সোমবার, মে 20, 2024
spot_img

রেলস্টেশনে ব্লুটুথ ব্যবহারের কারণে ভিডিওর ব্যক্তিটি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হননি

সম্প্রতি, “মোবাইল ফোনে ব্লুটুথ চালু হওয়ার সাথে সাথে ট্র্যাকের হাই টেনশন ক্যাবল থেকে কারেন্ট এসে ইয়ার ফোনের মাধ্যমে মস্তিষ্কে পৌছালো এবং এরপর কি হলো?” শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। 

ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানেএখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা যায়, ট্রেনে বৈদ্যুতিক শক্তি প্রেরণের জন্য ব্যবহৃত “ওভারহেড ইকুইপমেন্ট” এর সাথে একটি বিপথগামী তারের সংস্পর্শ ঘটার কারণে তা উক্ত ব্যক্তির মাথায় পড়ার ফলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আহত হন তিনি।

ভিডিওটির কিছু স্থিরচিত্র রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে, গত ৮ ডিসেম্বর ভারতীয় গণমাধ্যম ‘India Today’ তে “Live wire falls on railway official at Kharagpur station | Caught on camera” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ভিডিওর বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়া ব্যক্তি একজন টিটিই। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের খড়গপুর রেল স্টেশনে দাঁড়িয়ে তিনি অন্য আরেকজন টিটিইর সঙ্গে কথা বলছিলেন। এমন সময় হাই ভোল্টেজের একটি তার তাঁর মাথায় পড়ে। আর তাতেই গুরুতর আহত হন তিনি।

পরবর্তীতে, চলতি বছরের ৯ ডিসেম্বর ভারতীয় গণমাধ্যম ‘The Indian Express’ এ “Ticket checker electrocuted at Kharagpur railway station, critical” শীর্ষক শিরোনামে আরেকটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদনে, বলা হয়েছে, “বুধবার বিকেলে পশ্চিমবঙ্গের খড়গপুর রেলস্টেশনে বৈদ্যুতিক তার গায়ে পড়ে একজন টিটিই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। গুরুতর আহত ব্যক্তি খড়গপুর রেলওয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।”

এছাড়াও, ভারতীয় গণমাধ্যম ‘NDTV’ তে গত ৮ ডিসেম্বর “Viral Video: Live Wire Falls On Ticket Collector Talking To Colleague” শীর্ষক শিরোনামে এই ঘটনায় আরও একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, “পশ্চিমবঙ্গের খড়গপুর রেলস্টেশনে হাই ভোল্টেজ লাইভ তার গায়ে পড়ে মারাত্মকভাবে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার পর অলৌকিকভাবে বেঁচে যান টিটিই। গুরুতর আহত ওই ব্যক্তি খড়গপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ক্যামেরায় ধরা পড়া ওই দুর্ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল এখন।” 

মূলত, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের খড়গপুর স্টেশনে ট্রেনে বৈদ্যুতিক শক্তি প্রেরণের জন্য ব্যবহৃত “ওভারহেড ইকুইপমেন্ট” এর সাথে একটি বিপথগামী তারের সংঘর্ষের ফলে হাই ভোল্টেজ একটি তার নীচে পড়ে যায়। আর ঐ স্থানে দাঁড়িয়ে দুইজন টিটিই কথা বলছিলেন। ফলে তারটি গায়ে পড়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারাত্মকভাবে আহত হন একজন টিটিই। বিদ্যুৎদগ্ধ হয়ে কয়েক সেকন্ডের মধ্যে দাঁড়ানো অবস্থা থেকে তিনি ট্রেন ট্র্যাকে পড়ে যান। দুর্ঘটনার ঐ মুহুর্তটি ক্যামেরায় ধরা পড়ে। পরবর্তীতে সেই ভিডিওটি রেলস্টেশনে ব্লুটুথ ব্যবহারের কারণে বৈদ্যুতিক শক লাগার দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ভিডিওর বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ঐ টিটিই’র নাম সুজন সিং সরদার।

সুতরাং, ভারতে রেলস্টেশনে হাই ভোল্টেজ তার গায়ে পড়ে ব্যক্তির বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ট্রেন ট্র্যাকে পড়ে যাবার ভিডিওকে বর্তমানে রেলস্টেশনে ব্লুটুথ ইয়ারফোন ব্যবহারে হাই টেনশন ক্যাবল থেকে কারেন্ট এসে ইয়ার ফোনের মাধ্যমে মস্তিষ্কে পৌঁছানোর কারণে ট্রেন ট্র্যাকে পড়ে যাওয়ার দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img