শুক্রবার, সেপ্টেম্বর 22, 2023
spot_img

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ক্লোনিংয়ের দাবিটি মিথ্যা

সম্প্রতি, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট ক্লোন করা হচ্ছে শীর্ষক দাবিতে একটি তথ্য ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। 

যা দাবি করা হচ্ছে

ফেসবুকে প্রচারিত পোস্টগুলোতে একটি সতর্কীকরণ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বলা হচ্ছে-

“বিভিন্ন সূত্র জানাচ্ছে যে, আমাদের প্রায় সবার একাউন্ট ক্লোন করা হচ্ছে। আপনার প্রোফাইল পিকচার এবং নাম দিয়ে আরেকটি একাউন্ট খোলা হচ্ছে। এরপর তারা আপনার বন্ধুকে বন্ধুত্বের রিকোয়েস্ট পাঠাচ্ছে। আর আপনার বন্ধুরা আপনি ভেবে তা গ্রহণ করছে। আর আপনাকে ফাঁসাতে বিভিন্ন সরকার বিরোধী, ধর্মবিরোধী যা লেখা/ছবি পোস্ট করবে। এই সুযোগে এই দল তাদের বার্তা ছড়াবে আপনার পরিচয়ে।”

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সাম্প্রতিক সময়ে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ক্লোন হওয়ার দাবিটি সঠিক নয় বরং কোনো তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই দীর্ঘদিন ধরে আলোচিত এই দাবিটি ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে। 

গুজবের সূত্রপাত

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে বাংলাদেশি ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে এই দাবির পুরোনো বা প্রথম দিকের পোস্ট হিসেবে Azam Khan নামের একটি ভেরিফাইড অ্যাকাউন্টে ২০১৮ সালের ৭ আগস্ট প্রচারিত একটি পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Facebook

পরবর্তীতে প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে FOX 5 WASHINGTON DC এর ওয়েবসাইটে ২০১৬ সালের পহেলা জুলাই ‘Facebook cloning scam targets potential victims with simple friend request’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: FOX 5 WASHINGTON DC

এই প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ক্লোন করার বিষয়টি ২০১৬ সালেও ইংরেজি ভাষায় ছড়িয়েছিলো। 

অর্থাৎ, ইংরেজি ভাষায় প্রচারিত এই দাবিটিই পরবর্তীতে বাংলায় অনুবাদের মাধ্যমে দীর্ঘদিন ধরে প্রচার হয়ে আসছে।

অনুসন্ধানে ভারতীয় গণমাধ্যম The Indian Express এর ওয়েবসাইটে ২০১৮ সালের ০৯ অক্টোবর ‘New hoax spreads on Facebook: No, your account has not been cloned’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: The Indian Express

প্রতিবেদনে Washington Post এবং USA Today এর বরাতে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ক্লোনিংয়ের বিষয়টি জানিয়ে এটিকে মিথ্যা বলে উল্লেখ করা হয়। 

পরবর্তীতে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক ম্যাগাজিন Time এর ওয়েবসাইটে ২০১৮ সালের ০৭ অক্টোবর ‘Worried Your Facebook Account Has Been Cloned? Here’s What to Know About This New Hoax’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Time

প্রতিবেদনে নিউইয়র্ক ভিত্তিক মিডিয়া WSYR বরাতে ফেসবুক কর্মকর্তাদের বক্তব্য উল্লেখ করে বলা হয়, ‘সাম্প্রতিক ভাইরাল হওয়া ফেসবুক ক্লোনিং বিষয়ক তথ্যটি বাস্তবে ক্লোন হওয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টের সাথে সম্পৃক্ত নয় বা এটি সেপ্টেম্বরে ঘটে যাওয়া ডেটা লঙ্ঘনের সাথে সম্পর্কিত নয়।’

অর্থাৎ, উপরোক্ত তথ্য উপাত্ত পর্যালোচনা করলে এটা প্রতীয়মান হয় যে, সম্প্রতি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ক্লোন হওয়ার বিষয়টি সঠিক নয়। 

পাশাপাশি, সাম্প্রতিক সময়ে কোনো ব্যবহারকারীদের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ক্লোন হয়েছে বলে কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

মূলত, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট ক্লোন করা হচ্ছে দাবিতে একটি তথ্য ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। তবে অনুসন্ধানে আলোচিত দাবিটির সত্যতা পাওয়া যায়নি। কোনো নির্ভরযোগ্য তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই দীর্ঘদিন ধরে আলোচিত এই দাবিটি ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে। 

উল্লেখ্য, পূর্বেও ফেসবুক অ্যাকাউন্টের সুরক্ষা যাচাইয়ের পদ্ধতি এবং অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়া না হওয়ার পরীক্ষা দাবিতে প্রচারিত তথ্যগুলোকে মিথ্যা শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। 

সুতরাং, সাম্প্রতিক সময়ে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ক্লোন হওয়ার দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img