ব্যারিস্টার সুমনকে গ্রেফতারের গুজব

গত ২৯ এপ্রিল ‘আস-সুন্নাহ টিভি’ নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে ‘সংসদে ওবায়দুল কাদেরকে রাস্তার টাকা চোর বলে এইমাত্র গ্রেফতার ব্যারিস্টার সুমন’ শীর্ষক থাম্বনেইল ব্যবহার করে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়েছে।

ব্যারিস্টার সুমন

ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

এই প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়া অবধি ভিডিওটি প্রায় ৯ হাজার বার দেখা হয়েছে। ভিডিওটিতে ৩ শতাধিক পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, হবিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন জাতীয় সংসদের অধিবেশনে বসে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুলকে কাদেরকে ‘রাস্তার টাকা চোর’ বলে সম্বোধন করেননি এবং তার গ্রেফতার হওয়ার দাবিটিও সঠিক নয় বরং নির্ভরযোগ্য কোনো তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই ভিন্ন প্রেক্ষাপটের ভিডিও যুক্ত করে তাতে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে ভিন্ন অডিও যুক্ত করে উক্ত দাবি সম্বলিত থাম্বনেইল ব্যবহার করে আলোচিত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। উক্ত ভিডিওটিতে সংসদ অধিবেশনে ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন ও ওবায়দুল কাদেরকে দুটো আলাদা ভিডিও ক্লিপে বক্তব্য দিতে দেখা যায়। তবে সেখানে কোথাও ব্যারিস্টার সুমনকে ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে কোনো কটুক্তি কিংবা ‘রাস্তার টাকা চোর’ শীর্ষক মন্তব্য করতে দেখা যায়নি।

ভিডিও যাচাইঃ ০১

আলোচিত ভিডিওটির ব্যারিস্টার সুমনের বক্তব্যের অংশ থেকে কিছু স্থিরচিত্র নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল মাছরাঙা টিভির ইউটিউব চ্যানেলে গত ২১ ফেব্রুয়ারি ‘মিউনিখ শহরকে বার্লিন বললেন ব্যারিস্টার সুমন। ভুল ধরিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

Video Comparison by Rumor Scanner

এই ভিডিওটির সাথে আলোচিত ভিডিওটির ব্যাকগ্রাউন্ড এবং আনুষঙ্গিক বিষয়বস্তুর মিল পাওয়া যায়। তবে ভিডিওটির অডিও অংশের সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে দেখানো ব্যারিস্টার সুমনের অডিও অংশের মিল পাওয়া যায়নি। ভিডিওটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত যাচাই করে সেখানেও কোথাও ব্যারিস্টার সুমনকে ওবায়দুল কাদের সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করতে দেখা যায়নি। বরং সেখানে তিনি ইসরায়েল-প্যালেস্টাইন এবং নিজ সংসদীয় আসনের অন্যান্য বিষয়ে কথা বলেন।

অর্থাৎ, এই ভিডিওটির সাথে আলোচিত দাবির কোনো সম্পর্ক নেই।

অডিও যাচাইঃ

আলোচিত ভিডিওটিতে প্রচারিত ব্যারিস্টার সুমনের বক্তব্যের ভিডিওটির সাথে সংযুক্ত অডিওটির অনুরূপ বক্তব্যের একটি ভিডিও Jago Baul Media নামের একটি ফেসবুক পেজে খুঁজে পাওয়া যায়; যা ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পোস্ট করা হয়েছিল। তবে সেখানেও তাকে ওবায়দুল কাদেরের বিষয়ে কোনো মন্তব্য কর‍তে দেখা যায়নি।

অর্থাৎ, এই অডিওটি ২০২৩ সালের এবং দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পূর্বের।

ভিডিও যাচাইঃ ০২

আলোচিত ভিডিওটি থেকে ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের অংশ থেকে কিছু স্থিরচিত্র নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভির ইউটিউব চ্যানেলে ২০২২ সালের ০৬ নভেম্বর ‘সংসদে যে কারণে ক্ষেপলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। এই ভিডিওটির সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে দেখানো ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের ভিডিও ক্লিপটির হুবহু মিল পাওয়া যায়। সেখানে ওবায়দুল কাদেরকে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ইস্যুতে রাজনৈতিক বক্তব্য দিতে দেখা যায়। তাকে ব্যারিস্টার সুমনের বিষয়ে কোনো মন্তব্য কর‍তে দেখা যায়নি।

Video Comparison by Rumor Scanner

অর্থাৎ, এই ভিডিওটি সাম্প্রতিক সময়ের নয় এবং এর সাথে আলোচিত দাবির কোনো সম্পর্ক নেই।

তাছাড়া গণমাধ্যম কিংবা সংশ্লিষ্ট অন্যকোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে ব্যারিস্টার সুমনের কোনো কটুক্তি বা ‘রাস্তার টাকা চোর’ শীর্ষক মন্তব্যের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি।

পরবর্তীতে মূলধারার গণমাধ্যম সময় টিভির ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে গত ০৪ মে ‘নিজেকে প্রতিনিয়ত যাচাই করি’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Somoy TV Facebook

এছাড়াও, ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে সাম্প্রতিক সময়ে তার বিভিন্ন কার্যক্রমে (, , ) অংশ নেওয়ার বিষয়ে তথ্য পাওয়া যায়। যার সবগুলোই তার গ্রেফতার হওয়ার দাবির পরবর্তী সময়ের।

তাছাড়া গণমাধ্যম বা অন্যকোনো সূত্রে ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের গ্রেফতারের কোনো তথ্য বা সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

অর্থাৎ, তিনি গ্রেফতার হননি বরং তিনি রাজনৈতিক ও বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমে নিয়মিত অংশ নিচ্ছেন।

মূলত, সাম্প্রতিক সময়ে আস-সুন্নাহ টিভি নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে ‘সংসদে ওবায়দুল কাদেরকে রাস্তার টাকা চোর বলে এইমাত্র গ্রেফতার ব্যারিস্টার সুমন’ শীর্ষক থাম্বনেইল ব্যবহার করে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়েছে। তবে অনুসন্ধানে জানা যায়, উক্ত দাবিটি সঠিক নয়। ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে ভিন্ন অডিও ও ভিডিও যুক্ত করে আলোচিত দাবি সম্বলিত ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে ‘রাস্তার টাকা চোর’ শীর্ষক মন্তব্য করেননি এবং তিনি গ্রেফতারও হননি।

উল্লেখ্য, পূর্বেও ব্যারিস্টার সুমন ও ওবায়দুল কাদেরের বিষয়ে ইন্টারনেটে প্রচারিত বিভিন্ন ভুয়া তথ্য শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে ‘রাস্তার টাকা চোর’ বলে গ্রেফতার হয়েছেন দাবিতে ইউটিউবে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img