স্থাপত্যবিদ্যায় শীর্ষ ১৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে বাংলাদেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয় নেই শীর্ষক দাবিটি মিথ্যা

সম্প্রতি গণমাধ্যম এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দাবি করা হচ্ছে, কিউএস কর্তৃক প্রকাশিত ২০২৪ সালের Architecture & Built Environment বিভাগের র‌্যাঙ্কিংয়ের তালিকায় শীর্ষ ১৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে নেই বাংলাদেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয়। 

১৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের

উক্ত দাবিতে গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড

উক্ত দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ২০২৪ সালের কিউএস ওয়ার্ল্ড র‌্যাঙ্কিংয়ে স্থাপত্যবিদ্যা বিভাগে সেরা ১৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয় নেই শীর্ষক দাবিটি সঠিক নয় বরং, তালিকার ২০১ থেকে ২৪০তম স্থানের মধ্যে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম উল্লেখ রয়েছে।

এ বিষয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে কোয়াককোয়ারেলি সায়মন্ডস (কিউএস) এর ওয়েবসাইটে স্থাপত্যবিদ্যায় ২০২৪ সালের র‌্যাঙ্কিং এর অনুসন্ধান করলে চলতি বছরের গত ১০ এপ্রিল তারিখে প্রকাশিত উক্ত Architecture & Built Environment বিভাগের র‌্যাঙ্কিংয়ের তালিকাটি পাওয়া যায়। 

তালিকাটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, ৯৭.৪ স্কোর পেয়ে যুক্তরাজ্যের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের বার্টলেট স্কুল অফ আর্কিটেকচার শীর্ষস্থান দখল করেছে। ৯৫.৪ স্কোর পেয়ে দ্বিতীয় স্থান দখল করেছে যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি (এমআইটি) এবং ৯৩.২ স্কোর পেয়ে তৃতীয় স্থানে আছে নেদারল্যান্ডসের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ডেলফট ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি। 

উক্ত তালিকায় ২০১-২৪০তম স্থানে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর নাম দেখতে পাওয়া যায়। 

Photo : QS Top Universities

তবে বুয়েট কত স্কোর পেয়ে উক্ত স্থান দখল করেছে তা জানা সম্ভব হয়নি। 

উল্লেখ্য, ২০২৪ সালের বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাঙ্কিংয়ে ৫৫টি বিভাগ মিলিয়ে ১৫০০ এরও অধিক বিশ্ববিদ্যালয়কে তালিকার অন্তর্ভুক্ত করা হলেও উক্ত Architecture & Built Environment এর তালিকায় ২৪০তম স্থান পর্যন্তই বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা খুঁজে পাওয়া যায় এবং উক্ত শীর্ষ ২৪০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যেই বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)ও একটি।

মূলত, গত ১০ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা বিষয় নিয়ে জনপ্রিয় র‌্যাঙ্কিং প্রকাশকারী প্রতিষ্ঠান কিউএস Architecture & Built Environment বিভাগের র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ করে। উক্ত র‌্যাঙ্কিংয়ের বরাতে সম্প্রতি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দাবি করা হচ্ছে, বাংলাদেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপত্যবিদ্যায় কিউএস এর প্রকাশ করা র‌্যাঙ্কিংয়ের তালিকায় শীর্ষ ১৫০০ তে স্থান পায়নি। কিন্তু রিউমর স্ক্যানার যাচাই করে দেখেছে, উক্ত বিভাগে ২৪০তম স্থান পর্যন্ত তালিকা খুঁজে পাওয়া যায় এবং উক্ত শীর্ষ ২৪০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)ও একটি। বুয়েট উক্ত র‌্যাঙ্কিংয়ের তালিকার ২০১-২৪০তম স্থান দখল করেছে। 

সুতরাং, কিউএস কর্তৃক প্রকাশিত ২০২৪ সালের স্থাপত্যবিদ্যা বিভাগের র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ ১৫০০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় বাংলাদেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থান হয়নি শীর্ষক দাবিটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img