বুধবার, জুলাই 24, 2024
spot_img

গুচ্ছ এ ইউনিটের প্রশ্ন ফাঁসের গুজবে ডিজিটাল জালিয়াতি 

২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে ২৪টি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি (জিএসটি) গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা আজ শনিবার (২৭ এপ্রিল) শুরু হয়েছে। আজ এ ইউনিট—বিজ্ঞানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এই পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে পরীক্ষা শুরুর পূর্বে এবং পরে “ক ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে” শীর্ষক দাবিতে একটি পোস্ট ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। 

আজ এ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা দুপুর ১২টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। এর পূর্বে সকাল ১১ টা ০৬ মিনিটে ফেসবুকে ‘Mehedi Hasan Shuvo (আর্কাইভ)‘ নামক একটি অ্যাকাউন্ট থেকে প্রকাশিত একটি পোস্টে (আর্কাইভ) দাবি করা হয়,   GST A ইউনিট ভর্তি পরীক্ষা 2024 এর প্রশ্ন পরীক্ষা শুরুর আগেই দিয়ে দিলাম সময় সকাল 11টা 05 মিনিট।  যারা ইনবক্সে গিয়ে প্রুভ চাও তাদের জন্য শেষবারের মতো প্রশ্নের কিছু অংশ ফ্রি তে দিলাম। এইটুকু ই প্রমাণের জন্য যথেষ্ট।যাদের  গুচ্ছ,কৃষি গুচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার ১০০% কমন প্রশ্ন লাগবে তারা ইনবক্সে  যোগাযোগ করো।আমি এডভান্স টাকা ছাড়া প্রশ্ন সেল করিনা।যাদের এডভান্স করতে সমস্যা আছে তারা আমার থেকে দূরে থাকো।

টাকা ফিক্সড এবং এডভান্স। যারা বাংলা কম বুঝো দয়া করে তারা অযথা মেসেজ দিয়ে বিরক্ত  কইরোনা।

বিঃদ্রঃ এটাই আমার প্রমাণ দেওয়ার জন্য শেষ পোস্ট আমার আইডি থেকে আর কখনো এইভাবে পোস্ট হবে না। প্রমাণ অনেক দিছি আর কতো।”

পোস্টে একটি ছবি সংযুক্ত রয়েছে, যেখানে একটি ছাপা প্রশ্নের একাংশ দেখা যাচ্ছে।

একই অ্যাকাউন্ট থেকে আজ দুপুর ১ টা ২৪ মিনিটে আরেকটি পোস্ট (আর্কাইভ) করে তাতে একটি মেসেঞ্জারের স্ক্রিনশট যুক্ত করা হয়। উক্ত স্ক্রিনশটেও ছাপা প্রশ্নের একই অংশই দেখা যাচ্ছিল। এই পোস্টে দাবি করা হয়, “GST বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা ২০২৪ ‘ এ’ ইউনিট এর প্রশ্ন  ১০০% কমন দিলাম।নিচে স্কিনসট দেওয়া হলো। গুচ্ছ,কৃষি গুচ্ছ  বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার ১০০% কমন প্রশ্ন লাগলে  দ্রুত ইনবক্সে যোগাযোগ করো। টাকা ফিক্সড এবং এডভান্সড যারা বাংলা কম বুঝো তারা দয়া করে অযথা কোন মেসেজ দিয়ে ব্লক খাইয়ো না।যারা ইনবক্সে এসে প্রুব চাও তাদের জন্য।প্রমান তো অনেক দিলাম আর কত।”

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, গুচ্ছের এ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরুর আগেই ফেসবুকে প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে শীর্ষক দাবিটি সঠিক নয় বরং পরীক্ষা শুরুর পূর্বে প্রশ্নের ছবি ব্যতীত পোস্ট করে পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর ওই পোস্ট সম্পাদনা করে প্রশ্নের ছবিটি যুক্ত করে এই দাবিটি প্রচার করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে শুরুতে মেহেদী হাসান শুভ নামের কথিত এই অ্যাকাউন্টটির আজ সকালের পোস্টটির এডিট হিস্টোরি যাচাই করে দেখা যায়, সকাল ১১ টা ০৬ মিনিটে যখন পোস্ট করা হয়, তখন পোস্টে প্রশ্নপত্রের কোনো ছবি যুক্ত ছিল না। পরবর্তীতে দুপুর ০১ টা ১১ মিনিটে ওই পোস্টে প্রশ্নপত্রের ছবিটি যুক্ত করা হয়।

Screenshot collage: Rumor Scanner 

আমরা প্রশ্নপত্রের ছবিটির বিষয়ে অনুসন্ধান করে এটিরও মূল সূত্র খুঁজে পেয়েছি। প্রকাশনী প্রতিষ্ঠান জয়কলির ফেসবুক পেজে আজ দুপুর ১ টা ০৭ মিনিটে গুচ্ছ এ ইউনিটের প্রশ্নগুলো প্রকাশ করা হয়। সেখান থেকেই আলোচিত প্রশ্নের ছবিটি নিয়ে উক্ত দাবিটি প্রচার করা হয়েছে। দুইটি প্রশ্নের বিভিন্ন অংশ হুবহু মিল পেয়ে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে রিউমর স্ক্যানার। 

Screenshot comparison: Rumor Scanner 

মূলত, আজ ২৭ এপ্রিল গুচ্ছ এ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এই পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে একইদিন সকাল ১১ টা ০৬ মিনিট অর্থাৎ পরীক্ষার পূর্বে এবং পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর ফেসবুকে মেহেদী হাসান শুভ নামে একটি অ্যাকাউন্টে একটি প্রশ্নের ছবি যুক্ত করে দুই পোস্টের মাধ্যমে দাবি করা হয়, ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর দুপুর ০১ টা ১১ মিনিটে সকালের পোস্টটি সম্পাদনা করে ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নের ছবি (‌যা ফেসবুকে একটি প্রকাশনীর পেজ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে) যুক্ত করে উক্ত দাবিটি প্রচার করা হয়েছে। 

উল্লেখ্য, মেহেদী হাসান শুভ নামের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে এর পূর্বেও একাধিক ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের দাবি করা হয়। এ বিষয়ে রিউমর স্ক্যানারের ফ্যাক্টচেক দেখুন এখানে। 

সুতরাং, গুচ্ছ এ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে বলে যে দাবি করা হচ্ছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

  • জয়কলি: Facebook Post 
  • Rumor Scanner’s own analysis 
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img