২৮০ বছর পরে এবারের হজ শুক্রবারে পড়ার দাবিটি সত্য নয়

সম্প্রতি “দীর্ঘ ২৮০ বছর পরে এবারের হজ্জ্ব শুক্রবার পড়েছে, যা হজ্জ্বে আকবর! আলহামদুলিল্লাহ্।” শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ২৮০ বছর পর এবারের হজ শুক্রবারে পড়ার দাবিটি সত্য নয় বরং সর্বশেষ ২০১৪ সালেই হজ শুক্রবারে অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

কী-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে, সৌদি আরবের গণমাধ্যম ARAB News এর ওয়েবসাইটে ২০১৪ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর “Arafat Day on Oct. 3” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot ARAB News website

প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায়, সৌদি আরবের সুপ্রিম কোর্ট জিলহজ্জ মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। এই হিসেবে ৩ অক্টোবর শুক্রবার, হাজীরা মক্কার নিকট আরাফাত ময়দানে অবস্থান করবেন এবং একইদিনে ঈদুল আজহা পালন করবেন৷ 

পরবর্তীতে সৌদি ভিত্তিক আরেকটি গণমাধ্যম Al Arabiya News এর ওয়েবসাইটে ২০১৪ সালের ৩ অক্টোবর “Muslim Pilgrims on Mount Arafat” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনটি ৩ অক্টোবর, শুক্রবার  হাজীদের আরাফাত ময়দানে অবস্থানের কিছু ছবি প্রকাশ করা হয়। 

Screenshot Al Arabiya News website

পাশাপাশি বাংলাদেশী গণমাধ্যম যুগান্তরের ওয়েবসাইটে ২০১৪ সালের ৪ অক্টোবর “পবিত্র হজ পালিত” শীর্ষক শিরোনামে একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায়, পবিত্র মক্কা নগরী থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে হজরত আদম (আ.) ও মা হাওয়া (আ.)-এর পুনর্মিলনের ঐতিহাসিক স্থান আরাফাত ময়দান লাব্বাইক, আলাহুম্মা লাব্বাইক’ সারা বিশ্বের লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসলমানের কণ্ঠে  শুক্রবার, ৩ অক্টোবর মুখরিত হয়ে উঠেছিল।

এছাড়া timeanddate.com এর নামের একটি ওয়েবসাইটে Is Arafat (Hajj) Day a Public Holiday? শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে দেখা যায়, ২০০২ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি ও ২০০৯ সালের ২৭ নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হজটি শুক্রবারে ছিল। 

Screenshot timeanddate.com

মূলত, কোনো ধরণের তথ্যসূত্র ছাড়া ভিত্তিহীনভাবে ‘২৮০ বছর পরে এবারের হজ শুক্রবারে পড়েছে’ শীর্ষক বানোয়াট তথ্যটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

আরো পড়ুনঃ ২০৩০ সালে তিনটি ঈদ অনুষ্ঠিত হওয়ার দাবিটি মিথ্যা

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের হজের আনুষ্ঠানিকতা ৬ জুলাই থেকে শুরু হবে৷ পরবর্তীতে ৮ জুলাই শুক্রবার, আরাফাত ময়দানে অবস্থান ও ৯ জুলাই ঈদুল আজহা উদযাপনের মাধ্যমে হজের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে। 

উল্লেখ্য, আরাফাতের ময়দানে অবস্থান হজের অন্যতম একটি ভিত্তি। এটা বাতিল হয়ে গেলে হজ বাতিল হয়ে যাবে। হাজীরা  ৯  যিলহজ্জ সূর্য উদয় হওয়ার পর আরাফাতের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। অর্থাৎ, ৯ জিলহজ আরাফাতের ময়দানে অবস্থান করাই হজ। এ প্রসঙ্গে নবী করিম (সা.) ফরমান, ‘আরাফাতে অবস্থান করাই হজ।’ (তিরমিজি)

সুতরাং, ২৮০ বছর পরে এবারের হজ শুক্রবারে পড়ার দাবিটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img