শনিবার, জুলাই 20, 2024
spot_img

বাংলাদেশ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচে আম্পায়ারদের ভূমিকা নিয়ে ধোনির নামে ভুয়া মন্তব্য প্রচার

চলমান আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪ এ নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে গত ১০ জুন প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকা বাংলাদেশকে ১১৪ রানের টার্গেট দেয়। দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ নির্ধারিত ২০ ওভারে ১০৯ রান করে ৪ রানে ম্যাচটি হেরে যায়। ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে ১৭তম ওভারের দ্বিতীয় বলে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে আম্পায়ার এলবিডব্লিউ দিয়েছিলেন। তবে রিভিউ নিয়ে উইকেট রক্ষা করেন তিনি। তবে লেগবাইয়ে যে চার হয়েছিল, আম্পায়ার আউট দিয়েছিলেন বলে সেটি ডেড বল হিসেবে গণ্য হয়। এছাড়াও, একই ম্যাচে আম্পায়ার্স কলে তাওহীদ হৃদয়ের আউটের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল।

এরই প্রেক্ষিতে, বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচে আম্পায়ারের দূর্ণীতি দেখে আমি অবাক হলাম- মহেন্দ্র সিং ধোনি শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার

প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন- এখানে (আর্কাইভ)।

ভিডিওটি ইতিমধ্যে প্রায় ১ লক্ষ বারের অধিক দেখা হয়েছে।

ইউটিউবে ভিডিওটি দেখুন- এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বাংলাদেশ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে আম্পায়ারের দুর্নীতি দেখে আমি অবাক হলাম শীর্ষক মন্তব্য মহেন্দ্র সিং ধোনির নয়। বরং, মহেন্দ্র সিং ধোনি ও তার স্ত্রী সাক্ষীর প্রযোজনা সংস্থা ‘ধোনি এন্টারটেইনমেন্ট’ এর প্রথম ছবি তামিল ‘এলজিএম’ এর অডিও ও ট্রেলার উন্মোচন উপলক্ষে অনুষ্ঠানে মহেন্দ্র সিংহ ধোনির বক্তৃতা আলোচিত দাবিতে প্রচার করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে এতে ভিডিওটির শুরুতে মহেন্দ্র সিং ধোনির একটি ভিডিও ক্লিপ দেখতে পাওয়া যায়। পরবর্তীতে ভিডিওটির উপস্থাপক বলেন, “আম্পায়ার বাংলাদেশের সাথে দুর্নীতি করে ম্যাচ হারিয়েছে। আম্পায়ারের দূর্ণীতি নিয়ে এবার চরম ক্ষেপেছে ধোনি। এর পর বিস্তারিত অংশে বলা হয়, “আইসিসির বাজে নিয়মের মারপ্যাচে গতকাল বাংলাদেশ ম্যাচ হেরেছে। এছাড়া, আম্পায়ারের বাজে সিদ্ধান্ত হারের আরেকটি বড় কারণ। আইসিসির নিয়ম বদলানো উচিত তা না হলে খেলার প্রতি মন উঠে যাবে ভক্তদের। বাংলাদেশ হারার পর আইসিসি এবং আম্পায়ারকে একবার ধুয়ে দিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি”

এছাড়াও বলা হয়, “ম্যাচে আম্পায়ারদের কয়েকটি বিতর্কিত সিদ্ধান্ত সমালোচনার জন্ম দেয়। এবার সেসব বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়ে আইসিসি এবং আম্পায়ারদের ধুয়ে দিল মহেন্দ্র সিং ধোনি। ক্রিকবাজকে দেওয়া এক ইন্টারভিউতে তিনি বলেন- আইসিসির এই নিয়মটি বদলানো উচিত। এটা মানতে সত্যি কষ্ট হয়। মাহমুদউল্লাহর পায়ে লেগে বল চার হয়ে গেলো এবং তারা দৌড়েও রান নিল কিন্তু আম্পায়ার আউট দেওয়ায় ডেট বল হয়ে যাওয়ায় একটি রানও পেলো না। আম্পায়ার কি চোখ কপালে রাখে নাকি তারা এটা দেখে আউট দিয়েছিল? এছাড়া, তাওহীদ হৃদয়কে যে বলটিতে আউট দিয়েছে স্ট্যাম্পের সামান্য টাচ করেছে আম্পায়ার কলের জন্য সে আউট হয়েছে। ম্যাচে কয়েকটি ওয়াইড দেওয়া হয়নি। মোট কথা সবগুেলো সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের বিপক্ষে গিয়েছে। আমি মানছি এর আগের ম্যাচগুলো ভালো আম্পায়ারিং করেছে তবে গতকাল মোটেও ভালো করেনি। আইসিসির ডেথ বলের নিয়মটি বদলানোর সাথে সাথে এই দুই আম্পায়ারকে নিয়ে তাদের দেওয়া আউটগুলোর ব্যাখ্যা জানতে চাওয়া উচিত। ওদের কারণেই বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে একটি ম্যাচ হেরে গেলো বাংলাদেশ।”

