ভিডিওটি আসামিকে ক্রসফায়ারে দেওয়ার পূর্ব মুহূর্তের প্রস্তুতির নয়

সম্প্রতি “আসামিকে ক্রসফায়ারে দেওয়ার পূর্ব মুহূর্তের প্রস্তুতি!!যাদের হার্ট দূর্বল তারা দেখবেন না।” শীর্ষক একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, ইউটিউব এবং টিকটকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ইউটিউবে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে, এখানে
ভিডিওগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে

টিকটকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে
আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ভিডিওটি আসামিকে ক্রসফায়ারে দেওয়ার পূর্ব মুহূর্তের প্রস্তুতির নয় বরং এটি বাংলাদেশ পুলিশ কর্তৃক আসামিকে ধরার অনুশীলন বা মহড়ার ভিডিও।

কি-ওয়ার্ড সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে, ‘news24bd.net‘ নামক একটি ফেসবুক পেজে গত ১০ অক্টোবর  “বাংলাদেশ পুলিশের আসামী গ্রেফতার করার মহড়া” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। ভিডিওটির ২.১৩ মিনিটে উল্লেখ করা হয় (ভিডিওর বক্তার দ্বারা), “আসামির ভূমিকায় আছেন আমাদের সুমন ভাই”।

পাশাপাশি, ‘নিউজ২৪বিডি ডট নেট’ এর ইউটিউব চ্যানেলেও “বাংলাদেশ পুলিশের আসামী গ্রেফতার করার মহড়া” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একই ভিডিওটি পাওয়া যায়।

এছাড়াও, গণমাধ্যমে ক্রাইসিস রেসপন্স টিমের ক্রসফায়ার করা কিংবা ক্রসফায়ার এর মহড়া সম্পর্কিত কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি।

অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত ভিডিও ধারণকারী তার ভিডিওতে উল্লেখ করেছেন “আসামির ভূমিকায় আছেন আমাদের সুমন ভাই” অর্থাৎ এখানে ভূমিকায় আছেন শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে আসামি ধরার মহড়ার ক্ষেত্রে। সেই মহড়ায় আসামির রোলে অভিনয় করেছেন সুমন নামক একজন যিনি ক্রাইসিস রেসপন্স টিম (সিআরটি) এর এই অনুশীলন (মহড়া) দলের সদস্য। কেননা ভিডিও ধারণকারী আসামির ভূমিকায় থাকা সুমনকে “আমাদের সুমন ভাই” হিসেবে সম্বোধন করেছেন।

মূলত, বাংলাদেশ পুলিশের ক্রাইসিস রেসপন্স টিমের (সিআরটি) আসামি ধরার মহড়া বা অনুশীলনের একটি ভিডিও সেসময়ে উপস্থিত কেউ একজন ধারণ করেন। পরবর্তীতে সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে “ক্রসফায়ারের মহড়ার ভিডিও” হিসেবে প্রচার করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ পুলিশ সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে ইতোপূর্বে কয়েকটি ফ্যাক্ট-চেকিং প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, বাংলাদেশ পুলিশের ক্রাইসিস রেসপন্স টিমের (সিআরটি) আসামি ধরার মহড়ার সময়ে ধারণ করা একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে “ক্রসফায়ারের মহড়ার ভিডিও” হিসেবে প্রচার করা হছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img