দেশ ও ধর্মকে জড়িয়ে ক্রিকেটার লিটন দাসের নামে ভুয়া মন্তব্য প্রচার

সম্প্রতি, লিটন দাস “ভালো খেললে আমি বাংলাদেশি, আর খারাপ খেললে আমি হিন্দু” শীর্ষক মন্তব্য করেছেন দাবিতে একটি ডিজিটাল ব্যানার ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এরূপ পোস্ট দেখুন এখানে(আর্কাইভ)।

টুইটারে একই দাবিতে প্রচারিত কিছু টুইট দেখুন এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, দেশ ও ধর্মকে জড়িয়ে আলোচিত  মন্তব্যটি লিটন দাস করেননি বরং সাবেক জার্মান ফুটবলার মেসুত ওজিলের সমধর্মী বক্তব্যের অনুকরণে একটি ডিজিটাল ব্যানার তৈরি করে লিটন দাসের উক্তি দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে।

দাবিটির সত্যতা যাচাইয়ে শুরুতেই মূলধারার গণমাধ্যমে লিটন দাসের আলোচ্য উক্তিটির বিষয়ে অনুসন্ধান করে রিউমর স্ক্যানার টিম। কিন্তু, জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক কোনো গণমাধ্যম বা নির্ভরযোগ্য কোনো সূত্র হতে লিটন দাস উক্ত মন্তব্য করেছেন বলে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

Screenshot: Google Search

পরবর্তীতে প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড অনুসন্ধান পদ্ধতি ব্যবহার করে যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টের ওয়েবসাইটে ২০১৮ সালের ২৩ জুলাই “Mesut Özil: World Cup player says he is ‘a German when we win’ but ‘an immigrant when we lose,’ quits national team” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, নিজের প্রতি সমর্থকদের দ্বৈত আচরণের ও বর্ণবাদের কারণে জার্মান ফুটবলার মেসুত ওজিল আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর গ্রহণ করেন। সেইসাথে জার্মান সমর্থকদের দ্বৈত আচরণের ব্যাপার মেসুত ওজিল বলেন, “I am German when we win, but I am an immigrant when we lose”. অর্থাৎ, দল জিতলে আমি একজন জার্মান, আর হেরে গেলে আমি একজন ভিনদেশী। 

Source: The Washington Post

পাশাপাশি, প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড অনুসন্ধান পদ্ধতি ব্যবহার করে যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্ট এর ওয়েবসাইটে ২০১৮ সালের ২৩ জুলাই “German when he won, an immigrant when he lost – why Mesut Ozil turned his back on Germany” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। উক্ত প্রতিবেদন থেকে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, ২০১৮ সালে অবসর ঘোষণার সময় মেসুত ওজিল সমর্থকদের দ্বৈত আচরণের বিষয়ে এমন মন্তব্য করেছিলেন।

Source: independent.co.uk

মূলত, ২০১৮ সালে জার্মান ফুটবলার মেসুত ওজিল আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর গ্রহণ করেন। নিজের উপর বর্ণবাদী আচরণের প্রেক্ষিতে সে সময়ে মেসুত ওজিল বলেন, “জিতলে আমি জার্মান, হারলে বিদেশি”। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার এ বক্তব্যের অনুকরণেই “ভালো খেললে আমি বাংলাদেশি, আর খারাপ খেললে আমি হিন্দু” শীর্ষক উক্তি তৈরি করে লিটন দাসের নামে প্রচার করা হচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে লিটন দাস এমন কোনো মন্তব্য করেননি।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের হয়ে লিটন দাসের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় ২০১৫ সালে। ৩৯ টেস্ট, ৭২ ওডিআই এবং ৭৩ টি২০ ম্যাচে অংশগ্রহণ করা লিটন দাস আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত ৬ হাজারের বেশি রানের মালিক। সেইসাথে, বেশকিছু দ্বিপাক্ষিক সিরিজে বাংলাদেশ জাতীয় দলকে নেতৃত্বও দিয়েছেন তিনি। তার নেতৃত্বেই সম্প্রতি আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে রেকর্ড রানের জয় অর্জন করে বাংলাদেশ।

পূর্বেও, বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার লিটন দাসকে নিয়ে  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে পড়লে সে বিষয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, বাংলাদেশের ক্রিকেটার লিটন দাসের নামে দেশ ও ধর্মকে জড়িয়ে ইন্টারনেটে প্রচারিত এই তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img