ভিডিওটি জ্বালানি সচিবের পিএসকে মারধরের নয়

সম্প্রতি “-এবার জ্বালানি সচিবের অফিসে সচিবের পিএস জাহাঙ্গীরকে মারধর  করেছে শ্রমিক নেতারা. বাস ভাড়া নির্ধারণী সভায় সরকারের পক্ষে বারবার ওকালতি করতেছিলো জাহাঙ্গীর পরে পরিবহন শ্রমিক নেতারা তাকে জ্বালানি সচিবের সামনেই ধোলাই করেন!!!!” শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, জ্বালানি সচিবের অফিসে সচিবের পিএস জাহাঙ্গীরকে শ্রমিক নেতাদের মারধরের বিষয়টি সত্য নয় বরং ঘটনাটি ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলায় উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভায় হট্টগোল ও হাতাহাতির।

কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে বেসরকারি টেলিভিশন Jamuna TV এর ইউটিউব চ্যানেলে ৭ আগস্ট “ফরিদপুরে পূজা উদযাপন পরিষদের সভায় হট্টগোল-হাতাহাতি” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ৭ আগস্ট, রোববার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), উপজেলা চেয়ারম্যান ও মেয়রের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এই ভিডিওটির সঙ্গে আলোচিত ভিডিওটির হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

পরবর্তীতে মূলধারার অনলাইন গণমাধ্যম bdnews24.com এ ৭ আগস্ট “ইউএনওর উপস্থিতিতে পূজা উদযাপন পরিষদের নেতাদের হাতাহাতি” শীর্ষক শিরোনামে আরেকটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায়, ফরিদপুরের নগরকান্দায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) উপস্থিতিতে পূজা উদযাপন পরিষদের দুই পক্ষের সদস্যদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। একই উপজেলায় দুটি কমিটি থাকায় বিভিন্ন সময় প্রশাসনিক ও সামাজিক কাজে জটিলতা তৈরি হচ্ছিল। এ জটিলতা সমাধানের জন্য ইউএনও এস এম ইমাম রাজি দুই পক্ষকে নিয়ে সভার আয়োজন করেন। উদ্দেশ্য ছিল, বিবাদ মিটিয়ে গ্রহণযোগ্য একটি কমিটি গঠন করা। সভা চলাকালে দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। তখন ইউএনও এবং আনসার সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ফলে কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই সভা শেষ হয়।

মূলত, ফরিদপুরের নগরকান্দায় উপজেলায় উপস্থিতিতে পূজা উদযাপন পরিষদের দুটি কমিটি থাকায় বিভিন্ন সময় প্রশাসনিক ও সামাজিক কাজে জটিলতা তৈরি হচ্ছিল। এ জটিলতা সমাধানের জন্য উপজেলাটির ইউএনও দুই পক্ষকে নিয়ে সভার আয়োজন করেন। তবে এই সভা চলাকালে দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এই ঘটনাটিকেই জ্বালানি সচিবের অফিসে সচিবের পিএস জাহাঙ্গীরকে মারধর  করেছে শ্রমিক নেতারা দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির কারণে গত শনিবার (৬ আগস্ট) বিকাল সোয়া ৫টার দিকে বনানীতে অবস্থিত বিআরটিএ’র প্রধান কার্যালয়ে বাস মালিক ও শ্রমিক সমিতির নেতাদের সঙ্গে ভাড়া পুনঃনির্ধারণী বৈঠকে বসে বিআরটিএ। পরে রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাস ভাড়া বাড়ানোর ঘোষণা দেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার।

সুতরাং, বাস ভাড়া নির্ধারণী সভায় জ্বালানি সচিবের অফিসে সচিবের পিএস জাহাঙ্গীরকে শ্রমিক নেতাদের মারধরের দাবিটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

Jamuna TV Youtube: ফরিদপুরে পূজা উদযাপন পরিষদের সভায় হট্টগোল-হাতাহাতি

bdnews24.com: ইউএনওর উপস্থিতিতে পূজা উদযাপন পরিষদের নেতাদের হাতাহাতি
Bangla Tribune: বাস ভাড়া বাড়লো

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img