সাঈদীর মৃত্যুতে কাবা শরীফের ইমাম টুইটে কোনো শোকবার্তা দেননি

সম্প্রতি, জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুতে মক্কার মসজিদুল হারামের ইমাম শায়েখ ড. আব্দুল রহমান আস-সুদাইস‏ শোক প্রকাশ করে একটি টুইট বার্তা প্রকাশ করেন শীর্ষক একটি দাবি ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ড. আব্দুল রহমান আস-সুদাইস দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে কোনো টুইট প্রকাশ করেননি বরং শায়েখ ড. আব্দুল রহমান আস-সুদাইসের ব্যক্তিগত কোনো টুইটার অ্যাকাউন্ট-ই নেই। গণমাধ্যমেও উক্ত দাবি সংক্রান্ত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত দাবিটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম।

Screenshot: Facebook

দাবি করা হচ্ছে, কাবা ঘরের ইমামগণ দেলাওয়ার হুসাইন সাইদি (রহ.) মৃত্যুতে এক টুইটার বিবৃতিতে শোকবার্তা জানিয়েছেন।

টুইটটি এরকম –

الشيخ دلوار حسين السعيدي عالم إسلامي شهير من بنغلادش ، نشعر بحزن عميق لوفاته ، تقبل الله خدمته للقرآن وأعطاه مكانة عالية في جنات الفردوس.

The Bird of Quran…- – 
টুইটের বাংলা অনুবাদও করা হয়েছে এ সংক্রান্ত পোস্টগুলোতে। 

বাংলা অনুবাদটি এমন, “শায়েখ দিলওয়ার হুসাইন সাইদি বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত ইসলামিক স্কলার। আমরা তার মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত, আল্লাহ উনার কুরআনের খিদমতকে কবুল করুক এবং তাকে জান্নাতুল ফিরদাউসে উচ্চ মর্যাদা দান করুন।” (বানান অপরিবর্তিত)

টুইটকারির নাম শায়েখ ড. আব্দুল রহমান আল সুদাইসি (হা.ফি.) যিনি খাদেমুল হারামাইন শরীফাইন বলে উল্লেখ করা হয়েছে।   

উক্ত তথ্যের সত্যতা যাচাইয়ে শায়েখ ড. আব্দুল রহমান আস-সুদাইস এর শোক বার্তা দাবিতে প্রচারিত আরবি লেখাটি গুগল সার্চের মাধ্যমে অনুসন্ধান করা হয়। 

Screenshot: Facebook

অনুসন্ধানে উক্ত দাবির প্রেক্ষিতে কোনো তথ্য গুগল সার্চের মাধ্যমে পাওয়া যায়নি। 

পরবর্তী অনুসন্ধানে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে সৌদি আরব ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম Al Arabiya এর ওয়েবসাইটে  No accounts for Al-Sudais on Twitter and Facebook শীর্ষক শিরোনামে ২০১৪ সালের ১৮ অক্টোবর প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Al Arabiya

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, শায়েখ ড. আব্দুল রহমান আস-সুদাইসের টুইটার কিংবা অন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে কোনো অ্যাকাউন্ট নেই। তাকে উদ্ধৃতি করে অনলাইনে প্রচার করা কোনো তথ্যও সত্য নয়। 

তবে পরবর্তীতে তার কোনো অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে কিনা সে বিষয়ে অনুসন্ধানে ফেসবুকে আব্দুল রহমান আস-সুদাইসের নাম আরবি ভাষায় ব্যবহার করে একটি ভেরিফাইড পেজ (আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়। পেজটির ট্রান্সপারেন্সি সেকশন থেকে জানা যাচ্ছে, এটি মিশর থেকে পরিচালিত হচ্ছে। 

Screenshot: Facebook

অর্থাৎ, আব্দুল রহমান আস-সুদাইসের নামে একটি ভুয়া ভেরিফাইড পেজ পরিচালিত হচ্ছে ফেসবুকে। 

এছাড়া, জামায়াতে ইসলামীর ফেসবুক পেজে প্রকাশিত (আর্কাইভ) ইসলামিক বক্তাদের শোক বার্তার তালিকায় আল সুদাইসের নাম পাওয়া যায়নি।

Screenshot : Facebook

পরবর্তীতে আরো অনুসন্ধান করে সৌদি আরবের একাধিক গণমাধ্যম এবং বাংলাদেশের গণমাধ্যমগুলোতে উক্ত দাবির পক্ষে কোনো তথ্য উল্লেখ পাওয়া যায়নি। 

মূলত, গত ১৪ আগস্ট রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডিত ও জামায়াতের নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী মারা যাওয়ার পর তার মৃত্যুতে মক্কার মসজিদুল হারামের ইমাম শায়েখ ড. আব্দুল রহমান আস-সুদাইস‏ শোক প্রকাশ করে একটি টুইট বার্তা প্রকাশ করেন শীর্ষক একটি দাবি ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা যায়, উক্ত দাবিটি সঠিক নয়। শায়েখ ড. আব্দুল রহমান আস-সুদাইসের টুইটারে কোনো অ্যাকাউন্ট নেই এবং তিনি সাঈদীর মৃত্যুতে কোনো শোকও প্রকাশ করেননি।  

উল্লেখ্য, জামায়াতে ইসলামীর হয়ে ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে পর পর দুইবার বাংলাদেশের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী। ২০১০ সালের ২৯শে জুন ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগের একটি মামলায় তিনি গ্রেফতার হন। পরে ২ আগস্ট এদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এরপর থেকেই কারাগারে ছিলেন জামায়াতের এই নেতা। আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে তাঁর বিরুদ্ধে আনা মোট বিশটি অভিযোগের মধ্যে আটটিতে তিনি আদালত কর্তৃক দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর দুটো অপরাধে সর্বোচ্চ শাস্তি হিসেবে আদালত ২০১৩ সালে তাকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা দেয়। তবে ট্রাইব্যুনালের দেওয়া মৃত্যুদণ্ডের সাজা কমিয়ে ২০১৪ সালে আপীল বিভাগ সাঈদীকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেয়। দণ্ডাদেশ পুনর্বিবেচনা চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ ও সাঈদীর পৃথক রিভিউ আবেদন খারিজ করে ২০১৭ সালের ১৫ মে আমৃত্যু কারাদণ্ড বহাল রাখা হয়। এরপর থেকে কারাগারে থেকেই সাজা ভোগ করছিলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর বিষয়ে পূর্বেও একাধিক গুজব ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে একাধিক ফ্যাক্টচেক প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। 

সুতরাং, দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুতে শায়েখ ড. আব্দুল রহমান আস-সুদাইস‏ শোক প্রকাশ করে টুইট বার্তা প্রকাশ করার দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img