আলোচিত দাবিটির সত্যতা যাচাইয়ে ভিডিওটির শুরুতে থাকা মহেন্দ্র সিং ধোনির ভিডিও ক্লিপটির স্থিরচিত্র রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে ‘The Inside Story’ নামের ইউটিউব চ্যানেলে ২০২৩ সালের ১০ জুলাই ‘Ms Dhoni speech in LGM Audio Launch | Dhoni Entertainment | Harish Kalyan …’ শীর্ষক শিরোনামের ভিওিটির ৭ মিনিট ২৭ সেকেন্ড থেকে ৭ মিনিট ২৯ সেকেন্ড দৃশ্যের সাথে মিল পাওয়া যায়।

পরবর্তীতে, কিওয়ার্ড সার্চ করে ‘IndiaGlitz’ এর ওয়েবসাইটে ২০২৩ সালের ১১ জুলাই ’Excerpts of Thala Dhoni’s speech at the audio launch of his debut film ‘LGM’’ শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ‘ক্রিকেট দুনিয়ার কিংবদন্তি খেলোয়াড় মহেন্দ্র সিং ধোনি, স্ত্রী সাক্ষীর সাথে চলচ্চিত্র প্রযোজক হিসেবে নতুন পথচলা শুরু করলেন। তাদের প্রযোজনা সংস্থা ‘ধোনি এন্টারটেইনমেন্ট’ এর প্রথম ছবি হচ্ছে তামিল ‘এলজিএম’। এ ছবির অডিও ও ট্রেলার উন্মোচন উপলক্ষে মহেন্দ্র সিংহ ধোনি ও সাক্ষী সেসময় চেন্নাই গিয়েছিলেন। সেই অনুষ্ঠানের ধোনির বক্তৃতা ভাইরাল হয়েছে।’

এছাড়াও, দাবিটির সত্যতা যাচাইয়ে ‘Cricbuzz’ এর ওয়েবসাইটে আলোচিত দাবির পক্ষে  মহেন্দ্র সিং ধোনির এসংক্রান্ত কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

মূলত, চলমান টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ৪ রানে হেরেছে বাংলাদেশ। ম্যাচের ১৭তম ওভারের দ্বিতীয় বলে বল মাহমুদউল্লাহর পায়ে লেগে বাউন্ডারির বাইরে চলে যায়। লেগ বাই হিসেবে চার রান যোগ হওয়ার কথা বাংলাদেশের স্কোরবোর্ডে। কিন্তু আম্পায়ার প্রথমে আউট দেয়াতে নিয়মনুযায়ী সেই রান বাতিল হয়ে যায়। এছাড়াও, উক্ত ম্যাচে আম্পায়ার্স কলে তাওহীদ হৃদয়ের আউটের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। এরই প্রেক্ষিতে, আম্পায়ারের দুর্নীতি দেখে আমি অবাক হলাম দাবিতে একটি মন্তব্য মহেন্দ্র সিং ধোনির নামে প্রচার করা হয়েছে।  তবে, রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে আলোচিত দাবির সপক্ষে কোনো প্রমাণ মেলেনি। কোনো তথ্য প্রমাণ ছাড়াই অপ্রাসঙ্গিকভাবে  মহেন্দ্র সিং ধোনির ভিন্ন ঘটনার ভিডিও ব্যবহার করে আলোচিত দাবিটি প্রচার করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে, মহেন্দ্র সিং ধোনি বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচটি নিয়ে এমন কোনো মন্তব্য করেননি।

সুতরাং,  চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচে তাওহীদ রিদয়ের আউট ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ৪ রান নিয়ে আম্পায়ারের দেওয়া সিদ্ধান্ত নিয়ে আম্পায়ারের দুর্নীতি  দেখে আমি অবাক হলাম দাবিতে মহেন্দ্র সিং ধোনিকে উদ্ধৃত করে  প্রচারিত মন্তব্যটি সম্পূর্ণ ভুয়া ও বানোয়াট।

তথ্যসূত্র

হালনাগাদ/ Update

০২ জুলাই, ২০২৪ : এই প্রতিবেদন প্রকাশ পরবর্তী সময়ে ইউটিউবেও একই দাবি সম্বলিত ভিডিও আমাদের নজরে আসার প্রেক্ষিতে উক্ত ভিডিওকে প্রতিবেদনে দাবি হিসেবে যুক্ত করা হলো।

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img