সম্পাদকের বিরুদ্ধে নেত্রীকে কুপ্রস্তাব দাবিতে প্রচারিত যুগান্তরের স্ক্রিনশটটি এডিটেড

সম্প্রতি “সম্পাদকের বিরুদ্ধে নেত্রীর কুপ্রস্তাবের অভিযোগ” শীর্ষক শিরোনামে দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার অনলাইন প্রতিবেদনের একটি স্ক্রিনশট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। 

সম্পাদক

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে ও  এখানে। আর্কাইভ  দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানেএখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সম্পাদকের বিরুদ্ধে নেত্রীর কুপ্রস্তাবের অভিযোগ শিরোনামের সাথে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছবি সম্বলিত যুগান্তরের সংবাদটি সত্য নয় বরং প্রচারিত উক্ত স্ক্রিনশটটি ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় এডিট করা।

কী-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে, বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক পত্রিকা যুগান্তরের ওয়েবসাইটে ২ জুলাই  “সম্পাদকের বিরুদ্ধে নেত্রীর কুপ্রস্তাবের অভিযোগ” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত মূল প্রতিবেদনটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot Jugantor website

প্রতিবেদনটিতে আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেনের বিরুদ্ধে সংগঠনটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফৌজিয়া জাফরিন প্রিয়ন্তীর গুরুতর অভিযোগের বিষয়ে উল্লেখ করা হয়। প্রতিবেদনে প্রিয়ন্তীর ফেসবুক পোস্টের বরাত দিয়ে যুগান্তর জানায়, আকতারের বিভিন্ন আবদার রাখতে অস্বীকৃতি জানানোয় প্রিয়ন্তিকে নানা হেনস্তার স্বীকার হতে হয়। প্রতিবেদনটিতে আকতার কিংবা প্রিয়ন্তি কারোর ছবিই ব্যবহার করা হয়নি। 

অপরদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ছবিটির শিরোনাম একই থাকলেও শিরোনামের সাথে জুড়ে দেওয়া হয়েছে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছবি। এছাড়া প্রতিবেদকের পরিচয় এবং তারিখটিও পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছে। যুগান্তরের প্রতিবেদনে প্রতিবেদকের পরিচয় হিসেবে ‘জবি প্রতিনিধি’ উল্লেখ থাকলেও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া সম্পাদিত ছবিতে প্রতিবেদকের পরিচয় হিসেবে ‘ক্রাইম রিপোর্ট’ উল্লেখ করা হয়েছে। মূল প্রতিবেদন ২ জুলাই প্রকাশিত হলেও সম্পাদিত ছবিতে প্রতিবেদন প্রকাশের তারিখ উল্লেখ করা হয়েছে ০৪ জুলাই। 

এছাড়া বাংলাদেশের মূলধারার কোনো গণমাধ্যমে সাম্প্রতিক সময়ে একই শিরোনামে কোনো ঘটনার সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

মূলত, বাংলাদেশের মূলধারার গণমাধ্যম জাতীয় দৈনিক যুগান্তর গত ০২ জুলাই ছাত্রলীগের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেনের বিরুদ্ধে সংগঠনটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফৌজিয়া জাফরিন প্রিয়ন্তীর গুরুতর অভিযোগের প্রসঙ্গে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এই প্রতিবেদনের একটি স্ক্রিনশট ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় এডিট করে সেখানে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছবি জুড়ে দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

সুতরাং, সম্পাদকের বিরুদ্ধে নেত্রীর কুপ্রস্তাবের অভিযোগ শিরোনামের সাথে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছবি সম্বলিত যুগান্তরের সংবাদ প্রকাশের ঘটনাটি সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং প্রচারিত স্ক্রিনশটটি ভুয়া।

তথ্যসূত্র

যুগান্তর: https://www.jugantor.com/todays-paper/second-edition/568857/%E0%A6%B8%E0%A6%AE%E0%A7%8D%E0%A6%AA%E0%A6%BE%E0%A6%A6%E0%A6%95%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%81%E0%A6%A6%E0%A7%8D%E0%A6%A7%E0%A7%87-%E0%A6%A8%E0%A7%87%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%80%E0%A6%B0-%E0%A6%95%E0%A7%81%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%85%E0%A6%AD%E0%A6%BF%E0%A6%AF%E0%A7%8B%E0%A6%97

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img