বৃহস্পতিবার, জুলাই 25, 2024
spot_img

মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থীকে জড়িয়ে যমুনা টেলিভিশনের নামে ভুয়া ফটোকার্ড প্রচার 

গতকাল জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলাকালে “মুন্সিগঞ্জে- ৩ জয়ের পথে হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব” শীর্ষক শিরোনামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল যমুনা টেলিভিশনের নামে একটি ফটোকার্ড প্রচার করা হয়েছে।

মুন্সিগঞ্জ-৩

উক্ত ফটোকার্ড সম্বলিত কিছু ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনের (সদর ও গজারিয়া) স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব জয়ের পথে- শীর্ষক তথ্যে যমুনা টেলিভিশন কোনো সংবাদ বা ফটোকার্ড প্রকাশ করেনি বরং মুন্সিগঞ্জের নির্বাচনের ভিন্ন ঘটনা নিয়ে গণমাধ্যমটিতে প্রচারিত একটি ফটোকার্ড ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনা করে উক্ত ফটোকার্ডটি তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে যমুনা টিভি’র লোগো সম্বলিত আলোচিত ফটোকার্ডটি পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, এতে প্রচারের তারিখ হিসেবে ৭ জানুয়ারি ২০২৪ সালের কথা উল্লেখ রয়েছে। 

Screenshot: Facebook Claim Post

পরবর্তীতে উক্ত সূত্র ধরে যমুনা টিভি ফেসবুক পেজ অনুসন্ধান করে এরূপ কোনো ফটোকার্ড পাওয়া যায়নি। এছাড়া, যমুনা টেলিভিশনের ওয়েবসাইটে এবং ইউটিউব চ্যানেলেও এ সংক্রান্ত কোনে সংবাদ পায়নি রিউমর স্ক্যানার টিম।

তবে, যমুনা টেলিভিশনের ফেসবুক পেজে গতকাল ৭ জানুয়ারি প্রকাশিত ফটোকার্ডগুলো অনুসন্ধান করে “মুন্সিগঞ্জে নৌকা সমর্থককে কুপিয়ে হত্যা” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ফটোকার্ড পাওয়া যায়।

পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, উক্ত ফটোকার্ডটির সাথে আলোচিত ফটোকার্ডটির ডিজাইনের অনেকাংশে মিল রয়েছে। কিন্তু, যমুনা টেলিভিশনের ফটোকার্ডে ব্যবহৃত ফন্টের সাথে আলোচিত ফটেকার্ডে ব্যবহৃত ফন্টের কোনো মিল নেই। 

Photocard Comparison: Rumor Scanner  

পাশাপাশি, একই তারিখে যমুনা টেলিভিশনের ওয়েবসাইটে “মুন্সিগঞ্জে নৌকার সমর্থককে কুপিয়ে হত্যা” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, মুন্সিগঞ্জ-৩ (সদর এবং গজারিয়া) আসনে নৌকার এক সমর্থককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। তিনি আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মৃণাল কান্তি দাসের সমর্থক বলে জানা গেছে।

৭ জানুয়ারি সকাল ১০টার দিকে সদর উপজেলার মিরকাদিম পৌরসভার টেঙ্গর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন মুন্সিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসলাম খান। নিহত ব্যক্তির নাম মো. জিল্লুর রহমান। 

অর্থাৎ, আলোচিত দাবির ফটোকার্ডটি নকল।

উল্লেখ্য, মুন্সিগঞ্জ- ৩ আসনের নির্বাচনে ভোট গণনা শেষে নির্বাচন কমিশন ঘোষিত বেসরকারি ফল অনুযায়ী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. ফয়সার বিপ্লব জয় লাভ করেছেন। ফয়সাল বিপ্লবের প্রাপ্ত ভোট ৮৯ হাজার ৬৯৫। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস পেয়েছেন ৮২ হাজার ৮৩৩ ভোট।

মূলত, গতকাল ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলাকালে  মুন্সিগঞ্জে মো. জিল্লুর রহমান নামের এক নৌকা সমর্থককে  কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে। । এরই প্রেক্ষিতে বেসরকারি টেলিভিশন যমুনা টেলিভিশন একটি সংবাদ প্রকাশ করে, যা ফটোকার্ড আকারে গণমাধ্যমটির ফেসবুক পেজেও প্রকাশ করা হয়।  পরবর্তীতে সেই ফটেকার্ডটি প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনা করে “মুন্সিগঞ্জে- ৩ জয়ের পথে হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব” শীর্ষক শিরোনামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হয়। 

সুতরাং, মুন্সিগঞ্জে-৩ জয়ের পথে হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব- শীর্ষক শিরোনামে যমুনা টেলিভিশনের নামে প্রচারিত ফটোকার্ডটি এডিটেড বা বিকৃত। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img