পাতাবাহার গাছ স্পর্শ করলে দ্রুততম সময়ে মৃত্যু ঘটে না

সম্প্রতি, “অফিস, স্কুল বা বাড়িতে শখ করে লাগানো এই পাতাবাহারটি যে আদতে কি ভয়ঙ্কর, তা আমরা ঘুণাক্ষরেও টের পাই না! এই গাছটির কারণে অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন আপনি, এমনকি মারাও যেতে পারেন” শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, পাতাবাহার জাতীয় গাছটি দ্রুততম সময়ে মৃত্যু ঘটাতে সক্ষম দাবিটি সত্য নয় বরং এর রস চোখে কিংবা মুখে গেলে প্রাথমিকভাবে কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে।

মূলত, ডাম্ব কেইন বা পাতাবাহার জাতীয় গাছ স্পর্শ করলে মৃত্যুর ঝুঁকি নেই। তবে এর রস চোখে কিংবা মুখে গেলে প্রাথমিকভাবে কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। এই বিষয়টিকেই তথ্যসূত্র ব্যতীত অতিরঞ্জিত করে পাতাটি দ্রুততম সময়ে মৃত্যু ঘটাতে পারে দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

অর্থাৎ, ডাম্ব কেইন (পাতাবাহার) বিষাক্ত, কিন্তু এর প্রভাবে মারা যাওয়ার সম্ভাবনা নেই এবং এমন কোন প্রমাণ নেই যে গাছটি অন্ধত্বের কিংবা মৃত্যুর কারণ হতে পারে।

একই তথ্যটি গত জুলাই মাসে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টিকে সে সময়ে বিভ্রান্তিকর শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল রিউমর স্ক্যানার।

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img