জুয়াইরিয়া নামের রোগাক্রান্ত শিশুকে আবির দাবি করে আর্থিক প্রতারণা

সম্প্রতি “আসসালামু ওয়ালাইকুম.! শিশুটির চিকিৎসার জন্য ১৫ লক্ষ টাকার প্রয়োজন।” শীর্ষক শিরোনামে এক শিশুর কয়েকটি ছবি সংযুক্ত করে একটি মানবিক সাহায্যের আবেদন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন- এখানে, এখানে, এখানে ,এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে । পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন- এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে,এখানে, এবং এখানে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আর্থিক সহায়তার নামে ফেসবুকে প্রচারিত ছবিগুলো আবির নামের কোনো শিশুর নয় বরং ছবিগুলো জুয়াইরিয়া বিনতে হামজা নামের এক শিশুর।

রিভার্স ইমেজ সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে,‘Ketto’ এর অফিশিয়াল টুইটারফেসবুক পেজে শিশুটির জন্য ফান্ডরাইজিং নিয়ে ২০২১ সালের অক্টোবরে প্রকাশিত পোস্টে একই ছবিগুলো খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot source:Tweet,Ketto
Screenshot source: Facebook ,Page,Ketto

মূলত, ছবিগুলো জুয়াইরিয়া বিনতে হামজা নামের বাংলাদেশি এক শিশুর। জুয়াইরিয়া বিলিয়ারি অ্যাট্রেসিয়া (Biliary Atresia) নামক লিভারের জটিল রোগে আক্রান্ত। শিশুটির লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট এর জন্য তাকে ভারতের চেন্নাইয়ে নিয়ে যাওয়া হয় এবং বর্তমানে সেখানের ‘Dr. Rela Institute & Medical Centre’ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে শিশুটি। ফান্ডরাইজিং ঐ ওয়েবসাইটের প্রতিবেদন থেকে জানা যায় শিশুটির চিকিৎসার জন্য প্রায় ২৫ লাখ রুপি প্রয়োজন। বর্তমানে শিশুটির জন্য আর্থিক সহায়তা সংগ্রহ বন্ধ রয়েছে।

তাছাড়া, আবির নামে আর্থিক সাহায্যের জন্য আবেদনকৃত ফেসবুক পোস্টগুলোতে উল্লিখিত বিকাশ ও নগদ এবংরকেট পার্সোনাল নাম্বারে (01306313164, 01820859521, 01820859521-5) একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, প্রায় একই দাবিতে বিষয়টি পূর্বেও একাধিকবার ভিন্ন ভিন্ন নাম ব্যবহার করে  সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচার করা হলে সে সময়ে বিষয়টি মিথ্যা হিসেবে শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার টিম।

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img