রবিবার, জুলাই 21, 2024
spot_img

তরমুজ নিয়ে ব্যবসায়ীদের চ্যালেঞ্জ সংক্রান্ত কালের কণ্ঠের নামে প্রচারিত ফটোকার্ডটি ভুয়া 

সম্প্রতি, “রমজানে জনগণ ৭ দিন তরমুজ না খেয়ে থাকতে পারলে কেজি দরে তরমুজ বিক্রি করা ছেড়ে দিবো; ব্যবসায়ীদের চ্যালেঞ্জ” শীর্ষক শিরোনামে বা তথ্যে কালের কণ্ঠের ডিজাইন সম্বলিত একটি ফটোকার্ড সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। 

তরমুজ

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, তরমুজ নিয়ে ব্যবসায়ীদের চ্যালেঞ্জ সংক্রান্ত কোনো ফটোকার্ড বা সংবাদ জাতীয় দৈনিক কালের কণ্ঠ প্রকাশ করেনি বরং ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে উক্ত ফটোকার্ডটি তৈরি করা হয়েছে। 

অনুসন্ধানের শুরুতে  ফটোকার্ড পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। এতে জাতীয় দৈনিক কালের কণ্ঠের একটি লোগো দেখা যায়। তবে ফটোকার্ডটি প্রচারের কোনো তারিখ উল্লেখ করা হয়নি।

পরবর্তীতে দাবিটির সত্যতা যাচাইয়ে কালের কণ্ঠের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে প্রচারিত ফটোকার্ডগুলো পর্যালোচনা করে উক্ত শিরোনাম বা তথ্য সম্বলিত কোনো ফটোকার্ড খুঁজে পাওয়া যায়নি। এছাড়াও কালের কণ্ঠ’র ওয়েবসাইট কিংবা অন্যকোনো গণমাধ্যমেও উক্ত দাবিতে প্রচারিত কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি।

ইন্টারনেটে ওপেন সোর্স অনুসন্ধানে আলোচিত দাবির প্রেক্ষিতে কোনো তথ্য-প্রমাণ না পাওয়ায় পরবর্তীতে বিষয়টির অধিকতর সত্যতা যাচাইয়ের লক্ষ্যে দৈনিক কালের কণ্ঠের সহকারী ফিচার সম্পাদক দাউদ হোসাইন রনির সাথে কথা হয় রিউমর স্ক্যানার টিমের।

তিনি রিউমর স্ক্যানারকে জানান, ‘কালের কন্ঠ এমন কোনো ফটোকার্ড প্রকাশ করেনি। এটি ফেক।’

এছাড়া কালের কণ্ঠের ফেসবুক পেজে প্রচারিত ফটোকার্ডগুলোর সাথে আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ফটোকার্ডটির গ্রাফিক্যাল ডিজাইনের মিল থাকলেও শিরোনামে ব্যবহৃত ফন্টের সুস্পষ্ট ভিন্নতা দেখা যায়।

Photocard Comparison: Rumor Scanner

অর্থাৎ, দৈনিক কালের কণ্ঠের ফটোকার্ড দাবিতে প্রচারিত ফটোকার্ডটি ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় এডিট করে তৈরি করা হয়েছে। 

এছাড়া, রমজানে ব্যাবসায়ীদের পক্ষ থেকে ৭ দিন তরমুজ না খাওয়ার চ্যালেঞ্জ দেওয়ার দাবির বিষয়ে প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চ করে কোনো গণমাধ্যম কিংবা বিশ্বস্ত সূত্রে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

মূলত, সম্প্রতি “রমজানে জনগণ ৭ দিন তরমুজ না খেয়ে থাকতে পারলে কেজি দরে তরমুজ বিক্রি করা ছেড়ে দিবো; ব্যবসায়ীদের চ্যালেঞ্জ” শীর্ষক শিরোনামে বা তথ্যে জাতীয় দৈনিক কালের কণ্ঠের ডিজাইন সম্বলিত একটি ফটোকার্ড সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, কালের কণ্ঠ এমন কোনো ফটোকার্ড প্রকাশ করেনি। প্রকৃতপক্ষে ইন্টারনেট থেকে কালের কণ্ঠের ফটোকার্ড সংগ্রহ করে তা ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনা করে আলোচিত ফটোকার্ডটি তৈরি করা হয়েছে। দৈনিক কালের কণ্ঠের সহকারী ফিচার সম্পাদক দাউদ হোসাইন রনিও ফটোকার্ডটি ভুয়া বলে জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, পূর্বেও বিভিন্ন গণমাধ্যমের নামে ভুয়া ফটোকার্ড প্রচার করা হলে সেগুলো তা শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। 

সুতরাং, রমজানে ব্যাবসায়ীদের পক্ষ থেকে ৭ দিন তরমুজ না খাওয়ার চ্যালেঞ্জ দেওয়ার দাবিটি মিথ্যা এবং উক্ত দাবিতে দৈনিক কালের কণ্ঠের নামে প্রচারিত ফটোকার্ডটি ভুয়া। 

তথ্যসূত্র

  • Kaler Kantho – Facebook
  • Kaler Kantho – Website
  • Statement from Daud Hossain Rony
  • Rumor Scanner’s Own Analysis 
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img