এই ভিডিওতে ফেরাউনের মমি কথা বলেনি, ভাইরাল অংশটি সম্পাদিত 

সম্প্রতি, কয়েক হাজার বছর পর এই প্রথম ফেরাউনের মমি কথা বলছে দাবিতে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হয়েছে। 

ফেরাউনে

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।  

একই দাবিতে টিকটকের একটি ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, কয়েক হাজার বছর পর এই প্রথম ফেরাউনের মমির কথা বলার দাবিটি সঠিক নয় বরং, ন্যাশনাল জিওগ্রাফিকের ইউটিউব চ্যানেলে প্রচারিত একটি ডকুমেন্টারির কিছু অংশ নিয়ে তাতে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে ভিন্ন একটি অডিও যুক্ত করে আলোচিত দাবিটি প্রচার করা হয়েছে।

আলোচিত ভিডিওতে ফেরাউনের মমির কথা বলার ফুটেজ দাবিতে দেখানো ক্লিপটির বিষয়ে অনুসন্ধানে National Geographic এর ইউটিউব চ্যানেলে ২০২০ সালের ২০ সেপ্টেম্বর The Mummification of Seti I | Ultimate Treasure Countdown শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি ডকুমেন্টারি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

ভিডিওটি পর্যালোচনা করে দেখা যায়,  ফেরাউনের মমির কথা বলার ফুটেজ দাবিতে দেখানো ক্লিপের সাথে উক্ত ভিডিওর ৫৭ সেকেন্ড থেকে ১ মিনিট ১ সেকেন্ড পর্যন্ত ফুটেজের মিল রয়েছে। 

Video Comparison by Rumor Scanner

এটিও লক্ষ্য করা যায় যে, উক্ত ভিডিওর এই অংশটিকে মিরর করে আলোচিত ক্লিপটি তৈরি করা হয়েছে। তবে ন্যাশনাল জিওগ্রাফিকের ডকুমেন্টারি ভিডিওটির উক্ত অংশে আলোচিত ভিডিওতে থাকা গোঙানির শব্দটি শুনতে পাওয়া যায় না।

অর্থাৎ, ফেরাউনের মমির কথা বলার ক্লিপ দাবিতে দেখানো ভিডিওতে শুনতে পাওয়া গোঙানি অডিওটি এডিট করে যুক্ত করা হয়েছে।

এছাড়াও ন্যাশনাল জিওগ্রাফিকের ভিডিওটি থেকে জানা যায়, উক্ত মমিটি মূলত Seti the first বা প্রথম সেতি নামের ফেরাউনের। তিনি Ramesses the first এবং Sitre এর পুত্র ছিলেন। মনে করা হয়ে থাকে যে, প্রচীন মিশরের যে কয়েকটি মমি আজ পর্যন্ত পাওয়া গিয়েছে তার মধ্যে Seti the first এর মমিটিই সবথেকে উত্তমভাবে সংরক্ষিত অবস্থায় রয়েছে। 

মূলত, ২০২০ সালের ২০ সেপ্টেম্বর ন্যাশনাল জিওগ্রাফিকের ইউটিউব চ্যানেলে ফেরাউন Seti the first বা প্রথম সেতির মমি নিয়ে একটি ডকুমেন্টারি ভিডিও প্রচার করা হয়। উক্ত ভিডিওর একটি ফুটেজ নিয়ে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় মিরর করে তাতে ভিন্ন একটি অডিও যুক্ত করে কয়েক হাজার বছর পর এই প্রথম ফেরাউনের মমি কথা বলছে দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে। 

সুতরাং, ফেরাউনের মমি কথা বলছে দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও প্রচার করা হচ্ছে; যা এডিটেড বা সম্পাদিত।

তথ্যসূত্র

হালনাগাদ/ Update

০৩ এপ্রিল, ২০২৪ : এই প্রতিবেদন প্রকাশ পরবর্তী সময়ে টিকটকে একই দাবি সম্বলিত ভিডিও আমাদের নজরে আসার প্রেক্ষিতে উক্ত ভিডিওকে প্রতিবেদনে দাবি হিসেবে যুক্ত করা হলো।

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img