ভিডিওটি ফিলিস্তিন কর্তৃক ইসরায়েলে হামলার নয় 

সম্প্রতি, “ইসরাইলের উপর হামলা করছে ফিলিস্তিন জয় হবে ইনশাআল্লাহ” শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে। 

হামলা

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

একই দাবিতে টিকটকে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ইসরায়েলের উপর ফিলিস্তিনের হামলার দবিতে প্রচারিত ভিডিওটি পুরানো ও ভিন্ন ঘটনার। প্রকৃতপক্ষে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী কর্তৃক ক্ষেপণাস্ত্র হামলার একটি ভিডিওকে উক্ত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। 

এ নিয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটির কিছু স্থিরচিত্র রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে গত ১৯ অক্টোবর ‘Slava’ নামক একটি এক্স অ্যাকাউন্টে (সাবেক টুইটার) একটি অনুরূপ ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot : Slava x post

উক্ত টুইটের ক্যাপশন থেকে জানা যায়, ভিডিওটি ইউক্রেনের। 

পরবর্তীতে উক্ত ভিডিওটিতে দৃশ্যমান ‘acer.negundo’ নামক একটি টিকটক অ্যাকাউন্টের সূত্রে গত ২৬ সেপ্টেম্বর আলোচ্য ভিডিওটির অনুরূপ একই ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot : TikTok Post 

উক্ত ভিডিওটির ক্যাপশনটি বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ক্যাপশনটিতে #armed forces of Ukraine, #military #soldiers of Ukraine, #Ukrainian military শীর্ষক একাধিক হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়া ভিডিওটির ক্যাপশনের সঙ্গে একটি পতাকার ছবি দেখতে পাওয়া যায়। উক্ত ছবিটির সাথে ইউক্রেনের পতাকার হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

অপরদিকে ভিডিওটির প্রচারকাল বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, এটি গত ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ইন্টারনেটে বিদ্যমান। বিপরীতে চলমান ফিলিস্তিন-ইসরায়েল সংঘাত শুরু হয়েছে গত ৭ অক্টোবর। অর্থাৎ হামাসের ইসরায়েলে হামলা শুরুর পূর্ব থেকেই ভিডিওটি ইন্টারনেটে প্রচার হয়ে আসছে।

এছাড়া আলোচিত ভিডিওটিতে দৃশ্যমান ক্ষেপনাস্ত্রবাহী গাড়িটির সঙ্গে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে ব্যবহৃত ক্ষেপনাস্ত্রবাহী গাড়ির মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে ব্যবহৃত ক্ষেপনাস্ত্রবাহী গাড়ির ছবি নিয়ে ইন্টারনেটে বিদ্যমান টুইট ও প্রতিবেদন দেখুন এখানে, এখানে। 

মূলত, গত ০৭ অক্টোবর ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস ইসরায়েলে ‘অপারেশন আল-আকসা ফ্লাড’ নামে হামলা করলে ফিলিস্তিন-ইসরায়েলের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে চলা সংঘাত নতুন মাত্রা পায়। এই সংঘাতকে কেন্দ্র করে ইসরায়েলের উপর ফিলিস্তিনের হামলার দাবিতে ক্ষেপনাস্ত্র ছোড়ার একটি ভিডিও ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, এই ভিডিওটি উক্ত সংঘাত শুরুর পূর্ব থেকেই ইন্টারনেটে বিদ্যমান এবং এটি ইউক্রেনের।

সুতরাং, ইউক্রেনের একটি ভিডিওকে ইসরায়েলের উপর ফিলিস্তিনের হামলার দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে; যা মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র 

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img