাকা উচিত। সবাইকে আইনের আওয়াতায় আসা উচিত’ শীর্ষক মন্তব্য করতে দেখা যায়। এরপর ভিডিওটির উপস্থাপক দাবি করেন, শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশ ওয়ানডে সিরিজে জয় লাভের পর মুশফিকুর রহিম অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে ব্যঙ্গ করে ‘হেলমেট উদযাপন’ করতে গেলে কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে মুশফিকুর রহিমকে হাত জোড় করে তাকে তা করতে বারণ করেন। যার প্রেক্ষিতে মুশফিককে উদযাপনে বাধা দেওয়ায় মাশরাফি বিন মর্তুজা ‘খেলার পর খেলোয়াড়রা উদযাপন করবে এটাই স্বাভাবিক বিষয়। তবে মুশফিককে উদযাপনে হাথুরুসিংহে যেভাবে বাধা দিয়েছেন এটা মেনে নেওয়ার মত না। তাই এসব বিষয়ে যাতে হাথুরুসিংহে আর হস্তক্ষেপ করতে না পারে সেজন্যে বিসিবির কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। প্রয়োজনে হাথুরুসিংহেকে আইনের আওতায় আনতে হবে।’ শীর্ষক মন্তব্য করেছেন। 

আলোচিত দাবিটির সত্যতা যাচাইয়ে ভিডিওর শুরুতে দেখানো মাশরাফি বিন মর্তুজার ক্লিপটির কয়েকটি কী-ফ্রেম রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে Ekattor TV এর ইউটিউব চ্যানেলে ২০২১ সালের ২৪ মার্চ শুধু ক্রিকেটাররাই কথা বলতে পারবেন না: মাশরাফি | Khelajog | Ekattor TV শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: Youtube 

ভিডিওটি পর্যালোচনা করে দেখা যায়, উক্ত ভিডিওর ৫৪ সেকেন্ড থেকে ১ মিনিট সময় পর্যন্ত অংশের সাথে আলোচিত ভিডিওতে থাকা মাশরাফি বিন মর্তুজার ক্লিপের হুবহু মিল রয়েছে।

Video Comparison by Rumor Scanner 

এছাড়াও ভিডিওটি থেকে জানা যায়, উক্ত ভিডিওটি মূলত একাত্তর টেলিভিশনের খেলাধুলা বিষয়ক অনুষ্ঠান খেলাযোগ-এ মাশরাফির দেওয়া সাক্ষাৎকারের ঘটনায় ধারণকৃত। ভিডিওটিতে তাকে বিসিবি‘র কর্মকাণ্ড নিয়ে নানা মন্তব্য করতে দেখা যায়। কোড অফ কন্ডাক্টের কারণে খেলোয়াড়রা বোর্ড নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে না পারলেও বোর্ডের কর্মকর্তারা খেলোয়াড়দের নিয়ে গণমাধ্যমের সামনে যা তা মন্তব্য করেন দাবি করে তিনি বলেন, ‘ক্রিকেট বোর্ডের সবার কোড অফ কন্ডাক্ট থাকা উচিত। সবাইকে আইনের আওতায় আসা উচিত। প্লেয়াররা শুধু কথা বলতে পারবে না আর সবাই যা মন চায় তাই বলে যাবে এটা তো হতে পারে না।’

তাছাড়াও ভিডিওটিতে তাকে হাথুরুসিংহে কিংবা মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে দেখা যায়নি। পাশাপাশি এটিও লক্ষ্য করা যায় যে ভিডিওটি বর্তমান সময়ের নয়; প্রায় তিন বছর পূর্বের।

অর্থাৎ, মাশরাফি বিন মর্তুজার ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তাদের নিয়ে করা পুরোনো মন্তব্যকে আলোচিত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। 

এছাড়াও মাশরাফি বিন মর্তুজা হাথুরুসিংহেকে নিয়ে এমন কোনো মন্তব্য করেছেন কিনা তা জানতে প্রাসঙ্গিক বিভিন্ন কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে গণমাধ্যম কিংবা কোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে এ বিষয়ে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

মূলত, গত ১৮ মার্চ চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আয়োজিত হয় বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচ। উক্ত ম্যাচে ৪ উইকেটে জয়ের মাধ্যমে ২-১ ব্যবধানে সিরিজে জয় লাভ করে বাংলাদেশ। সিরিজ জয়ের শিরোপা নিয়ে উদযাপনের সময় সবার মাঝে হেলমেট নিয়ে হাজির হন মুশফিকুর রহিম। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে ব্যঙ্গ করে ‘হেলমেট উদযাপন’ করতে গেলে সেসময় হাত জোড় করে তাকে তা করতে বারণ করেন কোচ চান্ডিকা হাথুরুসিংহে। যার প্রেক্ষিতে সম্প্রতি, মুশফিকুর রহিমকে ‘হেলমেট উদযাপন’-এ বাধা দেওয়ায় হাথুরুসিংহেকে আইনের আওতায় উচিত বলে মন্তব্য করেছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা দাবিতে একটি ভিডিও ইন্টানেটে প্রচার করা হয়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, মাশরাফি বিন মর্তুজা কোচ চান্ডিকা হাথুরুসিংহেকে নিয়ে আলোচিত মন্তব্যটি করেননি। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে তার দেওয়া পুরোনো এক বক্তব্যের ভিডিওর কিছু অংশ কাট করে আলোচিত ভিডিওটি প্রচার করা হচ্ছে।

সুতরাং, মুশফিককে উদযাপনে বাধা দেওয়ায় মাশরাফি হাথুরুসিংহেকে আইনের আওতায় আনতে বলেছেন দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচারিত তথ্যটি মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img