ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের চিনতে না পারার দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি এডিটেড

সম্প্রতি, “ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীকে চিনতে পারেননি জো বাইডেন এবং তিনি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে অন্যত্র সরিয়ে দিয়ে শ্বেতাঙ্গ এক ভদ্রলোকের সাথে হ্যান্ডশেক করেছেন” শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও ক্লিপ ও কিছু ছবি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে  প্রচারিত হয়।

উক্ত দাবিতে দেশীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন সময় নিউজ টিভি, জাগোনিউজ২৪, কালেরকণ্ঠ, ইনকিলাব, যুগান্তর, ঢাকা টুডে, ডেইলি বাংলাদেশ, পূর্ব-পশ্চিম, জবাবদিহি, সোনার দেশ, এমটি নিউজ

একই দাবিতে গণমাধ্যমের ইউটিউব চ্যানেলে প্রচারিত ভিডিও প্রতিবেদন দেখুন; জাগোনিউজ২৪

উক্ত দাবিতে গণমাধ্যমের  ফেসবুক পেজে প্রচারিত ভিডিও প্রতিবেদন দেখুন; জাগোনিউজ২৪(আর্কাইভ)।

উক্ত দাবিতে ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন টিভি ৯ বাংলা, সংবাদ প্রতিদিন, বিশ্ববাংলা সংবাদ

একই দাবিতে ফেসবুকে  প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন; এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

একই দাবিতে টুইটারে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা যায়, আয়ারল্যান্ড সফরে বেলফাস্ট বিমানবন্দরে নেমে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাককে চিনতে না পেরে তার সাথে দায়সারাভাবে হাত মিলিয়ে অন্যদের সাথে কথা বলতে চলে যাওয়ার দাবিটি সঠিক নয় বরং সেদিন বাইডেন বিমানবন্দরে নেমেই সর্বপ্রথম ঋষি সুনাকের সাথে করমর্দনের পাশাপাশি কিছু সময় স্বতঃস্ফূর্তভাবে কথা বলেন।

এ বিষয়ে ভিডিওটির কিছু কি-ফ্রেম রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে অনুসন্ধানে মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল ‘C-SPAN’ এর ওয়েবসাইটে গত ১১ এপ্রিল “President Biden Greeted By British Prime Minister in Belfast” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত  ৭ মিনিট ৪২ সেকেন্ডের খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: C-SPAN Website

উক্ত ভিডিওতে দেখা যায়, বাইডেন বিমান থেকে নামার পর পরই সর্বপ্রথম ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের সাথে করমর্দন করে এবং বেশ কয়েক সেকেন্ড স্বতঃস্ফূর্ত ও হাস্যউজ্জ্বলভাবে কথা বলেন।

Screenshot: C-SPAN Website

এরপর ঋষি সুনাকের সাথে ইউনিফর্ম পরিহিত সামরিক কর্মকর্তার সাথে কিছুক্ষণ কথা বলেন। পরবর্তীতে বাইডেনকে ঋষি সুনাকের কাঁধে হাত রেখে তার (বাইডেন) সফরসঙ্গীর সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে দেখা যায়।

Screenshot: C-SPAN Website

এছাড়া একই বিষয়ে বৃটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য সান এর ওয়েবসাইট এবং দ্য গার্ডিয়ানদ্য টেলিগ্রাফ এর ইউটিউব চ্যানেলে প্রচারিত ভিডিও প্রতিবেদনেও ঋষি সুনাকের সাথে বাইডেনের স্বতঃস্ফূর্ত কুশল বিনিময়ের দৃশ্য দেখা যায়।

বিভ্রান্তির সূত্রপাত

অনুসন্ধানে, জো বাইডেন ঋষি সুনাককে চিনতে না পেরে সরিয়ে দিয়েছেন দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে প্রচারিত ভিডিওটির সাথে বৃটিশ সংবাদমাধ্যম Sky News এর ইউটিউব চ্যানলে গত ১২ এপ্রিল “US President Joe Biden lands in Northern Ireland” (Archive) শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত ভিডিও প্রতিবেদনের প্রথম অংশের মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করলে এটি স্পষ্ট যে,  বিমানবন্দরে বাইডেন ও ঋষি সুনাকের কুশল বিনিময়ের মুহূর্তগুলো বাদ দিয়ে এটি সম্পাদনা করা হয়েছে।

তবে একই দিনে সংবাদমাধ্যমটির ওয়েবসাইটে “US president Joe Biden and UK prime minister Rishi Sunak shake hands” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত আরেকটি ভিডিওতে বেলফাস্ট বিমানবন্দরে নেমেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের সাথে স্বতঃস্ফূর্তভাবে কুশল বিনিময় করতে দেখা যায়। 

Screenshot from Sky News

যা ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের চিনতে না পারার দাবিতে প্রচারিত ভিডিওতে অনুপস্থিত ছিলো।

অর্থাৎ, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আয়ারল্যান্ডের বিমানবন্দরের অভ্যর্থনা জানাতে অপেক্ষারত ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীকে চিনতে না পেরে তাকে অন্যত্র সরিয়ে দিয়ে শ্বেতাঙ্গ এক ভদ্রলোকের সাথে হ্যান্ডশেক করেছেন শীর্ষক দাবিটি সঠিক নয়।

মূলত, গত ১১ এপ্রিল গুড ফ্রাইডের শান্তি চুক্তির ২৫তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আয়ারল্যান্ড সফরে যান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সে সময় আয়ারল্যান্ডের বিমানবন্দরে জো বাইডেনকে স্বাগত জানান যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক। উক্ত ঘটনায় ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীকে চিনতে না পেরে তাকে অন্যত্র সরিয়ে দিলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বিমানবন্দরেই নেমেই সর্বপ্রথম বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের সাথে করমর্দন করেন এবং স্বতঃস্ফূর্তভাবে কুশল বিনিময় করেন। তবে তাদের এই কুশল বিনিময়ের অংশটুকু বাদ দিয়ে একটি সম্পাদিত ভিডিওর মাধ্যমে ঋষি সুনাককে চিনতে না পেরে সরিয়ে দিলেন বাইডেন শীর্ষক দাবিটি প্রচার করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে কৃত্রিম  বুদ্ধিমত্তা দিয়ে তৈরিকৃত একটি ছবি রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের বৌদ্ধধর্ম চর্চা করার ছবি দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, আয়ারল্যান্ডের বেলফাস্ট বিমানবন্দরে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাককে চিনতে না পেরে সরিয়ে দিলেন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন শীর্ষক দাবিটি মিথ্যা এবং এই দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি এডিটেড।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img