পুরান ঢাকার প্রেক্ষাপটে আঁকা ছবিটি ঢাবি শিক্ষক কামালুদ্দিনের আঁকা নয়

সম্প্রতি, “ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের চিত্রশিল্পী’র শিক্ষক কামালুদ্দিন সাহেবের হাতের আকাঁ আরেকটি ছবি” শীর্ষক শিরোনামে একটি চিত্রকর্ম ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এমন কিছু পোস্টদেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। ভিডিওগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমার স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, প্রচারিত ছবিটি চিত্রশিল্পী কামালুদ্দিনের হাতে আকাঁ নয় বরং এটি নেত্রকোনা সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষক কামরুল হাসানের আঁকা ছবি।

গত ২৪ জুলাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপ এবং পেজে উল্লিখিত শিরোনামে ছবিটি প্রকাশ করা হয়। ছবিটি পর্যবেক্ষণ করে ছবির নিচে ডানপাশে একটি স্বাক্ষর পরিলক্ষিত হয় যেখানে kamrulhasan/2022 লেখা ছিলো।

পরবর্তীতে  কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, Kamrul Hasan নামের একটি ফেসবুক একাউন্টে My Arcylic works নামের এলবামে গত ৫ জুলাই story of old Dhaka-2 acrylic on canvas (24″x30″) শিরোনামে প্রকাশিত মূল ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। তার ঐ একাউন্ট থেকে জানা যায়, তিনি নেত্রকোনা সরকারি মহিলা কলেজের একজন শিক্ষক। 

মূলত, শিক্ষক কামরুল হাসান ৫ জুলাই তার ব্যক্তিগত ফেসবুক একাউন্টে পুরান ঢাকার প্রেক্ষাপটে তার নিজের আঁকা চিত্রটি প্রকাশ করেন। পরবর্তীতে বিভিন্ন ফেসবুক পেজ ও আইডি থেকে উক্ত চিত্রকর্মটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার শিক্ষক কামালুদ্দিন সাহেবের আঁকা ছবি দাবিতে প্রচার করা হয়।

তাছাড়া, কামরুল হাসানের আঁকা ছবিটি ঢাবির চারুকলার শিক্ষক কামালুদ্দিনের আঁকা ছবি দাবিতে ছড়িয়ে পড়া নিয়ে কামরুল হাসান নিজ ফেসবুক একাউন্টে বিষয়টি নিয়ে প্রতিক্রিয়াও জানান।

প্রসঙ্গত, কামালুদ্দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের শিক্ষক এবং একজন বরেণ্য চিত্রশিল্পী। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে তার নিজস্ব প্রোফাইল হতে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, শিক্ষক কামালুদ্দিন চারুকলায় অনার্স, মাস্টার্স অধ্যয়ন করে একই বিভাগের শিক্ষক হিসেবে তিনি যোগদান করেন। চিত্রকর্মের উপর তিনি দেশ-বিদেশে বিভিন্ন সম্মাননা পেয়েছেন।

সুতরাং, নেত্রকোনা সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষক কামরুল হাসানের আঁকা ছবিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের চিত্রশিল্পী’র শিক্ষক কামালুদ্দিন সাহেবের হাতের আকাঁ ছবি দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে; যা মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

শিক্ষক কামরুল হাসানের ফেইসবুক একাউন্ট : https://www.facebook.com/100004741780521/posts/2156648254503213/

https://www.facebook.com/100004741780521/posts/2182680331900005/
শিক্ষক কামাল উদ্দিনের প্রোফাইলঃ https://du.ac.bd/faculty/faculty_details/DDP/1795

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img