ধর্মীয় রীতি পালনের উদ্দেশ্যে মাথার চুল ন্যাড়া করার ভিডিওকে পরকীয়ার শাস্তি দাবিতে প্রচার

সম্প্রতি “পরকিয়ায় আটক সুন্দরী নারীর ভয়ংকর শাস্তি!!মাথার চুল কেটে ন্যাড়া করে লাগিয়ে দেওয়া হল চুন সহ কালো কালি।” শীর্ষক শিরোনামের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত হচ্ছে।

Screenshot from, facebook Chandni

ফেসবুকে প্রচারিত এরকম কিছু পোস্ট দেখুন এখানে এবং এখানে, এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, পরকীয়ার শাস্তি হিসেবে নারীর মাথার চুল ন্যাড়া করার দাবিটি সত্য নয় বরং সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশেষ ধর্মীয় আচার পালনের একটি ভিডিও উক্ত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে।

কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে “hs vedio’s” নামক ইউটিউব চ্যানেলে ২০২২ সালের ২৭ নভেম্বর “yellow saree super young lady headshave” শীর্ষক শিরোনামের একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। উক্ত ভিডিওর সাথে পরকীয়ার শাস্তি হিসেবে নারীর মাথা ন্যাড়া করার দাবিতে প্রচারিত ভিডিওর হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot from youtube hs video’s

আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে, ভিডিওতে দেখানো নারীকে শাস্তিস্বরূপ চুল ন্যাড়া করা হচ্ছে এমন প্রেক্ষাপট দৃশ্যমান হয়নি। বরং স্বাভাবিকভাবেই সেই নারীর চুল ফেলে দেওয়া দৃশ্য দেখা যাচ্ছে। তাছাড়া ঘটনার সময় উপস্থিত লোকজনদের প্রতিক্রিয়াও স্বাভাবিক ছিলো।

পরবর্তীতে, উক্ত ইউটিউব চ্যানেলের অন্যান্য ভিডিও পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায় চ্যানেলটিতে এখন পর্যন্ত শুধু চুল ফেলার দেওয়ার ভিডিওই প্রকাশ হয়েছে করা হয়েছে এবং প্রতিটি ভিডিওতেই নারীদের স্বাভাবিকভাবে চুল ফেলার দৃশ্য রয়েছে। 

এছাড়াও ভিডিওর কমেন্টবক্স পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, নারীদের মাথার চুল ফেলে দেয়া নিয়ে অনেকেই প্রশংসা করেন। যা থেকে ধারণা করা হয়, উক্ত ভিডিওগুলো কোনো ধর্মীয় রীতি যা সাংস্কৃতিক আয়োজনের অংশ।

Screenshot from hs vedio’s youtube channel

পরবর্তীতে, উক্ত সূত্র ধরে কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি নিউজে ২০১৬ সালের ১৩ এপ্রিল “How Indians shave their head and hope for luck” শীর্ষক শিরোনামের একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, দক্ষিণ ভারতের দুটি মন্দিরে প্রতি বছর ধর্মীয় রীতি পালনের উদ্দেশ্যে লক্ষ লক্ষ মানুষ সমবেত হয়। প্রার্থনা বা স্বপ্নপূরণের জন্য ত্যাগের চিহ্নস্বরূপ মাথার চুল ফেলে দেন অনেক তীর্থযাত্রী।

Screenshot from BBC News website 

এছাড়াও জার্মান ভিত্তিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ডয়েচে ভেলে ভারতের অন্ধ্র প্রদেশে মন্দিরে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মাথা ন্যাড়া করার ব্যাপারে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। 

মূলত, দক্ষিণ ভারতের সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় রীতি অনুসারে ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা গৃহীত হওয়ার জন্য উৎসর্গ করার রীতি প্রচলিত আছে। উক্ত বিধান অনুসারে প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ তীর্থযাত্রী মাথার চুল ন্যাড়া করেন। এসকল তীর্থযাত্রীদের মধ্যে অনেকেই নারী। এরকম একজন নারী তীর্থযাত্রীর ধর্মীয় রীতি পালনের উদ্দেশ্যে মাথার চুল ন্যাড়া করার ভিডিওকে পরকীয়ার শাস্তি হিসেবে মাথার চুল ন্যাড়া করার দাবিতে প্রচারিত হচ্ছে। 

সুতরাং, ধর্মীয় রীতি পালনের উদ্দেশ্যে নারীর মাথার চুল ন্যাড়া করার ভিডিওকে পরকীয়ার শাস্তি হিসেবে চুল ন্যাড়া করার দাবিতে প্রচারিত হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর। 

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img