রবিবার, জুলাই 21, 2024
spot_img

ব্যারিস্টার সুমনকে সংসদ থেকে বহিষ্কারের গুজব টিকটকে

গত ১১ জুন হবিগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সায়েদুল হক সুমনকে লিখিতভাবে সংসদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে শীর্ষক দাবিতে শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম টিকটকে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়েছে। 

সংসদ

উক্ত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

এই প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়া অবধি ভিডিওটি দেখা হয়েছে ৪ লক্ষ ১৪ হাজারের অধিক বার।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমনকে সংসদ থেকে বহিষ্কার করার দাবিটি সঠিক নয় বরং, অধিক ভিউ পাওয়ার আশায় ভুয়া তথ্য পুরনো সংবাদের ফুটেজ ব্যবহার করে আলোচিত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে ভিডিওটিতে কোথাও ব্যারিস্টার সুমনকে সংসদ থেকে বহিষ্কারের দাবি সম্পর্কিত কোনো সংবাদ ও সোর্স উপস্থাপন করা হয়নি। এমনকি ভিডিওটিতে আলোচিত দাবির সাথে প্রাসঙ্গিক কোনো তথ্যেরও উল্লেখ পাওয়া যায়নি। অর্থাৎ ভিডিওটি’র প্রচারিত দাবিটির সাথে বিস্তারিত অংশের অসামঞ্জস্যতা রয়েছে।

ভিডিওর শুরুতে সংসদে ব্যারিস্টার সুমনকে অপমান করায় তার এলাকাবাসী মানববন্ধন করেছে দাবিতে একটি ভিডিও দেখানো হয়। তবে কি-ওয়ার্ড সার্চ করে উক্ত মানববন্ধনের কিছু ছবি খুঁজে পাওয়া যায়। মূলত ২০১৯ সালে ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাননার দায়ে গৌতম কুমার এডবর নামে রাজধানীর ভাষানটেকের এক ব্য‌ক্তির করা মামলার প্রতিবাদে সিলেটের হবিগঞ্জে মানববন্ধনটি করা হয়। 

পরবর্তীতে, প্রচারিত ভিডিওতে পরপর কয়েকটি সংবাদ ও সংসদে বক্তব্যের  ফুটেজ দেখানো হয় এবং দাবি করা হয় ব্যারিস্টার সুমনকে সংসদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে রিভার্স ইমেজ ও কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধান করে প্রতিটি ফুটেজের মূল ভিডিও খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম। এরমধ্যে কিছু সংবাদের ফুটেজ মূলত ২০২১ সালে যুবলীগ থেকে ব্যারিস্টার সুমনকে সাময়িক অব্যাহতি দেয়ার বিষয়ে প্রচারিত সংবাদ। এছাড়াও, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনাল থেকে ব্যারিস্টার সুমন পদত্যাগের সংবাদও প্রচারিত ভিডিওতে দেখানে হয়।

Screenshot Collage: Rumor Scanner

আলোচিত ভিডিওতে প্রথমে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ইন্ডিপেনডেন্ট টিভির একটি ফুটেজ দেখানো হয়। এরপর, ভিডিওতে ব্যারিস্টার সুমনের চলতি বছরের ৬ ফেব্রুয়ারি সংসদে ভিন্ন বিষয়ে বক্তব্য দেয়ার একটি ভিডিও যুক্ত করা হয়। পরবর্তীতে  সংসদে ২০২২ সালে সংসদে তৎকালীন এমপি হারুন ও বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর মধ্যকার উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের ফুটেজ প্রচারিত ভিডিওতে যুক্ত করা হয়। এরপর ধারাবাহিকভাবে ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভি, চ্যানেল ২৪, যমুনা টিভি, ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভি, মাইটিভির সংবাদের ফুটেজ দেখানো হয়। তারপর একজন উপস্থাপক ব্যারিস্টার সুমনকে সংসদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে দাবিতে প্রমাণ ছাড়াই কিছু তথ্য দেন। 

Screenshot Collage: Rumor Scanner

উল্লেখ্য, একজন সংসদ সদস্যকে সংসদ থেকে বহিষ্কার করা হলে তা অবশ্যই মূলধারার গণমাধ্যমগুলোতে গুরুত্বের সাথে প্রচার করা হতো। তবে অনুসন্ধানে মূলধারার গণমাধ্যমে এমন কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি। বরং প্রচারিত দাবির ভিডিও প্রকাশ পরবর্তী সময়ে ব্যারিস্টার সুমন গত ২৪ জুন দ্বাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশনে অংশ নেন বলে গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়।

মূলত, সাম্প্রতিক সময়ে টিকটকে প্রকাশিত এক ভিডিওতে হবিগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমনকে সংসদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে দাবি করা হয়। কিন্তু অনুসন্ধানে জানা যায়, দাবিটি সঠিক নয়। পুরোনো ও ভিন্ন ঘটনার বিভিন্ন ফুটেজ ব্যবহার করে ভুয়া এই দাবিটি প্রচার করা হয়েছে।

সুতরাং, জাতীয় সংসদ থেকে ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমনকে বহিষ্কার করা হয়েছে দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img