শনিবার, মে 18, 2024
spot_img

সৌদি আরবের পতাকা খচিত ফুটবলের ছবিটি ২০১৮ সালের

সম্প্রতি “বিশ্বের মুসলমানরা কিভাবে এই বিশ্বকাপ ফুটবলকে সমর্থন করে আমার বুঝে আসেনা,যেখানে ফুটবলে কালিমা লেখা থাকে” শীর্ষক শিরোনামের একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত হচ্ছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এরকম কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

যা দাবি করা হচ্ছে

ছবিতে বেশকিছু ফুটবল দেখা যাচ্ছে যেখানে বিভিন্ন দেশের পতাকা অঙ্কিত করা হয়েছে। সেসকল পতাকার মধ্যে সৌদি আরবের পতাকাও দেখা যায়। প্রেক্ষিতে উক্ত ফুটবল চলতি ফিফা বিশ্বকাপে ব্যবহার করা হবে বলে দাবি করা হচ্ছে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সৌদি আরবসহ বিভিন্ন দেশের পতাকা মুদ্রিত ফুটবলটি সম্প্রতি ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ এ ব্যবহারের জন্য তৈরি করা হয় নি বরং ২০১৮ সাল থেকেই উক্ত ছবিটি ইন্টারনেটে পাওয়া যায়। 

রিভার্স ইমেজ সার্চ করার মাধ্যমে ২০১৮ সালের একটি টুইটে একই ছবি খুঁজে পাওয়া যায়। 

অনুসন্ধানে বাংলাদেশেও সৌদি আরবসহ বিভিন্ন দেশের পতাকা খচিত ফুটবলের ছবি ২০১৮ সালের ফুটবল বিশ্বকাপের সময় প্রচার হতে দেখা যায়।

পরবর্তীতে Alaraby.co.uk তে আরবি ভাষায় ২০১৮ সালের ৯ জুন প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনেও একই ছবি খুঁজে পাওয়া যায়।  

সেখানে উল্লেখ করা হয়,(গুগলের সহায়তায় আরবি থেকে ইংরেজি তে অনুবাদ করে)

Commentators transmitted pictures and clips showing a soccer ball with a group of flags of the countries participating in the 2018 World Cup in Russia, including the green Saudi flag bearing the word of monotheism, “There is no god but God, and Muhammad is the Messenger of God.”The angry people said that the presence of the Saudi flag on a soccer ball is not appropriate, because the word of monotheism carries greater holiness than the players throwing it at each other during a soccer ball.”

কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, ভারতীয় গণমাধ্যম The Siasat Daily তেও ২০১৮ সালের ১৯ জুন “FIFA: Muslims enraged over printing of Kalma-e-Tayyaba on football” শীর্ষক শিরোনামের একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়। উক্ত প্রতিবেদনে বলা হয় :

“Printing of Saudi Arabia’s flag on football by FIFA has sparked anger and concern among Muslims. Muslims from across the world protested on social media demanding the removal of the flag. It must be noted that Saudi Arabia’s flag has Kalma-e-Tayyaba written on it.” 

যার ভাবার্থ করলে দাঁড়ায়,

ফিফার ফুটবলে সৌদি আরবের পতাকা থাকায় মুসলিমদের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মুসলিমরা ফুটবল থেকে সৌদি আরবের পতাকা সরানোর দাবি করে। এই লক্ষনীয় যে সৌদি আরবের পতাকায় কালেমা ই তাইয়্যেবা লেখা রয়েছে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয় :

“Though FIFA will not be played with the football, however, it is likely that the FIFA will sell the football as a memorial or promotion after which non-Muslims can use it for the game.”

যার ভাবার্থ :

যদিও ফিফা উক্ত ফুটবল খেলার জন্য ব্যবহার করবে না। টুর্নামেন্টের স্মৃতিস্বরুপ বা প্রচারনার জন্য এই ফুটবল বিক্রি করবে। ফলে অমুসলিম ক্রেতারা বলটি কিনার পর খেলার জন্য ব্যবহার করতে পারেন।

চলতি কাতার বিশ্বকাপের যে বলটি ব্যবহার করা হচ্ছে তার Al Rihla, বলটিতে কোন দেশের পতাকার ছবি নেই। সাধারণত যে বল দিয়ে বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয় সে ফুটবলে কোন দেশের পতাকা খচিত থাকে না।

মূলত, ২০১৮ সালে রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত ফুটবল বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর পতাকা সম্বলিত ফুটবল তৈরি করা হয়। সৌদি আরব উক্ত বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী দলের একটি হওয়ায় তাদের পতাকায় ফুটবলে স্থান পায়। অপরদিকে সৌদি আরবের পতাকায় কালেমা তৈয়বা থাকায় এবং এটি ফুটবলে খচিত করায় মুসলিমদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। ২০১৮ সালের সেই পতাকা খচিত ফুটবলটিই সাম্প্রতিক সময়ে কাতার বিশ্বকাপের প্রেক্ষিতে প্রচার করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালেও সৌদির পতাকা সম্বলিত ফুটবল নিয়ে সমালোচনা হয়। সেসময় আমেরিকার মিলিটারির পক্ষ থেকে আফগানিস্তানের শিশুদের পতাকার ছবি সম্বলিত ফুটবল বিতরণ করা হয়। উক্ত ঘটনায় আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি নিউজে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। মূলত সৌদি আরবের পতাকা ফুটবলে খচিত থাকার বিষয়টি ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করবে বিষয়টি এভাবে তারা না ভাবায় এটি ঘটেছে বলে জানায় যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী। তবে এই ঘটনার সাথে ফিফার কোনো সম্পর্ক নেই। এছাড়া উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায় সৌদি আরব ইতিপূর্বে ফিফার ওয়ার্ল্ড কাপ রুলিং বডি কে তাদের পতাকা ফুটবলে ব্যবহার না করার বিষয়ে অভিযোগ করেছে।

সুতরাং, চলমান ২০২২ কাতার ফুটবল বিশ্বকাপে সৌদি আরবসহ বিভিন্ন দেশের পতাকা মুদ্রিত ফুটবল ব্যবহারের দাবিটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img